সোমবার, ২৫ মে ২০১৫ ।

আনসারুল্লাহ বাংলা টিম নিষিদ্ধ

জঙ্গি সংগঠন আনসারুল্লাহ বাংলা টিমকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে সরকার। সোমবার এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশে নির্মমভাবে হত্যার শিকার তিন ব্লগারের হত্যাকাণ্ডের পেছনে এই সংগঠনটির হাত রয়েছে বলে ধারণা করা হয়।

ট্রাক-লেগুনা সংঘর্ষে পুলিশসহ নিহত ৭

গাজীপুরের পোড়াবাড়ী এলাকায় ট্রাকের সঙ্গে আসামিবাহী লেগুনার সংঘর্ষে এক পুলিশ সদস্যসহ ৭ জন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে বিভিন্ন মামলার ৬ আসামি রয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন অন্তত ১০ জন। সোমবার বিকেল চারটার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- শ্রীপুর থানার কনস্টেবল গোলাম মোস্তফা, রাজেন্দ্রপুর এলাকার আমির আলীর ছেলে ও লেগুনা চালক মুবিনুল্লাহ (২৮), শ্রীপুর থানার সাতকামাইর এলাকার দুর্লভপুর গ্রামের সোহেল রানা (২৭) ও মানিক মিয়া (৩০)। বাকিদের পরিচয় নিশ্চিত হতে পারেনি পুলিশ। নিহতদের মধ্যে কনস্টেবল গো

কুমিল্লাকে বিভাগ করা হবে

বাংলাদেশে আরো কয়েকটি জেলাকে বিভাগ করার পরিকল্পনা করছে সরকার। সেদিক থেকে বৃহত্তর কুমিল্লাকে আগামীতে বিভাগ করার কথা জানালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সোমবার বিকেলে কুমিল্লার টাউন হল মাঠে ভাষা সৈনিক রফিকুল ইসলাম মঞ্চে বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী একথা জানান। শেখ হাসিনা বলেন, ‘স্বাধীনতার পরে বাংলাদেশে মাত্র ১৯টি জেলা ছিল। জাতির পিতা প্রত্যেকটি জেলাকে সাব ডিভিশন করেছিলেন। এ কারণে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি বাংলাদেশে আরো কয়েকটি বিভাগ করব। সেদিক থেকে বৃহত্তর কুমিল্লাকেও ভবিষ্যতে বিভাগ করব।’ এসময় উপস্থিত কুমিল্লাবাসীর প্রতি প্রশ্ন রেখে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘তবে প্রশ্ন থাকে- নামটা? এ বিভাগের নাম কুমিল্লা থাকবে না অন্য নাম হবে? তবে আমার একটা শর্ত আছে- কুমিল্লাবাসী কোনো কুকর্ম করবে না, সুকর্ম করবে। সব সময় যেন কুমিল্লার সুনাম থাকে।’ কুমিল্লার টাউন হল মাঠে ২৪৩ কোটি ৩৪ লাখ ৭৭ হাজার টাকার ১০টি উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন করা হয়। একই সঙ্গে সাতটি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনও করেন প্রধানমন্ত্রী। এসময় সরকারের উন্নয়ন পরিকল্পনা তুলে ধরে শেখ হাসিনা বলেন, ‘জনগণের সেবাই আমাদের লক্ষ্য। সে লক্ষ্য নিয়েই আওয়ামী লীগ কাজ করে। কাজেই আমরা এ সেবা মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে চাই।’
বোমাহামলার দিন রাতেই দায়েশের নিজস্ব রেডিও স্টেশন আল-বায়ান থেকে ওই হামলার দায় স্বীকার করা হয়। পাশাপাশি পরেরদিন শনিবার সকাল থেকেই যে সমস্ত ওয়েবসাইট জিহাদিদের দ্বারা পরিচালিত হয় সেগুলোতেও এই বিষয়টি উঠে আসে। প্রত্যেকটি সূত্র থেকেই একই বক্তব্য জারি করা হয় এবং বলা হয় যে, ওই বোমা হামলা চালিয়েছিল আবু আমির আল নাজদি নামের এক সৌদি জিহাদি।
বাংলাদেশ ক্রিকেট আজ যে এই পর্যায়ে এসেছে তার পেছনে কাজ করেছে বিসিবির একটি যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত। ২০০৪ থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত রিচার্ড ম্যাকিন্সের তত্বাবধানে পরিচালিত হাইপারফরম্যান্স ইউনিটের কার্যক্রম থেকেই বেরিয়ে এসেছিল একঝাঁক বিশ্বমানের তরুন ক্রিকেটার। সাকিব-তামিম-মুশফিকরা উঠে এসেছে সেই কার্যক্রম থেকেই। যাদের হাতে আজকের বাংলাদেশের ক্রিকেট। যারা বিশ্বমঞ্চে ওড়াচ্ছে বাংলাদেশের পতাকা। ভবিষ্যতের ক্রিকেটার তৈরীর সেই কার্যক্রম থেকে গিয়েছিল ২০০৭ সালে। প্রায় ৮ বছর পর এসে হাই পারফরম্যান্স ইউনিটটি আবারও কার্যকর করার প্রয়োজন অনুভব করলো বিসিবি এবং পরিকল্পনা মতো কাজও শুরু কর দিচ্ছে তারা। ভবিষ্যতের সাকিব-মুশফিকদের খুঁজে বের করতে আপাতত ২২জন ক্রিকেটার নিয়ে শুরু হচ্ছে হাইপারফরম্যান্স (এইচপি) ইউনিটের নতুন কার্যক্রম। এবারের পরিকল্পনায় রয়েছে কিছু নতুন সংযোজন। এইচপির মূল কার্যক্রমই হবে এখন জাতীয় দলের প্রয়োজনের ওপর জোর দেওয়া। এ কাথাই সোমবার সংবাদ সম্মেলনে জানান এইচপি ইউনিটের চেয়ারম্যান ও বিসিবির সিনিয়র সহ-সভাপতি মাহবুব আনাম।
প্রতি বছর একশ বাংলাদেশি শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দেবে চীন। এছাড়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চীন গবেষণা কেন্দ্রকে শিক্ষা সরঞ্জাম কেনা বাবদ ১০ ইউয়েন (আরএমবি) দেয়ারও ঘোষণা দেয়া হয়েছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনে সোমবার সকাল ১০টায় শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বক্তব্য দেন ঢাকা সফররত চীনা উপ প্রধানমন্ত্রী লিউ ইয়েনতোং। এসময় তিনি এসব ঘোষণা দেন। তিনি বলেন, ‘এখন থেকে প্রতিবছর ১০০ বাংলাদেশী শিক্ষার্থীকে শিক্ষাবৃত্তি দেবে চীন। এছাড়া চীন সরকারের প্রতিনিধি হিসেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চীন গবেষণা কেন্দ্রকে ১০ লাখ আর এমবি মূল্যে শিক্ষার সংক্রান্ত সরঞ্জাম প্রদান করা হবে। আর কনফুসিয়াস ইনস্টিটিউট সদর দপ্তরের পক্ষ থেকে ১০০ জন বাংলাদেশি ছাত্র-ছাত্রীকে চীনা ভাষার সেতু নামক গ্রীষ্মকালীন ক্যাম্পে অংশগ্রহণ করার আমন্ত্রণ জানানো হবে।’ তিনি আরো বলেন, ‘দু’দেশের কূটনৈতিক সম্পর্কের ৪০তম বছর উদযাপনের জন্য বিভিন্ন ধরনের অনুষ্ঠান সফলভাবে আয়োজনের মধ্য দিয়ে দু’দেশের সার্বিক অংশীদারিত্ব সম্পর্ক আরো ঘনিষ্ঠতর হবে। বাংলাদেশ ভারত চীন মিয়ানমার অর্থনৈতিক করিডোর নির্মাণের জন্য খুব ভালো প্রস্তাবও দিয়েছে বাংলাদেশ বাংলাদেশের সঙ্গে যৌথ আলোচনা করা হবে। এক সঙ্গে নির্মাণ ও একসঙ্গে উপভোগের নীতি অনুসরণ করে সহযোগিতা ও পারস্পরিক নতুন আন্তর্জাতিক সম্পর্ক স্থাপনের মধ্য দিয়ে মানবজাতির জন্য অভিন্ন স্বার্থগোষ্ঠী তৈরি করতে ইচ্ছুক চীন।’
প্রাণী জগতে প্রজনন এক রহস্যময় জৈবিক প্রক্রিয়া। পুরুষদেহে শুক্রাণু ও নারী দেহে ডিম্বাণু সৃষ্টি, বিপরীত লিঙ্গের মিলন, হাজার হাজার শুক্রাণু মধ্যে একটি মাত্র শুক্রাণুর সঙ্গে ডিম্বাণুর মহাকাব্যিক সঙ্গমে নিষেক সংগঠন ও জাইগোট গঠন। এরপর জরায়ুতে সেই ভ্রুণের পূর্ণতা প্রাপ্তি দীর্ঘ প্রক্রিয়া সত্যিই বিস্ময় জাগানিয়া। জীবনের দীর্ঘ ১২ বছর ভ্রুণের ছবি তুলে কাটিয়েছেন সুইডেনের ফটোগ্রাফার লেনার্ট নিলসন। সাধারণ ক্যামেরা দিয়েই মাতৃগর্ভে ভ্রুণের পূর্ণতাপ্রাপ্তির ধারাবাহিক ছবি তুলেছেন তিনি। তবে তাতে ব্যবহার করেছেন ম্যাক্রো লেন্স। ১৯৬৫ সালে প্রথম মানবভ্রুণের এই ছবিগুলো তোলেন নিলসন। বাংলামেইলের পাঠকদের জন্য তার তোলা কয়েকটি ছবি:
চলন্ত মাইক্রোবাসে উঠিয়ে গারো তরুণীকে গণধর্ষণ করার ঘটনাকে পূর্ব পরিকল্পিত মনে করছেন গোয়েন্দারা। তবে ঘটনাটি এখনো ক্লুলেস। ঘটনার চারদিন পেরিয়ে গেলেও কোনো কূলকিনারা করতে পারছে না পুলিশ। তদন্ত সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা জানিয়েছেন, পুলিশ সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে মামলাটি তদন্ত করলেও ধর্ষণকারীরা ভুক্তভোগীর পূর্বপরিচিত না হওয়ায় তাদের সনাক্ত করা যাচ্ছে না। গত শনিবার দুপুরে গুলশান জোনের উপ-পুলিশ কমিশনার খন্দকার লুৎফুল কবির বাংলামেইলকে জানিয়েছিলেন, একজন ধর্ষণকারীর নাম তারা পেয়েছেন। এরপর পেরিয়ে গেছে আরো দুইদিন। গ্রেপ্তারতো দূরের কথা, এখন পর্যন্ত কোনো ধর্ষণকারীকে সনাক্তই করতে পারেনি পুলিশ।
সরকারি সফরে বাংলাদেশে এলেও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে মাতৃভাষায় বক্তব্য দিলেন চীনের উপপ্রধানমন্ত্রী লিউ ইয়েনতোং। এসময় দোভাষী থাকলেও বিশেষ করে সমস্যায় পড়েছেন টিভির ফটো সাংবাদিকরা। এছাড়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিদেশি অতিথি হিসেবে ইংরেজি না বলে মান্দারিন ভাষায় বক্তব্য দেয়ায় অনেকে একটু অস্বস্তি বোধও করেছেন। সোমবার সকাল ১০টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বক্তব্য দেন চীনা উপ প্রধানমন্ত্রী। এসময় তিনি বলেন, কৌশলগত ও দীর্ঘমেয়াদী লক্ষ্য সামনে রেখে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরো সুসংহত করতে হবে। এছাড়া সহযোগিতার ভিত্তিতে সাংস্কৃতিক বিনিময়ের মাধ্যমে চীন বাংলাদেশ সম্পর্ক আরো গভীর করার উচিৎ বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

ভবিষ্যতের সাকিব-তামিমদের খোঁজা শুরু

বাংলাদেশ ক্রিকেট আজ যে এই পর্যায়ে এসেছে তার পেছনে কাজ করেছে বিসিবির একটি যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত। ২০০৪ থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত রিচার্ড ম্যাকিন্সের তত্বাবধানে পরিচালিত হাইপারফরম্যান্স ইউনিটের কার্যক্রম থেকেই বেরিয়ে এসেছিল একঝাঁক বিশ্বমানের তরুন ক্রিকেটার। সাকিব-তামিম-মুশফিকরা উঠে এসেছে সেই কার্যক্রম থেকেই। যাদের হাতে আজকের বাংলাদেশের ক্রিকেট। যারা বিশ্বমঞ্চে ওড়াচ্ছে বাংলাদেশের পতাকা। ভবিষ্যতের ক্রিকেটার তৈরীর সেই কার্যক্রম থেকে গিয়েছিল ২০০৭ সালে। প্রায় ৮ বছর পর এসে হাই পারফরম্যান্স ইউনিটটি আবারও কার্যকর করার প্রয়োজন অনুভব করলো বিসিবি এবং পরিকল্পনা মতো কাজও শুরু কর দিচ্ছে তারা। ভবিষ্যতের সাকিব-মুশফিকদের খুঁজে বের করতে আপাতত ২২জন ক্রিকেটার নিয়ে শুরু হচ্ছে হাইপারফরম্যান্স (এইচপি) ইউনিটের নতুন কার্যক্রম। এবারের পরিকল্পনায় রয়েছে কিছু নতুন সংযোজন। এইচপির মূল কার্যক্রমই হবে এখন জাতীয় দলের প্রয়োজনের ওপর জোর দেওয়া। এ কাথাই সোমবার সংবাদ সম্মেলনে জানান এইচপি ইউনিটের চেয়ারম্যান ও বিসিবির সিনিয়র সহ-সভাপতি মাহবুব আনাম।

মালদ্বীপে সাবিনা ঝড় শুরু

বিদেশের মাটিতে খেলে আগেই ইতিহাস গড়েছেন সাবিনা খাতুন। গোলের পর গোল করে মালদ্বীপে এক প্রকার ঝড়ই বইয়ে দিয়েছিলেন তিনি। ফুটসাল ফিয়েস্তা টুর্নামেন্টে ৩৭ গোল করে সাবিনা ছিলেন টুর্নামেন্টের মধ্যমনি। দ্বিতীয়বারের মতো আবারও মালদ্বীপে শুরু হয়েছে সাবিনা ঝড়। এফএএম উইমেন্স চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম ম্যাচে একাই সাত গোল করেছেন বাংলাদেশের এই কৃতি মহিলা ফুটবলার।

মাঠের পারফরমেন্সই মূল কারণ: মারুফ

গত মৌসুমে তার হাত ধরেই লিগ শিরোপা জিতেছিল শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। জিতেছিল ভুটানে অনুষ্ঠিত কিংস কাপ ও চলতি মৌসুমের শুরুতে ফেডারেশন কাপের ট্রফি। তবে চলমান প্রিমিয়ার লিগের প্রথম রাউন্ড শেষে মাঠের পারফরমেন্সের বিচারে ছুরি নিচে যেতে হয়েছে শেখ জামালের কোচ মারুফুল হককে। জোর গুঞ্জন, পারফরমেন্স নয়, আসলে দলের মধ্যে শৃঙ্খলা আনতে না পারায় বরখাস্ত হয়েছেন মারুফুল। তবে এমন অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন তিনি। মারুফুল হকের মতে, এমন ঘটনার পেছনে মাঠের পারফরমেন্সই মূল কারণ।

নজরুলের গান মানুষের কাছে ঠিকভাবে পৌঁছায়নি: খালিদ হোসেন

বাংলাদেশে নজরুল সঙ্গীতকে যে কজন সংগীতশিল্পী ভিন্নমাত্রায় নিয়ে গিয়েছেন তাদের মধ্যে খালিদ হোসেন অন্যতম। জাতীয় কবি কাজী নজরুর ইসলামের ১১৬ তম জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে বেসরকারি টিভি চ্যানেল চ্যানেল আই তাকে দিয়েছে আজীবন সম্মাননা। নজরুল সঙ্গীতের বর্তমান হাল, সম্মাননা প্রাপ্তি এসব বিষয় নিয়ে বাংলামেইলের ফেস টু ফেস বিভাগে কথা বলেছেন তিনি...

সুস্থ থাকুন তীব্র গরমেও

সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়ে চলেছে প্রকৃতির উত্তাপ। দিনের শুরুতেই সদ্য ওঠা সূর্যটা যেন তীব্র তেজে ফেটে পড়ে পৃথিবীর বুকে। রোজ সন্ধ্যায় সূর্যের বিদায় হলেও রেখে যায় গরমের ঝাপটা। তাই সারা রাতেও নিস্তার মেলে না। এমন সময় বিদ্যুতের অবস্থা এতোটাই শোচনীয় যে, গরম কমাতে তার ওপরও ভরসা করা চলে না। নিজের কাজ করতে সারাদিন ঘরেও বসে থাকা চলে না, বাইরে বের হতেই হয়। তাই তীব্র গরমে আমাদেরকে সুস্থ থাকতে কিছু ব্যবস্থা অবশ্যই নিতে হয়। এবিষয়ে পরামর্শ দিচ্ছেন ডা. সন্দীপ ধর।
বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন নাসির উদ্দিন আহমেদ পিন্টু। গত ৩ মে কারারুদ্ধ অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। কিন্তু অনেকটা তড়িঘড়ি করেই তার পদে অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদকে দায়িত্ব দেয়া হয়। অথচ পিন্টুর আগে বিএনপির অনেক নেতা মারা গেলেও পদগুলোতে এখনো খালি আছে। উপরন্তু আজাদের দক্ষতা ও যোগ্যতা নিয়েও প্রশ্ন তুলছে তৃণমূল। নীতি নির্ধারকদের মধ্যে তার অনেকের তার ব্যাপারে আপত্তি আছে। নাসির উদ্দিন আহমেদ পিন্টু মূলত তৃণমূল থেকে রাজনীতি শুরু করেন। প্রথম জীবনে লালবাগ ছাত্রদলের ওয়ার্ড ও থানা পর্যায়ে রাজনীতি করতেন। এরপর লালবাগ থানা ছাত্রদলের সভাপতি হন। পর্যায়ক্রমে কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক, সহ-সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও সভাপতি পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। ছাত্রদলের সভাপতি থাকার সময় তিনি এমপি নির্বাচিত হন।

পিন্টুর পদে ‘অনাকাঙ্ক্ষিত’ আজাদ

রাজধানী ঢাকায় ৭০ হাজারেরও বেশি ভবন ঝুঁকিপূর্ণ আছে। ভূমিকম্প ঝুঁকি মোকাবেলায় বিশেষ ব্যবস্থায় এসব ভবন চিহ্নিত করে অপসারণ করার জন্য নির্দেশ দিয়েছে সরকার। কিন্তু সংশ্লিষ্ট ব্যবস্থা গ্রহণকারী প্রতিষ্ঠান দুই সিটি করপোরেশন ও রাজউকের দায় চাপাচ্ছে একে অপরের ওপর। ভবনগুলো অপসারণ করা না হলেও দুযোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় বলছে ভূমিকম্প মোকাবেলায় তাদের ৭৫ হাজার স্বেচ্ছাসেবক প্রস্তুত আছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন দক্ষিণ এশিয়ায় বড় ধরনের কোনো ভূমিকম্প হলে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হবে রাজধানী ঢাকা। সরকারের পরিসংখ্যান মতে নগরীতে ৭০ হাজারেরও বেশি ভবন ঝুঁকিপূর্ণ রয়েছে। আর সরকারের সমন্বিত দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্মসূচির (সিডিএমপি) এক প্রতিবেদনে দেখা গেছে এর সংখ্যা ৭৮ হাজার। এর মধ্যে শুধু সরকারী ভবনই আছে প্রায় ৫ হাজার। জানা গেছে, ভূগর্ভস্থ নরম মাটি, বিল্ডিং কোড না মানা ও অপরিকল্পিত নগরায়ণসহ নানা কারণে ‍প্রায় দেড়কোটি মানুষের বসবাস রাজধানী ঢাকায় ৭৫ হাজারেরও বেশি ভবন ভূমিকম্প ঝুঁকিতে রয়েছে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় থেকে এসব ভবন চিহ্নিত করার নির্দেশ দেয়া হলেও অপসারণের বিষয়ে কোনো ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না। ভবনগুলোতে এখনো বসবাস করছে লাখ লাখ মানুষ। সরকার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ঝুঁকিপূর্ণ এসব ভবন সিটি করপোরেশন ও রাজউকের একার পক্ষে অপসারণ করা সম্ভব নয়। বিষয়টি উপলব্ধি করেই সরকারের পক্ষ থেকে ভবনগুলোতে বিশেষ রঙ দিয়ে কালার ও সাইনবোর্ডের মাধ্যমে চিহ্নিত করে দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এর মাধ্যমে ভাড়াটিয়ারা আর ওসব ভবনে উঠবেন না। তখন মালিক পক্ষ ভাড়াটিয়া না পেলে নিজ উদ্যোগ ভবন ভেঙে নতুন ভবন নির্মাণ করবেন। কিন্তু মন্ত্রণালয়ের সামান্য এ নির্দেশ টুকুও বাস্তবায়ন করছে না সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান তিনটি।

ঝুঁকিপূর্ণ ভবন: দায় কার?

যানজটে নাকাল হওয়া ঢাকাবাসীর নিত্যদিনের এক ঘটনা। বিশেষ কোনো দিন বা বিশেষ কোনো উপলক্ষ থাকলে তো কথাই নেই। নগরবাসীকে এ যন্ত্রণার হাত থেকে মুক্তি দিতে সরকার থেকে নানা উদ্যোগ নেয়ার চেষ্টা করা হলেও কোনটিই কার্যত সফলতার মুখ দেখেনি। সরকারের তরফ থেকে নেয়া উদ্যোগগুলোর মধ্যে সর্বশেষটি ছিল কাউন্টডাউন টাইমার বা সময় নিয়ন্ত্রিত সঙ্কেত বাতি। আগের উদ্যোগগুলোর ধারাবাহিকতায় এ উদ্যোগটিও পুরোপুরি ভেস্তে গেছে। যানজট কমানোর চিন্তাভাবনা করে কাউন্টডাউন টাইমারের কার্যক্রম শুরু হলেও বাস্তবতায় হয়েছে হিতে বিপরীত। কাউন্টডাউন টাইমার চালু করে রাজধানীর বিভিন্ন পয়েন্ট থেকে ট্রাফিক পুলিশ সরিয়ে নেয়ার পর জট এতটা তীব্র রূপ নেয় যে ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই উদ্যোক্তরা ফিরে আসেন তাদের সনাতনী পদ্ধতিতে, অর্থাৎ হাতের ইশারায় যান চলাচল নিয়ন্ত্রণে। কিন্তু যানজট নিরসনের শুভ এই উদ্যোগটি ঠিক কী কারণে কাজ করলো না- এ প্রশ্নের জবাবে ডিসিসি কর্তৃপক্ষ বলছে- নিউ ইয়র্ক, মস্কো ও কলকাতার মতো শহরগুলোতে এই স্বয়ংক্রিয় ট্রাফিক সিগন্যাল পদ্ধতিটি দারুণ কাজ করছে। তবে ঢাকায় কেন মেশিনগুলো এমন অসহনীয় পরিস্থিতির সৃষ্টি করছে তা এখনো স্পষ্ট নয়। সোমবার সকালে কাউন্টডাউন টাইমারের মাধ্যমে যান চলাচল নিয়ন্ত্রণ শুরুর ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে অসহনীয় যানজট তৈরি হয়। সময় নিয়ন্ত্রিত এ সঙ্কেত বাতিগুলো যখন গাড়িগুলোকে সামনে যাওয়ার সঙ্কেত দিচ্ছিল তখন দেখা যাচ্ছিল সামনে তীব্র যানজট। এগোনোর উপায় নেই। আবার কখনো দেখা যাচ্ছে। সামনে রাস্তা পুরোটাই ফাঁকা কিন্তু সঙ্কেত থেমে থাকার। ফলে চালকরা বারবার লেন পরিবর্তন করে এলোমেলোভাবে গাড়ি চালাতে শুরু করেন।

যে কারণে ব্যর্থ কাউন্টডাউন টাইমার

বাংলাদেশের সীমান্ত এলাকা হয়ে সমুদ্রপথে বেশি পাচার হচ্ছে মিয়ানমারের বিপদাপন্ন রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর লোকজন। বাংলাদেশের মানুষের চেহারা এবং চট্টগ্রামের ভাষার সঙ্গে মিল থাকায় সাগরে ভাসতে থাকা রোহিঙ্গারা বাঁচার জন্য নিজেদেরকে বাংলাদেশি বলে পরিচয় দিচ্ছে। ফলে বহির্বিশ্বও ধারণা করছে সাগরপথে বিপুল পরিমাণ বাংলাদেশি পাচার হচ্ছে। সংশ্লিষ্টরা বলছে বাংলাদেশে এই মুহূর্তে ভাত-কাজের অভাব নেই। ফলে ঝুঁকি নিয়ে সাগর পথে বিদেশে পাড়ি জমানোর কোনো যুক্তি হয় না। তারপরও লোভে পড়ে, পাচারকারীদের দ্বারা প্ররোচিত হয়ে অনেকে সাগরে পাড়ি জমাচ্ছে। তবে সে সংখ্যা খুব বেশি নয়। মূলত দেশ ও বাস্তুহারা রোহিঙ্গারা নিজেদের অস্তিত্ব রক্ষার জন্য তৃতীয় কোনো দেশে পাড়ি জমাতে চাচ্ছে। সে ক্ষেত্রে মুসলমান হিসেবে সহমর্মিতা পাওয়ার আশায় তারা বেছে নিয়েছে মুসলিম প্রধান রাষ্ট্র মালয়েশিয়া ও ইন্দোনেশিয়াকে। সমুদ্র ও তার বিপদ সম্পর্কে ধারণা না থাকায় তারা পাচারকারীদের খপ্পরে পড়ে অনায়াসে পাড়ি দিচ্ছে সাগরে।

বিপদাপন্ন রোহিঙ্গারাই পাচার হচ্ছে বেশি