শনিবার, ০১ আগস্ট ২০১৫ ।

ছিটমহলের যে গল্পগুলো অব্যক্ত থাকলো

দীর্ঘ ৬৮ বছর পর নাগরিকত্ব পেল ভারত-বাংলোদেশের লাখ খানেক মানুষ। গতকাল শুক্রবার দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিটে মুজিব-ইন্দিরা চুক্তি কার্যকরের মধ্য দিয়েই বিলুপ্তি ঘটলো ছিটমহলের। যার ফলে বাংলাদেশের ৫১টি ছিটমহলের ১৪ হাজার মানুষ ভারতের নাগরিকত্ব পেলেন। আর ভারতের ১১১টি ছিটমহলের ৪৪ হাজার মানুষ পেলেন বাংলাদেশের নাগরিকত্ব। অবসান ঘটলো ৬৮ বছরের বন্দিদশার। কিন্তু এই এতোদিনের অনেক গল্পই চাপা পড়ে গেল। ছিটমহলে বিনিময়ের প্রাক্কালের দ্বন্দ্ব এবং প্রভাবশালীদের দ্বারাও বঞ্চনা ও প্রতারণার শিকার মানুষদের গল্প আর কেউ হয়তো বলবেন না। কিন্তু এই মানুষগুলোর ভাগ্যোন্নয়নে যদি সরকার যথাযথ ব্যবস্থা না নেয় তাহলে সেই পুরনো গল্পগুলোর পুনরাবৃত্তি হতেই থাকবে।

মালয়েশিয়ায় নয়, এবার নেপালে মানবপাচার

ভালো বেতনের চাকরি দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে বেশ বিছুদিন ধরে বাংলাদেশ থেকে সমুদ্রপথে মালয়েশিয়ায় মানবপাচার করা হচ্ছে। যা ইতোমধ্যে ধরা পড়েছে, উদ্ধারও করা হয়েছে শতশত বাংলাদেশিকে। কিন্তু এবার পাচারকারীরা তাদের রুট পরিবর্তন করেছে। নতুন করে তারা মানববপাচার শুরু করেছে নেপালে। এমনই একটি চক্রের সন্ধান পেয়েছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। উদ্ধার করা হয়েছে নেপালে পাচারের উদ্দেশ্যে বিভিন্ন জেলা থেকে নিয়ে আসা ২০ জনকে। আটক করেছে লাভলু আকন্দ (৩৫) নামে পাচারকারী চক্রের এক সদস্যকেও।। শুক্রবার রাতে জয়পুরহাটের দু’টি আবাসিক হোটেলে পৃথক অভিযান চালিয়ে নেপালে পাচারের উদ্দেশ্যে আনা গাইবান্ধা ও নরসিংদী জেলার বিভিন্ন গ্রামের ওই ২০ জনকে উদ্ধার করা হয়। পরে শনিবার দুপুরে

প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছায় যে কোনো সময় নির্বাচন

মধ্যবর্তী নির্বাচনের সম্ভাবনা উড়িয়ে দিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন, ‘মধ্যবর্তী নির্বাচনের বিষয়ে আমাদের দলের মধ্যে কোনো আলোচনা হয়নি। প্রধানমন্ত্রী এ বিষয়ে আমার সঙ্গে কোনো আলোচনাও করেননি।’ শনিবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪০তম শাহাদাৎবার্ষিকী উপলক্ষে ৪০ দিনের কর্মসূচির অংশ হিসেবে টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে ঢাকায় রওনা হওয়ার প্রাক্কালে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এ কথা বলেন। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘সংবিধান অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রী মনে করলে যে কোনো সময় নির্বাচন হতে পারে। এই ক্ষমতা প্রধানমন্ত্রীর রয়েছে। তিনি মনে করলে সংসদ বাতিল করে নির্বাচনের জন্য রাষ্ট্রপতিকে চিঠি দিতে পারেন। সংবিধানে এটা বলা রয়েছে।’
চট্টগ্রাম টেস্ট ম্যাচের শেষ দুটি দিন বৃষ্টিতে ভেসে গিয়েছিল। তাতে করে প্রথম টেস্ট ম্যাচটি অমিমাংসিতভাবে শেষ হয়েছিল। তাই স্বাগতিক বাংলাদেশ এবং সফরকারী দক্ষিণ আফ্রিকা দুটি দলের লক্ষ্য ছিল ঢাকা টেস্টে। মুশফিক বাহিনীর যেমন শেষ টেস্টে ভালো করার পরিকল্পনা ছিল। ঠিক তেমনি চট্টগ্রামে ওয়ানডে সিরিজ হারানোর জ্বালা ঢাকায় ভুলতে চেয়েছিলেন হাশিম আমলারা। তবে সিরিজের শেষ টেস্ট ম্যাচের প্রথম দিনটি ভালোভাবে কাটলেও পরপর দ্বিতীয় এবং তৃতীয় দিন ভেসে গেছে বৃষ্টিতে। দুই দলের ক্রিকেটারদের অলস সময় পার করতে হচ্ছে। সিরিজের শেষ টেস্ট ম্যাচের পরপর দুটি দিন বল মাঠে না গড়ানোয় ভীষণ হতাশ বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।
স্বামীর বাড়ির আত্মীয়-স্বজনদের সঙ্গে শিথিল পারিবারিক বন্ধন নিয়ে প্রশ্নের মুখে পড়েছেন দেশের অন্যতম বৃহৎ রাজনৈতিক দল বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। বিগত আড়াই দশকে নিজের পরিবারের লোকজন নানাভাবে আলোচনায় এলেও স্বামী প্রয়াত রাষ্ট্রপতি ও বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের পরিবারের কোনো সদস্যকে তার আশেপাশে দেখা যায়নি। স্বামীর জন্মস্থান বগুড়া থেকে সর্বোচ্চ ভোট পেয়ে কয়েক দফায় প্রধানমন্ত্রী হলেও জীবিত একমাত্র দেবর বা আত্মীয় স্বজনের কোনো খোঁজ-খবর রাখেননি স্বামীর প্রতিষ্ঠিত দলের প্রধান। বগুড়ার কৃতিসন্তান জিয়াউর রহমানেরা পাঁচ ভাই। বর্তমানে জীবিত আছেন মাত্র একজন। তার নাম আহম্মেদ কামাল। কিন্তু দলীয় লোকজন তো দূরের কথা তার কোনো খোঁজ-খবর রাখেন না তার ভাবি খালেদা জিয়া, ভাতিজা তারেক রহমান বা পরিবারের কোনো সদস্য। সম্প্রতি অসুস্থ হয়ে পড়েছেন আহম্মেদ কামাল। অর্থাভাবে উন্নত চিকিৎসা নিতে পারছেন না। ভর্তি রয়েছেন রাজধানীর বারডেমে ইব্রাহিম কার্ডিয়াক সেন্টারে। তবে তার অসুস্থ হওয়া বা চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার খবরটি জানা নেই বেগম জিয়া বা কোনো নেতাকর্মীর। কেউ খোঁজ পর্যন্ত রাখেননি বিএনপির প্রতিষ্ঠাতার ছোট ভাইয়ের।
ভারত-বাংলাদেশ ছাড়াও বিশ্বের আরও অনেক দেশ আছে যারা এখনও ছিটমহল সমস্যায় আক্রান্ত। মূলত দেশ ভাগাভাগির সময়ে রাজনৈতিক কারণে এই ছিটমহল সমস্যার সৃষ্টি হয়। মূলভূখণ্ডে থাকা মানুষের তুলনায় ছিটমহলবাসীর জীবনে সুযোগ সুবিধা কিছু নেই বললেই চলে। উল্টো তাদেরকে কোনো নাগরিক পরিচয়পত্রও দেয়া হয় না, কারণ দুই দেশের রাষ্ট্রনায়করাই তাদের নিয়ে দ্বিধান্বিত যে ওই মানুষগুলো আসলে কোন ভূমির মানুষ।
হাওরবেষ্টিত জেলা সুনামগঞ্জ। বোরো ধানই এ জেলার প্রধান ফসল। সারাদেশের খাদ্যচাহিদার একটি বড় অংশ আসে এ জেলা থেকে উৎপাদিত ধান থেকে। এবারো বোরো ধানের হয়েছে বাম্পার ফলন। কিন্তু শিলাবৃষ্টি আর আগাম বন্যায় সোনালী ধান এখন সুনামগঞ্জের কৃষকদের কাছে দীর্ঘশ্বাসের নাম। এবারের কৃষি মৌসুমে ২১ হাজারেরও বেশি হেক্টরের জমির ফসল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। যার পরিমাণ প্রায় ৭৮ হাজার মেট্রিক টন। যা গত কৃষি মৌসুমের তুলনায় ৭২ হাজার মেট্রিক টন বেশি। সেই সঙ্গে সরকার নির্ধারিত মূল্যে ধান বিক্রি করতে না পারায় কৃষকদের কাছে যেন ‘মরার ওপর খাড়ার ঘা’। সুনামগঞ্জের কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, এ কৃষি মৌসুমে ২ লাখ ১৮ হাজার ৫৬৫ হেক্টর কৃষি জমিতে ৮ লাখ ৬৫ হাজার মেট্রিক টন ধান উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ছিল। এর কতটুকু অর্জন হয়েছে তা এখনো জানা যায়নি। ২০১২-১৩ কৃষি মৌসুমে ২ লাখ ৩৩৭ হেক্টর জমিতে ৭ লাখ ৩৫ হাজার ৭৫৭ মেট্রিকটন এবং ২০১৩-১৪ মৌসুমে ২ লাখ ১৬ হাজার ১৭০ হেক্টর জমিতে ৮ লাখ ২ হাজার ৭৩৭ মেট্রিকটন ধান উৎপাদিত হয়েছিল। এর মধ্যে হাইব্রিড, উফসী ও স্থানীয় বোরো ধান রয়েছে।
পৃথিবীর প্রাচীনতম অপরাধগুলোর মধ্যে ধর্ষণ একটি। বর্তমানেও দেশে আশঙ্কাজনকহারে বৃদ্ধি পাচ্ছে ধর্ষণের ঘটনা। সাম্প্রতিক সময়ে খোদ রাজধানীতে বেশ কয়েকটি গণধর্ষণের ঘটনা জনমনে উদ্বেগের জন্ম দিয়েছে। বাড্ডায় মাইক্রোবাসে গাড়ো তরুণীকে গণধর্ষণের পরপরই গেল ঈদের পরদিন পুরান ঢাকার লালবাগে প্রমিকের সঙ্গে বেড়াতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার হন নবম শ্রেণীর এক ছাত্রী। এই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই রাজধানীর উত্তরায় সহকর্মীরা গণধর্ষণ করে এক বিক্রয়কর্মীকে।
সিলেটের শিশু রাজনকে বেঁধে নির্মমভাবে পিটিয়ে হত্যাকারীদের বিচার নিশ্চিতে দেশের জনগণ যখন সোচ্চার ঠিক তখনই মাদরীপুরের কালকিনিতে এমনই এক ঘটনা ঘটিয়েছেন স্থানীয় প্রভাবশালীরা। যেখানে জাল টাকা লেনদেনের অভিযোগ এনে মো. উজ্জল হাওলাদার (১৮) নামের এক যুবককে গাছের সঙ্গে বেঁধে অমানবিক নির্যাতন চালানো হয়েছে। পরে খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে। তবে তার পরিবারের অভিযোগ, জাল টাকা বিনিময় নয় বরং পূর্বশত্রুতার জের ধরেই এ নির্যাতন চালানো হয়েছে। নির্যাতনের শিকার মো. উজ্জল হাওলাদার কালকিনিতে ভাড়ায় মোটরসাইকেল চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করেন। তিনি সাহেবরামপুর এলাকার ক্রোকিরচড় গ্রামের দিনমজুর জয়নাল আলী হাওলাদারের ছেলে। এলাকাবাসী ও পুলিশ জানায়, উজ্জল হাওলাদার দীর্ঘদিন ধরে পরিবার নিয়ে বেঁচে থাকার তাগিদে ভাড়ায় মোটরসাইকেল চালিয়ে আসছেন। যাত্রী নিয়ে এ মোটরসাইকেল চালিয়ে উপজেলার ডাকবাংলো অফিসের সামনে এলে স্থানীয় মো. বেল্লাল হোসেনসহ ৪-৫ জন প্রভাবশালী মিলে জাল টাকা লেনদেনের অভিযোগ এনে প্রথমে গাছের সঙ্গে রশি দিয়ে তাকে বেঁধে ফেলেন। পরে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে তার ওপর চালানো হয় অমানবিক নির্যাতন। পরে এ খবর পেয়ে কালকিনি থানার সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) মো. জুয়েল হোসেন এসে তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করেন। এ ব্যাপারে নির্যাতিত উজ্জলের বাবা মো. জয়নাল আলী হাওলাদার বাংলামেইলকে বলেন, আমার ছেলের ওপর যে অভিযোগ এনে নির্যাতন করা হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আমার ছেলেকে এ নির্যাতন করা হয়েছে। আমি নির্যাতনকারীদের বিচার চাই।’

মিরপুরে রান তোলা কঠিন: সাকিব

চট্টগ্রাম টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে বাংলাদেশের তিন ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ এবং লিটন কুমার দাস হাফ সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছিলেন। এমনকি সিরিজের ঐ টেস্ট ম্যাচে ফিফটি ছুঁই-ছুই একটি ইনিংসও খেলেছিলেন সাকিব আল হাসান। শেষ পর্যন্ত স্বাগতিক ব্যাটসম্যানদের এই তিনিটি দায়িত্বশীল ফিফটিতে প্রোটিয়াদের বিপক্ষে লিড নিয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু সিরিজের দ্বিতীয় এবং শেষ টেস্টে স্বাগতিক ব্যাটসম্যানদের মধ্যে একমাত্র দলনায়ক মুশফিকুর রহিম ছাড়া আর কেউই ব্যক্তিগত সংগ্রটাকে বড় করতে পারেননি। বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের ইনিংসগুলো বড় করতে না পারার কারণ হিসেবে মিরপুরের উইকেটকে দায়ী করলেন সাকিব আল হাসান।

শচীনের গুরু ভক্তি

রমাকান্ত আচরেকারকে গোটা ক্রিকেট দুনিয়া জানে কিংবদন্তী শচীন টেন্ডুলকারের ছোটবেলার কোচ হিসেবে। আচ্ছা বলুন তো, আর কোন ক্রিকেটারের ছোটবেলার কোচ কী এত বিখ্যাত! এখানেই চলে আসে লিটল মাষ্টারের নাম। শুধু ভারতীয় ক্রিকেটেই নয়, বিশ্ব ক্রিকেটেই পরম পূজনীয় ব্যক্তিত্ব শচীন রমেশ টেন্ডুলকার।

‘ড্রপ ক্যাচেও আউটের আবেদন’

ঘটনাটি গত ২২ জুলাইয়ের। কলম্বোয় যেখানে চতুর্থ ওয়ানডে ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল শ্রীলংকা ও পাকিস্তান। ঐ ম্যাচে জিতেছিল পাকিস্তানই। তবে পাক ওপেনার আহমেদ শেহজাদের ক্যাচ জোচ্চুরির কাণ্ড এখনও সোসাল মিডিয়াতে বেশ বিতর্ক সৃষ্টি করছে।

হারানো যৌবন নিয়ে ফিরলেন শাবনূর...

প্রাণ জুড়োনো হাসি আর মায়া ভরা চোখে অসংখ্য যুবকের ঘুম হারাম করা নায়িকা তিনি। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরেই এই চেনা জগৎ থকে দূরে। তবু চাইলেই কি দূরে থাকা সম্ভব? শাবনূরের ক্ষেত্রে উত্তরটা হবে ‘না’। কারণ দীর্ঘ বিরতি আর অসংখ্য গুঞ্জনের পর তিনি আবারো ফিরেছেন চলচ্চিত্রে।

শিশুর বিষণ্ণতার কারণ

শিশুর সুন্দর ভবিষ্যতের মূল নিয়ামক হচ্ছে সুন্দর একটি শৈশব। কিন্তু সে শৈশবও ছেয়ে থাকতে পারে বিষণ্ণতার কালো মেঘে। নির্মল আনন্দের দিন গুলো হয়ে উঠতে পারে অন্ধকারাচ্ছান্ন। বিষণ্ণতা যেকোনো বয়সের মানুষের জন্যে ক্ষতিকর হলেও শিশুদের ক্ষেত্রে তা বেশি ঝুঁকিপূর্ণ। বিভিন্ন কারণে শিশুমনে এই বিষণ্ণতা ভর করতে পারে। অনেক সময় পরিবারের চাপের কারণেও শিশু বিষণ্ণ হয়ে যেতে পারে। তবে বিশেষ কিছু কারণকে শিশুর বিষণ্ণতার জন্য দায়ি করা যেতে পারে –
আটষট্টি বছর পর ছোট করে হলেও আরেকটি ডায়াস্পোরা দেখবে ভারতবর্ষ। ১৯৪৭ সালের বিচ্ছেদে হাজার হাজার মানুষ পাঞ্জাব ও বাংলা সীমান্ত পার হয়েছিল। অনেকে নিজের পছন্দে, কেউ বাধ্য হয়ে বাপ দাদার ভিটেমাটি ছেড়েছিলেন। এতোদিন পর বাংলার সীমান্তে আবার সেই বিচ্ছেদ ঘটতে যাচ্ছে। অবশ্য নিজ পছন্দেই ভিটে ছাড়ছেন তারা। কিন্তু এতোদিন থেকে যে আত্মার বন্ধন তৈরি হয়েছিল সেটি ছিঁড়তে তাদের কষ্ট হচ্ছে না এটা বলা যাবে না। আজ শুক্রবার দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিটে আর ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে ছিটমহলের অস্তিত্ব থাকবে না। ভারতীয় ছিটমহলের ৯৭৯ জন মানুষ বাংলাদেশের ভেতরে তাদের নিবাসকে চিরদিনের মতো বিদায় জানাবে। যদিও ভারত থেকে বাংলাদেশি ছিটমহলের কেউ এপারে আসছেন না। ভারতবর্ষের ইতিহাসে এই দ্বিতীয়বারের মতো মানুষকে তাদের আবাসভূমি বেছে নেয়ার সুযো্গ দেয়া হলো। এতোদিন ভারত-বাংলাদেশের ছিটমহলের মানুষরা নামমাত্র কাঁটাতারের বেড়ায় বন্দি থাকলেও থেমে থাকেনি এপারের সাথে ওপারের আনাগোনা। কোনো কোনো ছিটে একপথেই দুইপারের মানুষের যাতায়াত। বাংলার স্কুলে ভারতীয় শিশুরা। আর ভারতের স্কুলে বাংলার শিশুরা। শুধু তাই নয়, পড়ালেখা থেকে শুরু করে ব্যবসা-বাণিজ্য, বিয়েসাদি সবকিছুতেই বাংলার মানুষের সাথে ভারতীয় ছিটমহলের বন্ধন যেন অবিচ্ছেদ্য। নাগরিক সুবিধা বঞ্চিত ছিটমহলের মানুষদের বাস্তবতা দেখলে বোঝা যায় কাঁটাতার এখানে কোনো প্রতিবন্ধকতা নয়। বাংলার অভ্যন্তরে ছড়িয়ে থাকা ওপারের দাসিয়ার ছড়া, চন্দ্রকোণা, বাঁশকাটা, উত্তর গোতামারি, বাত্রিগাছ, ভোটবাড়ি ও কামাত চ্যাংড়াবান্ধাসহ বেশ কয়েকটি ছিটমহল ঘুরে দেখা গেছে কাঁটাতারের বেড়া ভেদ করে দুইপারের মানুষের গাঢ় সম্পর্কের প্রাণবন্ত প্রতিচ্ছবি।

৬৮ বছর পর আরেক বিচ্ছেদ

স্ফটিকের মতো স্বচ্ছ জল, তার মাঝে চাঁদের ছায়া। যতদূর চোখ যায় মেঘালয় পাহাড়ের নীলাভ আভা। প্রকৃতির এই সৌন্দর্যময়তার মাঝে মিশে আছে সুনামগঞ্জের হাওরবাসীর চোখের জল। যে হাওর দেখতে দেশ-বিদেশ থেকে ছুটে আসেন হাজারো পর্যটক, সেই হাওরই অভিশাপ হয়ে বয়ে যাচ্ছে এখানকার বাসিন্দাদের। সুনামগঞ্জ সদরের লঞ্চঘাট থেকে নৌপথে প্রায় এক ঘণ্টার পথ ভাদেরটেক গ্রাম। করচার হাওরের অন্তর্ভূক্ত গ্রামটি। বর্ষণমুখর সকালে গ্রামে নৌকা ভিড়তেই চোখে পড়লো জিয়াউর রহমানের সংগ্রামের চিত্র। ঘরের যা কিছু আছে তাই নিয়েই উঠনোর ভাঙন ঠেকাতে ব্যস্ত তিনি। সঙ্গী তার চার সন্তান। তার পাশেই দাঁড়িয়ে থাকা ষাটোর্ধ্ব আব্দুল লতিফ হাওরের জলে যেন খুঁজছেন গত বছর তলিয়ে যাওয়া জমি।

জল আসে, স্বপ্ন ভাসে

র‌্যাব আর সিআইডির গোলকধাঁধায় ঘুরপাক খাচ্ছে যুবলীগ নেতা রিয়াজুল হক খান মিল্কী হত্যা মামলা। এক বছরেরও বেশি সময় আগে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগকে (সিআইডি) এ মামলার অধিকতর তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হলেও তদন্ত প্রতিবেদন দিতে পারেনি তারা। আদালত বারবার সময়সীমা বেঁধে দিলেও ব্যর্থ হয়েছে সিআইডি। তদন্ত সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র বাংলামেইলকে জানিয়েছে, গুরত্বপূর্ণ নথি না পাওয়ার কারণে এই মামলার তেমন কোনো অগ্রগতিই করতে পারেনি সিআইডি। আগের তদন্তকারী সংস্থা র‌্যাব মামলার গুরুত্বপূর্ণ নথি হস্তান্তর না করার কারণে তদন্ত সংশ্লিষ্টরা জটিলতায় পড়েছেন।

র‌্যাব-সিআইডির গোলকধাঁধায় ঘুরছে মামলা

এনবিআর সূত্র বাংলামেইলকে জানিয়েছে, গত দুই দিনে কর বিভাগের এবং শুল্ক, আবগারি ও মূসক বিভাগের ১৯০ জন কর্মকর্তার রদবদল ও পদোন্নতি দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে গতকাল রোববার ১৭০ জন এবং সোমবার ২০ জন কর্মকর্তার রদবদল ও পদোন্নতি দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। এদের বেশির ভাগকেই ঢাকা ও চট্টগ্রামের বাইরে বদলি করা হয়েছে। আর সাধারণত এসব বদলি আদেশ রাতেই প্রজ্ঞাপন আকারে জারি করা হয় বলে জানান সেই সূত্র।

মরিয়া এনবিআরে বদলির হিড়িক