রোববার, ০১ ফেব্রুয়ারী ২০১৫ ।

বিদ্যুৎ ফিরল খালেদার কার্যালয়ে

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গুলশান রাজনৈতিক কার্যালয়ে বিচ্ছিন্ন করা বিদ্যুৎ সংযোগটি পুনস্থাপন করা হয়েছে। শনিবার রাত ১০টার দিকে ডেসকোর ৫ কর্মী এসে সংযোগ পুনস্থাপন করেন। এরআগে শুক্রবার রাত পৌনে ৩টার দিকে এই কার্যালয়ের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়।

এটা কোন ধরনের আন্দোলন?

তারা (২০ দল) আগুন দিয়ে পুড়িয়ে পুড়িয়ে মানুষ হত্যা করছে। বাসে মানুষ যাতায়াত করে সাধারণ মানুষ, খেটে খাওয়া মানুষ। ২ বছরের ছোট্ট শিশু সেও রেহাই পায় না। এটা কোন ধরনের আন্দোলন?’ ২০ দল আন্দোলনের নামে দরিদ্র মানুষের পেটে লাথি মারছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘দরিদ্র খেটে খাওয়া মানুষ, নিম্নবিত্ত, দিনমজুর লোকজনের জীবনযাত্রা আজ স্থবির হওয়ার পথে। তাদের পেটে লাথি মারছে বিএনপি-জামায়াত। কেন তারা এটা করছে? এই গরীব মানুষরা কি মানুষ না?’ ‘বিএনপি কাদের স্বার্থ রক্ষার জন্য সাধারণ মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করছে?’ এমন প্রশ্ন রেখে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সাধারণ মানুষ, খেটে খাওয়া মানুষ তাদের জন্যই তো আমাদের রাজনীতি। তাদেরকেই যদি পুড়িয়ে মারা হয় তবে কার জন্য রাজনীতি? কিসের রাজনীতি?’

সিরাজগঞ্জে পেট্রোলবোমায় যাত্রী নিহত

সিরাজগঞ্জে সিএনজি চালিত অটোরিকশায় পেট্রোলবোমা হামলায় এক যাত্রী নিহত হয়েছে। এসময় আহত হয়েছে আরো ৫ জন। এর মধ্যে চালকের অবস্থা আশঙ্কাজনক। শনিবার রাত ৯টার দিকে সিরাজগঞ্জ সদরের রামগাঁতীতে সিরাজগঞ্জ-ঢাকা মহাসড়কের এ ঘটনা ঘটে। নিহতের নাম গনেশ দাস (৪৫)। তিনি পৌর এলাকার বানিয়াপট্টি মহল্লার কুঞ্জু লালের ছেলে। আহতেরা হলেন- সিরাজগঞ্জ পৌর এলাকার মিরপুর মহল্লার আখতার হোসেনের ছেলে আলহাজ (৩৫), একই এলাকার সিরাজী সড়কের শম্ভুনাথের ছেলে সুবির শম্ভু (৪৮), বারাকান্দি গ্রামের হেমায়েত হোসেনের ছেলে সায়েম (৪০) ও খোকশাবাড়ী ইউনিয়নের আবুল হোসেনের ছেলে আবু সাঈদ (৪৫)। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, সিরাজগঞ্জ সদরের সয়দাবাদ থেকে যাত্রীবাহী একটি সিএনজি অটোরিকশা সিরাজগঞ্জ শহরে আসছিল। এটা রামগাঁতী এলাকায় পৌঁছলে অবরোধকারীরা পেট্রোলবোমা নিক্ষেপ করে। এ সময় সিএনজিতে থাকা চালকসহ ৫ যাত্রী অগ্নিদগ্ধ হয়। স্থানীয় তাদের উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করার পর গনেশ দাস মারা যায়।
অন্যের ব্যাগের ভেতর যা লুকোন, তার সম্পর্কে আগ্রহ প্রকাশ করে নিজের বিপদ ডেকে আনবেন না। কানের কাছে টিয়ে পাখির ছানা ডেকে উঠলে, ঘাড় ফেরাবেন না। চমৎকার এক চা-সন্ধ্যা অপেক্ষা করে আছে প্রিয়জনের সঙ্গে।
গত ২০ জানুয়ারি রাতে ঢাকার অদূরে দক্ষিণ কেরানিগঞ্জের রাজেন্দ্রপুরে একটি বাসে পেট্রল বোমা হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। এতে অগ্নিদগ্ধ হয় ঘুমন্ত বাসচালক ও হেলপার। ওইদিন রাতে অবরোধ সমর্থনকারীরা কীভাবে বাসে আগুন ধরিয়ে দেয় তার লৌহমর্ষক বর্ণনা উঠে এসেছে গ্রেপ্তার হওয়া তিন বোমারুর স্বীকারোক্তিতে। ঘটনার মূল ‘পরিকল্পনাকারী’ কে ছিলেন সে তথ্যও জানা গেছে। হামলার ঘটনার সঙ্গে জড়িত শওকত, সজল ও খায়রুলকে গত ২৯ জানুয়ারি দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের রাজেন্দ্রপুর বাজার সংলগ্ন নোয়াদ্দা গ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে বোমারু শওকত ইসলাম বলেছেন, ‘আমি ছিলাম এক পাশে, আর ওরা (সজল ও খায়রুল) ছিল আরেক পাশে। ওরা গাড়ির গ্লাস ফাঁক কইরা দুই বোতল পেট্রল ঢাইলা দেয়। আর আমি আগুন লাগাইয়া দেই।’
সরকার যতভাবেই চাপ প্রয়োগ করুক না কেন, কার্যালয় থেকে নড়বেন না বেগম খালেদা জিয়া। গ্যাস ও পানির লাইন কেটে দেয়া হলেও তাকে এক চুল নড়ানো যাবে না। তার ঘনিষ্ঠজনদের কাছ থেকে এমন তথ্যই পাওয়া গেছে। তারা দাবি করেছেন, সরকার যতই চাপ প্রয়োগ করুক না কেন, বেগম খালেদা জিয়া কার্যালয় ছাড়বেন না। সব ধরনের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেও তাকে কার্যালয় ছাড়তে সরকার বাধ্য করতে পারবে না। এ কথা তিনি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন।
আসন্ন এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা নির্বিঘ্নে ও নিরাপদে অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী পরীক্ষাকেন্দ্রে ও সড়ক-মহাসড়কে নিরাপত্তা দেবে। পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) এ কে এম শহীদুল হকের সভাপতিত্বে শনিবার দুপুরে পুলিশ সদরদপ্তরে অনুষ্ঠিত এক সমন্বয় সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। সভায় হরতাল ও অবরোধে আগামী ২ ফ্রেরুয়ারি থেকে শুরু হওয়া এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা চলাকালে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধান্ত হয়। পরীক্ষা কেন্দ্রের নিরাপত্তায় স্থানীয় পুলিশের গৃহীত ব্যবস্থার অতিরিক্ত ব্যবস্থা হিসেবে সড়ক-মহাসড়কে মেট্রোপলিটন পুলিশ, জেলা পুলিশ, হাইওয়ে পুলিশ, এপিবিএন ও র‌্যাবের পাশাপাশি বিজিবি সদস্যরা মোতায়েন থাকবে।
রংপুর নগরীর জুম্মাপাড়া এলাকার রিকশা চালক আব্দুল হাই বলেন, ‘সরকার কন আর বিরুদি দলে কন, হামার কস্টতো কায়ো বুজবার নায়। এই অবরোদোত টাউনোত দূর-দূরনতের মাইনষে ভয়োতে আইসে না। আর মাইনষে না আসলে কামাই হয় কোত থাকি। আগে সকাল থাকি আইত পর্যন্ত শও তিনেক টাকা কামাই হচিল। আর এ্যালা অবরোদোত একশো টাকা কামাই করতে খবর হওচে বাহে।’ শাপলা চত্বরে কথা হয় ব্যাটারি চালিত অটোচালক আল-আমিনের সঙ্গে। তিনি বাংলামেইলকে জানান, ‘আগোতে ভালো কামাই হচিল ভাই। এ্যালা এই টানা হরতাল অবরোধোত টাউনের বাইরোত ভাড়া মারতে ভয় নাগে। আস্তাত কখন কায় গাড়িত আগুন দেয়, গাড়ি ভাংগি দেয়। এইজন্যে আগে যেটে ১ হাজার উপরোত কামাই হইছে এ্যালা ৫ না হয় ৬’শ টাকার কম কামাই হওচে।’ ‘হামার দ্যাশের সরকার আর বিরুদি দলের ইগল্যা আর ভালই নাগে না’- এমন আক্ষেপ প্রকাশ করে তিনি বলেন, ‘মুই কও কি, খ্যামতাতো কারো জন্যে চিরস্থায়ী নোনায়। এ্যার আগোতো দ্যাশোত অনেক কিছু হইচে। কই, কায়োতো সারাজেবোন খ্যামতাত থাইকপার পারিল না। খামাখা দাঙ্গা হাঙ্গামা না করি জনগণের সার্তে দুই নেত্রী বসি একনা ফায়সালা করলেই হামরা এই জ্বালা যন্ত্রণা থাকি মুক্তি পাই বাহে।’ এসময় আল-আমিন বলেন, ‘গাড়ির জমা দ্যওয়া নাগে ৫শ’ টাকা। আর দিনআইত মিলি যদি কামাই হয় ৬’শ টাকা, তাইলে বাঁচমো ক্যামন করি। সবারেতো জানমালের ময়া আচে।’ সেন্ট্রাল রোড এলাকায় ক্ষুদ্র পান দোকানি আহসান হাবিব বলেন, ‘অবরোদোত কস্টতো হওচে। কিন্তু তোমাকগুল্যাক কয়্যা কি নাব হইবে। আগোত বিক্রি ভালো হচিল, মনও ভালোচিল। এ্যালা অবরোদোত টাউনোত মাইনষে আইসে কম। মোর বিক্রিও কম, মনও ভালো নাই।’
মেজর জেনারেল আজিজ আহমেদ। বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের মহাপরিচালক। চৌকস অফিসার হিসেবে নাম কুড়িয়েছেন বেশ। বিজিবির উন্নয়নে তার অবদানও অনেক। সম্প্রতি ‘গুলি’র নির্দেশ দিয়ে গণমাধ্যমে সমালোচনার ঝড় তুলেছেন এ বিজিবি প্রধান। কার বিরুদ্ধে, কেন গুলি... এইসব নানা প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে বাংলামেইলের পক্ষ থেকে মুখোমুখি হয়েছেন সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট মুনিফ আম্মার। ছবি তুলেছেন স্টাফ ফটো করেসপন্ডেন্ট মেহেদী হাসান রানা।

রোনালদোকে ছাড়াই বড় জয় রিয়ালের

নিষেধাজ্ঞার কারণে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো খেলতে পারেননি এদিন। কিন্তু জয় পেতে কোনো সমস্যা হয়নি রিয়াল মাদ্রিদের। শনিবার স্প্যানিশ লা লিগার খেলায় সান্টিয়াগো বার্নাব্যুতে করিম বেনজেমার জোড়া গোলের সাথে সার্জিও রামোস ও হামেস রদ্রিগেজের লক্ষ্যভেদে রিয়াল সোসিয়েদাদকে ৪-১ ব্যবধানে হারিয়েছে লস ব্লাঙ্কোসরা। এই জয়ের মাধ্যমে লিগ পয়েন্ট টেবিলে নিজেদের অবস্থান আরো সুসংহত করলো কার্লো আনচেলাত্তি বাহিনী। ২০ ম্যাচে ৫১ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষস্থানে রিয়াল। সমান সংখ্যক ম্যাচে বার্সেলোনার সংগ্রহ ৪৭ পয়েন্ট। টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে তারা। কাতালন জায়ান্টদের সমান সংখ্যক ম্যাচ খেলে তৃতীয় স্থানে অবস্থান করা অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের সংগ্রহ ৪৪ পয়েন্ট।

ভিভ রিচার্ডস ১৮১, শ্রীলংকা ১৬৯

১৯৮৭ বিশ্বকাপ। সময়টা ক্যারিবীয় সাম্রাজ্যোর দখলে। আগের তিনটি বিশ্বকাপেরই ফাইনাল খেলেছে ক্যারিবীয়রা। যদিও ১৯৮৩ বিশ্বকাপের ফাইনালে ভারতকে ১৮৩ রানে বেধে ফেলার পরও হতাশাজনকভাবে হেরে গিয়েছিল ক্লাইভ লয়েডের দল। তবে ওই হারেও কিন্তু ক্যারিবীয়রা হারিয়ে যায়নি। পরের বিশ্বকাপেই নিজেদের ফিরে পেত আপ্রান চেষ্টা এবং স্যার ভিভ রিচার্ডসের নেতৃত্বে সঠিক পথেই এগিয়ে যাচ্ছিল ক্যারিবিয়ান সাম্রাজ্য। শুধু এগিয়ে যাওয়াই নয়, রীতিমত যাদের সামনে পাচ্ছে, তাদের বিধ্বস্ত করে দিয়ে যাচ্ছিল তারা। এমনই এক পরিস্থিতিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সামনে পড়লো তখনকার খর্বশক্তির দল শ্রীলংকা। লংকানদের পেয়ে যেন ছেলেখেলায় মেতে উঠেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সেটা এতটাই যে, রেকর্ডবুকে নাম তুলে ফেলার মত অবস্থা। তুলেছিলও। তখনকার সময় পর্যন্ত ওয়ানডে ক্রিকেটে সর্বোচ্চ স্কোরের রেকর্ড গড়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। লংকানদের চাপা দিয়েছিল ৩৬০ রানের বিশাল পাহাড়ের নীচে।

মালয়েশিয়ার জয়: স্বস্তিতে বাংলাদেশ

দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশ মোকাবেলা করবে শ্রীলংকার। যেখানে জিততে পারলেই এ গ্রুপ রানার্স আপ হিসাবে সেমিতে পা রাখবে ডি ক্রুইফ শিবির। তবে স্বস্তি থাকছে আরেক জায়গাতেও। শ্রীলংকার সঙ্গে ড্র করলেও সেমিতে যাওয়ার সুযোগ থাকছে, সেটা যেকোন ব্যবধানেই হোক। কারণ বাংলাদেশ মালয়েশিয়ার সঙ্গে হেরেছে ০-১ গোলে। সেখানে শ্রীলংকা মালয়েশিয়ার সঙ্গে হেরেছে ২-০ গোলে। এ গ্রুপে দুই ম্যাচে পূর্ণ ছয় পয়েন্ট মালয়েশিয়ার। আর এক ম্যাচে মালয়েশিয়া ও বাংলাদেশের পয়েন্ট শুন্য।

অভিনয় ভালোমতো শিখছি এখন: নাদিয়া

নাচ দিয়ে পরিচিতি পাওয়া নাদিয়া মডেলিং এবং অভিনয়ে সমানভাবেই পরিচিত। অনেক দিন ধরে মডেলিং থেকে দূরে থাকলেও এখন ব্যস্ত রয়েছেন অভিনয় নিয়ে। সম্প্রতি অভিনয়, নাচ আর মডেলিং নিয়ে কথা বলেন তিনি বাংলামেইলের সঙ্গে। আজকের ফেস টু ফেস বিভাগের অতিথি তিনি।

ছেলেদের আকর্ষণ বয়স্ক নারীতে!

সুন্দরী অবিবাহিতা তরুণী যত আকর্ষণীয় হোক না কেন একজন প্রাপ্তবয়স্ক নারীর পূর্ণতার কাছে তা অনেক ক্ষেত্রেই আনাড়ি। বর্তমানে ছেলেদেরকে বয়স্ক নারীর প্রতি বেশি আকৃষ্ট হতে দেখা যাচ্ছে। আপাতদৃষ্টিতে আশ্চর্য লাগলেও বাস্তবে এ ধরনের সম্পর্কের সংখ্যা বেড়ে চলেছে উল্লেখযোগ্য হারে। বয়স্ক নারী শারীরিক ও চারিত্রিক আকর্ষণীয় বৈশিষ্টগুলো সুন্দরভাবে মেলেও ধরতে পারেন। সমাজের প্রচলিত রীতিগত বাধা আর লুকায়িত এই সৌন্দর্যেই ছেলেরা বেশি মুগ্ধ হয়। কথায় বলে, নিষিদ্ধ জিনিসে দুর্নিবার আকর্ষণ। তবে সে আকর্ষণের পেছনে কিছু যৌক্তিক কারণ রয়েছে...
এ পর্যন্ত ১৫ জন প্রত্যক্ষদর্শীর জবানবন্দী নেয়া হয়েছে। তাদের বেশিরভাগ ঘটনার সময় গুলির শব্দ শুনেছেন। রিয়াজ রহমানের গাড়িতে আগুন ধরে যাওয়ার দৃশ্যও তারা দেখেছেন। তবে গাড়িতে পেট্রোল বোমা ছুঁড়ে মারা হয়েছিল নাকি আগুন ধরিয়ে দেয়া হয়েছিল- এ ব্যাপারে সিআইডির আলামত পরীক্ষার রিপোর্ট না পেলে নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে না।

এখনো রহস্য, সন্দেহে নিজ দলের লোকজনই

রাজধানীর প্রাণকেন্দ্র পল্টনের একটি রাস্তার প্রবেশ পথ ইজারা দেয়ার অভিযোগ উঠেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) সম্পত্তি বিভাগের এক সার্ভেয়ারের বিরুদ্ধে। ওই জায়গায় গড়ে তোলা হয়েছে রেস্টুরেন্ট। অদৃশ্য কারণে বারবার স্থগিত করা হয়েছে উচ্ছেদ অভিযান। করপোরেশনের সংশ্লিষ্ট বিভাগকে না জানিয়ে ভুয়া নথিপত্র তৈরি করে আবু শাহাদাৎ মো. সায়েম নামের ওই সার্ভেয়ার ৩০ লাখ টাকার বিনিময়ে জায়গাটি এক ইতালি প্রবাসীকে বন্দোবস্ত দিয়েছেন। সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশই তিনি কাজটি করেছেন বলে দাবি করলেও কর্তৃপক্ষ বলছে, এর সঙ্গে সংস্থার কোনো সম্পর্ক নেই। তবে ইজারাদারের দাবি তার কাগজপত্রে সংস্থার সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তাদের স্বাক্ষর রয়েছে।

পল্টনে রাস্তা বন্ধ করে রেস্টুরেন্ট!

চলমান হরতাল-অবরোধে রাজধানী ঢাকাসহ সারা দেশে একের পর এক যানবাহনে আগুন দেয়া হচ্ছে। পুড়িয়ে মারা হচ্ছে নিরীহ মানুষকে। আগুন দেয়ার সময় ব্যবহার করা হচ্ছে গান পাউডার। আগুন দিয়ে দুর্বৃত্তরা চোখের নিমিষে সটকে পড়ছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কঠোর নিরাপত্তা ও সতর্ক প্রহরাও তাদের রুখতে পারছে না। দেশে বিভিন্ন সময়ে আন্দোলনের নামে গান পাউডার ব্যবহার করে মানুষ পুড়িয়ে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। গত কয়েক বছরে এর ব্যবহারের মাত্রা অনিয়মিত হলেও সাম্প্রতিক সময়ে তা বৃদ্ধি পেয়েছে। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, যানবাহনে আগুন দেয়ার ক্ষেত্রে দুর্বৃত্তরা প্রধানত পেট্রোল ও গান পাউডার ব্যবহার করছে। গান পাউডার ব্যবহার করায় আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে এবং তার ক্ষয়ক্ষতি ও ভয়াবহতা বাড়ছে। পেট্রোল সবার কাছে পরিচিত হলেও গান পাউডার নিয়ে মানুষের মধ্যে কৌতূহল রয়েছে। কারো কারো প্রশ্ন কোথায় ব্যবহার হয় এই গান পাউডার? দুর্বৃত্তদের হাতেই বা কিভাবে পৌঁছে যাচ্ছে এই পাউডার? কিভাবে এতো শক্তিশালী বিস্ফোরকে পরিণত হয় এটি?

প্রাণঘাতী গান পাউডার আসলে কী?

দেশের একমাত্র রাষ্ট্রায়ত্ত মোবাইল অপারেটর টেলিটক থ্রিজি সেবা চালু করার পর এখন গ্রাহক সংখ্যা বাড়ছে। যদিও অন্য অপারেটরদের তুলনায় গ্রাহক সংখ্যা থেকে পিছিয়ে আছে টেলিটক। একমাত্র রাষ্ট্রয়াত্ব অপারেটর টেলিটক প্রথম থ্রিজি সেবা চালু করলেও সাফল্য তুলনামূলকভাবে কম। ২০১৪ সালের নভেম্বর পর্যন্ত ৩৮ লাখ গ্রাহক টেলিটকের (বিটিআরসির তথ্য মতে)। কোন পথে এগুচ্ছে টেলিটক, গ্রাহক বৃদ্ধিতে কি উদ্যোগ? এমন সব প্রশ্নের উত্তর দিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব মো. ফয়জুর রহমান চৌধুরী।

সরকার জনগণের কাছে দায়বদ্ধ, বিটিআরসি নয়