মঙ্গলবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৪ । ৭ আশ্বিন ১৪২১

প্রস্তুত ব্রাহ্মণবাড়িয়া, অপেক্ষা নেত্রীর

বিএনপি চেয়ারপার্সন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী, ২০ দলীয় জোটনেত্রী খালেদা জিয়ার ব্রাহ্মণবাড়িয়া আগমন ও জনসভাকে কেন্দ্র করে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে জেলা বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠন। মঞ্চ তৈরির কাজও সম্পন্ন হয়েছে। পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে নেয়া হয়েছে নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা। পুরো সমাবেশস্থলকে ঘিরে যাতে কোনোরকম নাশকতা হতে না পারে সেইজন্য প্রশাসন প্রস্তুত রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। সমাবেশকে ঘিরে শহরে প্রায় তিন শতাধিক পুলিশ মোতায়েন থাকছে। নেত্রীর আগমনকে সামনে রেখে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরকে বর্ণিল সাজে সাজিয়েছে দলীয় নেতাকর্মীরা। সারা শহর ছেয়ে গেছে বর্ণাঢ্য তোরণ, ব্যানার আর রঙবেরঙের ফেস্টুনে।

সিলেটে ছাত্রদল নেতাদের গণপদত্যাগ বিকালে

নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কমিটি পুনর্গঠিত না হলে বিকালে নগরীর মালঞ্চ কমিউনিটি সেন্টারে জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা গণপদত্যাগ করবেন। বাংলামেইলকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন জেলা ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাফেক মাহবুব। তিনি গণপদত্যাগে ছাত্রদলের সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের যথাসময়ে উপস্থিত থাকার অনুরোধ জানিয়েছেন। গত ১৮ সেপ্টেম্বর সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের কমিটি ঘোষণা হয়। ওই কমিটিতে ত্যাগী নেতাদের জায়গা হয়নি বলে অভিযোগ করা হয়।

সাক্ষ্য দিতে ভারত যাচ্ছেন ফেলানীর বাবা

কুড়িগ্রাম সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে নিহত আলোচিত ফেলানী হত্যার বিচার আবার শুরু হয়েছে ভারতের বিশেষ আদালতে। সোমবার থেকে এ বিচার কার্যক্রম শুরু হয়েছে। আর দু’এক দিনের মধ্যে তাতে সাক্ষ্য দিতে যাচ্ছেন ফেলানীর বাবা ও মামা। বিষয়টি নিশ্চিত করে কুড়িগ্রাম ৪৫ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোফাজ্জল হোসেন আকন্দ বাংলামেইলকে বলেন, ‘ভারতের কোচবিহারের বিএসএফের সদর দপ্তরে স্থাপিত বিশেষ আদালতের স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্স কোর্টে এ বিচার শুরু হয়েছে। আগামী দু’একদিনের মধ্যেই সাক্ষ্য দিতে এবং আদালতকে সহযোগিতা করতে ভারত যাবেন ফেলানীর বাবা নুর ইসলাম, মামা আব্দুল হানিফ, আমি নিজে ও কুড়িগ্রামের পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট এসএম আব্রাহাম লিংকন।’
মানুষের কাছে আপনি অতি বিশ্বস্ত। আজ সে বিশ্বস্ততাটা কিবাবে খোয়াতে হতে পারে বলছি। মনে করুন, কেউ আপনাকে একটা বরফ রাখতে দেবে। আপনি সেটা যত্নে একটা গ্লাসে বাক্সে রেখে দেবেন। একটু পর সে এসে বরফ ফেরৎ চাইলে, বাক্স খুলে আপনি বোকা হয়ে যাবেন। ঘটনাটা ঘটতে পারে অনেকটা এমন। বুদ্ধির মারপ্যাঁচে জিততে হলে চোখকান খোলা রাখুন। কর্মস্থলের পরিবেশ অনুকূরে থাকবে। অর্থভাগ্য মন্দভাগ্য।
এদের হাতের মুঠোয় আলাদিনের দৈত্য, জিন-পরী, মঙ্গল-অমঙ্গলের অশরীরি আত্মা! এরা নক্ষত্রের অবস্থান দেখে বলে দিতে পারেন ভাগ্য ও ভবিষ্যৎ, বলে দিতে পারেন কারো নিয়তির উপর গ্রহের প্রভাব। আবার শনির আছর ছাড়াইতে হলে তাদেরই শরণাপন্ন হতে হবে। তারা জানেন বিভিন্ন পাথরের গুণাগুণ। বিশল্যকরণীর মতো ক্ষমতাসম্পন্ন অষ্টধাতুর রহস্য! তাদের পরিচয় কেউ গুরু, জ্যোতিষ সম্রাট, কেউবা মুশকিলে আসান। নামের আগে পিছে নানা বিশেষণ। তবে তাদের আসল উদ্দেশ্য মানুষ ঠকানো। এটিই তাদের পেশা। এসব ভণ্ড প্রতারকরা রাতারাতি গড়ে তুলেছেন সম্পদের পাহাড়। আলিশান বাড়ি, অত্যাধুনিক গাড়ি। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে একাধিকবার গ্রেপ্তার পর কিছুদিন জেল খেটে আবারও তারা জায়গা পরিবর্তন করে এই প্রতারণার ব্যবসা করে। তেমনি একজন প্রতারক জ্যোতিষরাজ লিটন দেওয়ান চিশতী ওরফে লিটন দেওয়ান ওরফে পাগলা লিটন।
২০১২ সালের ডিগ্রি পাস ও সার্টিফিকেট কোর্স পরীক্ষার ফল প্রকাশ করেছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়। পরীক্ষায় পাশের হার ৭৮ দশমিক ০৬ শতাংশ। সোমবার রাত ৮টার দিকে এ ফল প্রকাশ করা হয়। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়য়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। ফলাফল বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট www.nu.edu.bd ও www.nubd.info থেকে জানা যাবে। এছাড়া যেকোনো মোবাইলে এসএমএস পাঠিয়েও পরীক্ষার্থীরা তাদের ফলা জানতে পারবেন।
মঙ্গলবার হিন্দু সম্প্রদায়ের শুভ মহালয়া। এদিন কৈলাশ থেকে মা দুর্গা পিতৃগৃহে আগমন করবেন। দেশের বিভিন্ন মন্দিরে দেবী দুর্গার আগমনী বার্তায় হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের ঘরে ঘরে উৎসবের আমেজ শুরু হবে। দুর্গাপূজার বাজনা বেজে উঠবে সারা দেশে। দশভূজা শক্তিরূপী মা দুর্গা প্রতিটি মণ্ডপে অবস্থান করবেন। সে লক্ষ্যে প্রতিটি মণ্ডপে মঙ্গলবার ভোর থেকে চণ্ডীপাঠ আর অমাবশ্যায় হৃদয়ে নাচন তুলে ঢাকে পড়বে কাঠি।
নির্বাচন কমিশন অনুমতি দিলে আরো সুবিধা সংযুক্ত করতে পারবো। নিবার্চন কমিশনের চাহিদা অনুযায়ী আরো প্রোগ্রাম আমরা দিতে পারবো এই মেশিনে। এটা তৈরি করতে কোনো জিনিসই দেশের বাইরে থেকে আনতে হয় না, সব দেশেই পাওয়া যায়। এই মেশিন তৈরিতে বেশি টাকার প্রয়োজন নেই। মাত্র ৫ হাজার টাকা হলেই এটা তৈরি করা যায়। এই ইভিএমে ভোটারদের আঙ্গুলের ছাপ, চেহারা সনাক্ত, ডিজিটাল আইডি কার্ড ব্যবহারসহ আরো কিছু সুবিধা আমরা ভবিষ্যতে সংযুক্ত করতে পারবো।
রাজধানীর শ্যামপুরে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা রিয়াজুল ইসলাম লালু হত্যাকাণ্ডের নেপথ্যে তৃতীয় পক্ষের হাত থাকার কথা বলছে এলাকবাসী। মামলার প্রধান আসামি নুরুন্নবী ওরফে হাত কাটা নবীর পরিবারেরও দাবি এমন। এমনকি বাদীপক্ষও এই হত্যাকাণ্ডের পেছনে নবীসহ মামলার তালিকাভুক্ত আসামি ছাড়াও তৃতীয় আরেকটি পক্ষের সম্পৃক্ততার ইঙ্গিত দিয়েছে।

রায়না ‘সাইক্লোন’ দেখলো ডলফিন্স

এদিন টস জিতে ফিল্ডিং বেছে নেয় ডলফিন্স অধিনায়ক ফন উইক। এটা তার চরম ভুল সিদ্ধান্ত ছিল সেটা বুঝিয়ে দিয়েছেন রায়না-ম্যাককুলামরা। রায়নার ব্যাটিং দেখে মনে হচ্ছিল পৃথিবীতে সবচেয়ে সহজ কাজ বুঝি ছক্কা মারা। একটু সতর্ক হয়ে খেললে হয়তো সেঞ্চুরিও পেয়ে যেতে পারতেন। তারপরও ৪৩ বলে রায়নার ৯০ রানের ‘সাইক্লোন’ ইনিংসটির মহিমা একটুও কমছে না।

ময়েসের চেয়েও ‘বাজে’ ফন গাল

চলতি মৌসুমে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের প্রথম পাঁচ ম্যাচ শেষে পরিসংখ্যানের বিচারে ডেভিড ময়েসের থেকেও বাজে অবস্থা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ডাচ কোচ লুইস ফন গালের। ফলে সাম্প্রতিক সময়ে সমালোচনার বাণে বিদ্ধ হতে হচ্ছে সাবেক বার্সেলোনা ও বায়ার্ন মিউনিখ এই ট্যাকটেশিয়ানকে।

২০২২ বিশ্বকাপ কাতারে হবে না!

শেষ পর্যন্ত নাকি ২০২২ ফুটবল বিশ্বকাপ মধ্যপ্রাচ্যের দেশ কাতারে হবে না! জার্মান ফুটবল ফেডারেশন থেকে আন্তর্জাতিক ফুটবল ফেডারেশনের (ফিফা) নির্বাহী কমিটির সদস্যপদ পাওয়া থিও জানজিগারের মত এমনটাই। সোমবার স্পোর্টস বিল্ডকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে থিও দাবি করেন, ‘আমার মনে হয় শেষ পর্যন্ত আর যাই হোক কাতারে ২০২২ বিশ্বকাপ হবে না।’

আইটেম গানের নামে অশ্লীলতা

একটা সময় ছিল যখন বাংলা চলচ্চিত্রে অশ্লীলতার যুগ ছিল। আর এখন চলছে 'আইটেম গান'র যুগ। চলচ্চিত্র নির্মাণ করলে তাতে আইটেম গান থাকতেই হবে। তা না হলে নাকি ব্যবসা হয় না। এমনটাই বলে থাকেন প্রযোজক, পরিবেশকরা। তাই নির্মাতারাও ব্যবসার কথা ভেবে ধুমধাড়াক্কা আইটেম গানের বন্যা বইয়ে দিচ্ছেন চলচ্চিত্রে। কিন্তু এসব আইটেম গানের নামে অনেকেই নিরবে চলচ্চিত্রে অশ্লীলতার চর্চা শুরু করেছেন। তেমনি একটি আইটেম গানের দৃশ্য ধারণের সময় হাজির হয়েছিলো বাংলামেইল বিনোদন টিম।
এদের হাতের মুঠোয় আলাদিনের দৈত্য, জিন-পরী, মঙ্গল-অমঙ্গলের অশরীরি আত্মা! এরা নক্ষত্রের অবস্থান দেখে বলে দিতে পারেন ভাগ্য ও ভবিষ্যৎ, বলে দিতে পারেন কারো নিয়তির উপর গ্রহের প্রভাব। আবার শনির আছর ছাড়াইতে হলে তাদেরই শরণাপন্ন হতে হবে। তারা জানেন বিভিন্ন পাথরের গুণাগুণ। বিশল্যকরণীর মতো ক্ষমতাসম্পন্ন অষ্টধাতুর রহস্য! তাদের পরিচয় কেউ গুরু, জ্যোতিষ সম্রাট, কেউবা মুশকিলে আসান। নামের আগে পিছে নানা বিশেষণ। তবে তাদের আসল উদ্দেশ্য মানুষ ঠকানো। এটিই তাদের পেশা। এসব ভণ্ড প্রতারকরা রাতারাতি গড়ে তুলেছেন সম্পদের পাহাড়। আলিশান বাড়ি, অত্যাধুনিক গাড়ি। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে একাধিকবার গ্রেপ্তার পর কিছুদিন জেল খেটে আবারও তারা জায়গা পরিবর্তন করে এই প্রতারণার ব্যবসা করে। তেমনি একজন প্রতারক জ্যোতিষরাজ লিটন দেওয়ান চিশতী ওরফে লিটন দেওয়ান ওরফে পাগলা লিটন।

মানুষ ঠকিয়ে কোটিপতি

কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কারাগারে জেএমবির কারাবন্দী নেতা সাইদুর রহমান ও আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের প্রধান মুফতি জসিম উদ্দিন রাহমানীর মধ্যে গোপন সমঝোতা বৈঠক হয়েছে। সেখানে তারা এক সঙ্গে কাজ করার পরিকল্পনা করে তা বাস্তবায়নের জন্য নেতাকর্মীদের নির্দেশ দিয়েছে। এ বার্তা দুই শতাধিক কর্মীর কাছে পৌঁছেও দেয়া হয়েছে। সংগঠনকে দ্রুত কার্যকর করে কথিত খিলাফত বাস্তবায়নের জন্য আর্ন্তজাতিক জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করার নির্দেশ দিয়েছেন নেতারা। এ নির্দেশনা অনুযায়ীই একটি অংশের নেতা আবদুল্লাহ আল তাসনীম ওরফে নাহিদ সহযোগীদের নিয়ে তৎপরতা শুরু করে। পরে তারা জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটের (আইএস) সঙ্গে যোগাযোগ করে। সংগঠনকে কার্যকর করতে তারা শিক্ষা ব্যবসাও শুরু করতে চাইছিল।

কারাগারে বৈঠক, বিদ্বেষীদের ‘কতলে’ একজোট!

ছাত্রনেতারা জানান, যোগ্যতা যাই থাকুক, অতীতেও দায়িত্বপ্রাপ্তদের পছন্দের অনুসারীরাই পেয়েছেন বড় বড় পদ। আবার যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও সম্মানজনক পদ পাননি অনেকেই। ছাত্রদল কর্মীরা জানান, সাংগঠনিক ও সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক পদে যে তিনজনের নাম প্রাথমিকভাবে চূড়ান্ত করা হয়েছে তারা তিনজনই বিবাহিত।

বিভক্ত ছাত্রদল, সংঘর্ষের আশঙ্কা

কয়দিন লাগে রেলওয়ের কর্মচারী নিয়োগ প্রক্রিয়া শেষ করতে? এ নিয়ে সাধারণ মানুষের মনে নানা প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে। অনেকে বলেছেন, নিয়োগ প্রক্রিয়া শেষ করতে ১ মাস, ৬ মাস, ১ বছর সময় লাগতে পারে। সেখানে ৮ বছরেও রেলওয়ের ৬৮ ক্যাটাগরিতে ৭ হাজার ১৪০টি শূন্য পদে কর্মচারী নিয়োগ প্রক্রিয়া শেষ করতে পারবে না। এটা কি করে হয়! এক শ্রেণীর কর্মকর্তাদের অনিয়ম আর দুর্নীতির কারণে ২০০৬ সাল থেকে নিয়োগ প্রক্রিয়া ঝুলে রয়েছে। অপর একটি মহল বলছেন, নিয়োগ প্রক্রিয়া যতো দেরি হবে ততোই তদবির বাড়বে। আর এক শ্রেণীর অসাধু কর্মকর্তাদের পকেট ভারী হবে। এসব কারণে দিনের পর মাস এবং বছরের পর বছর পার হচ্ছে কিন্তু নিয়োগ প্রক্রিয়া শেষ হচ্ছে না। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে ২০১০ সালের ১১ আগস্ট ও ২০১২ সালের ১২ ফেব্রুয়ারির মধ্যে নিয়োগ প্রক্রিয়া শেষ করার সময় সীমা বেঁধে দেয়া হয়। কিন্তু রেল কর্তৃপক্ষ বিগত দিনে নিয়োগ প্রক্রিয়া শেষ করতে পারেনি। এ নিয়ে সাধারণের মধ্যে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে নিয়োগ প্রক্রিয়া শেষ করতে আর কতোদিন সময় লাগবে?

হাত দিলেই মামলা...