শনিবার, ০১ আগস্ট ২০১৫ ।

মুছে গেল ৬৮ বছরের গ্লানি

৬৮ বছরের বঞ্চনার অবসান। ৩১ জুলাই দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিটে ছিটমহল বিনিময় চুক্তির আনুষ্ঠানিক বাস্তবায়ন শুরু হলো। এই বিশেষ দিনটিকে উদযাপনে জ্বললো ৬৮টি মোমবাতি। উল্লাস উচ্ছ্বাসে কেউ হাসল কেউ কাঁদল। এতোদিন মনেপ্রাণে বাংলাদেশে যুক্ত থাকলেও রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি না পাওয়া মানুষগুলো উদযাপন করলো দিনটি। শুক্রবার দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিটে কুড়িগ্রামের দাশিয়ার ছড়া ছিটমহলে উৎসবমুখর পরিবেশে এ চুক্তি বাস্তবায়নের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হয়। মোমবাতি জ্বালিয়ে উৎসবের উদ্বোধন করেন কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক সাংসদ মো. জাফর আলী। এসময় কয়েকশ মানুষ ৬৮টি পটকা ফুটিয়ে উল্লাস করেন। মশাল মিছিল করে পুরো ছিটমহল আলোকিত করে তোলেন তারা।

ছাত্রলীগের ৬৭ নেতাকর্মীর একযোগে পদত্যাগ

মানিকগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাদিকুল ইসলাম সোহা ও সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক রুবেলের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজির অভিযোগ তুলে পদত্যাগ করলেন ৬৭ জন নেতাকর্মী। সভাপতি ও সম্পাদককে ছাত্রলীগের ইতিহাস বিনষ্টকারী হিসেবে আখ্যা দিয়ে তারা পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নেন। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বরাবর জেলা ছাত্রলীগের ৬৭ জনের পদত্যাগের কপি শুক্রবার রাতে মানিকগঞ্জ প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের হাতে আসে। ওই পদত্যাগপত্রে সহ-সভাপতি আব্দুলা আল মামুন, জামিল খান, শরীফুল ইসলাম, আসাদুজ্জামান রাসেল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম, মেহফুজ হাসান, সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুল হাসান ফিরোজ, হাসানুল জনী, সহ সম্পাদক তাপস সাহা, সাজেদুল ইসলাম, সাব্বির আহমেদ, দপ্তর সম্পাদক শাহিন মির্জা, অর্থ সম্পাদক জুবায়ের মাহমুদ, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক সৌরভ ঘোষসহ ৬৭ জনের স্বাক্ষর রয়েছে।

কোমেন কেড়ে নিল ৮ প্রাণ

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় কোমেনের আঘাতে সারাদেশে প্রাণ হারিয়েছে অন্তত ৮ জন। উপকূলীয় বিভিন্ন জেলায় ঝড়ের সময় গাছচাপাসহ আঘাতজনিত কারণে এসব মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। স্থানীয় প্রতিনিধিদের কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, ঝড়ের সময় গাছ পালা ভেঙে যায়। অনেক বাড়িঘরও ধসে পড়ে। এসব কারণে প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। ঘূর্ণিঝড়ের কবল থেকে রক্ষার জন্য উপকূলীয় জেলাগুলোর নিম্নাঞ্চল থেকে প্রায় বিশ লাখ মানুষকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয়া হয়। তবে এর মধ্যে ঝড়ের কারণে আটজনের মৃত্যু হয়েছে। কক্সবাজার, চট্টগ্রাম, ভোলা, সেন্টমার্টিন ও পটুয়াখালীতে এসব মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।
ঘূর্ণিঝড় ‘কোমেন’। ঢাকা, চট্টগ্রাম, বরিশাল, কক্সবাজার উপকূলে এখন পর্যন্ত ৮ জনের প্রাণহানি এবং কিছু গাছপালা ও বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এসব এলাকায় বাতাসের সর্বোচ্চ গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ৬২ কিলোমিটার। তবে এখন আশঙ্কামুক্ত বলা যায়। তবে মিয়ানমানের এখন পর্যন্ত ৩৩ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। কোমেন একটি সামুদ্রিক ঘূর্ণিঝড়। কিন্তু কীভাবে এ নাম এলো। উত্তর ভারত মহাসাগরের সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড়গুলোর নামকরণ করে সাধারণত ভারত, বাংলাদেশসহ সার্কভুক্ত দেশগুলো এবং ওমান ও থাইল্যান্ড। গত ১০ বছর থেকে এ নিয়মই চলে আসছে। মূলত বিশ্ব আবহাওয়া সংস্থার (ডব্লিউইউএমও) আওতায় এশিয়া-প্রশাস্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের আবহাওয়াবিদদের সংস্থা- এসক্যাপ বিশ্বের ঘূর্ণিঝড়গুলোর নামকরণ করে থাকে। নামকরণ প্যানেলে রয়েছে- বাংলাদেশ, মিয়ানমার, ভারত, পাকিস্তান, মালদ্বীপ, শ্রীলংকাসহ সার্কভুক্ত দেশগুলো এবং থাইল্যান্ড ও ওমানের প্রতিনিধি।
আজ শুক্রবার ৩১ জুলাই মধ্যরাতে বাংলাদেশ ও ভারতের ছিটমহল ইতিহাসের যবনিকা ঘটছে। এ দিনটির জন্য ছিটবাসীদের অপেক্ষা করতে হয়েছে ৬৮ বছর। আজ এ দিনটিকে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত স্মরণে রাখবে বাংলাদেশ ও ভারতের অভ্যন্তরের ১৬২টি ছিটমহলের ৫৬ হাজারেরও বেশি অধিবাসী। এক দেশের নাগরিক হয়ে আরেক দেশে অবস্থান করার নাগরিকত্বহীনতার অবসান হচ্ছে আজ। এ খুশির আনন্দে ভাসছে ছিটমহলের বাসিন্দারা। মাস নয়, সপ্তাহ নয়, শুধুমাত্র আর কয়েক ঘণ্টার অপেক্ষা। ছিটমহলের অবসানের দিনটি ঘিরে কয়েকদিন ধরেই চলছে ব্যাপক আয়োজনের প্রস্তুতি। সারাদিন বিভিন্ন খেলাধুলা শেষে সন্ধ্যার পরই আলোতে ডুববে গোটা ছিটমহল। বাড়ি বাড়ি জ্বলবে মোমবাতি আর প্রদীপ। আতশবাজী ফুটিয়ে আর আলো জ্বালিয়ে আনন্দ প্রকাশ করবে ছিটবাসীরা। ২০১১ সালের যৌথ হেড কাউন্টিং বা জনগণনা অনুযায়ী বাংলাদেশের অভ্যন্তরে ভারতের ১১১টি ছিটমহলে মোট জনসংখ্যা ছিল ৩৭ হাজার ৩৬৪ জন। আর ভারতের অভ্যন্তরে বাংলাদেশের ৫১টি ছিটমহলে ছিল ১৪ হাজার ২২৫ জন। চলতি মাসে যৌথ জনগণনায় বাংলাদেশের অভ্যন্তরে ভারতীয় ছিটমহলে জনসংখ্যা ৩ হাজার ৭১৮ জন বেড়ে হয়েছে ৪১ হাজার ৪৪৯ জন। আর ভারতের অভ্যন্তরের বাংলাদেশি ছিটহলের জনসংখ্যা ৬৩১ জন বেড়ে হয়েছে ১৪ হাজার ৮৫৬ জন। উভয় দেশের মধ্যকার ১৬২টি ছিটমহলের বর্তমান জনসংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫৬ হাজার ৩০৫ জন।
ঘরের কোণ থেকে বেরিয়ে আসুন, মনের মাঝে সঞ্চিত শক্তি কাজে লাগানোর সময় এসেছে। গ্রহ আজ মনের মাঝে সুখ বইয়ে দেবে। দেশের বাইরে থেকে আপনার জন্য কোনো সুখবর আসতে পারে। ব্যবসায়িদের জন্য লেনদেন কিছুটা জটিলতাপূর্ণ। প্রেমযোগ শুভ। দূরযাত্রায় দূর্ভোগ। বৃষ (এপ্রিল ২০- মে ২০): লোকমুখে নিজের প্রশংসা শুনতে কার না ভালো লাগে? তবে ভালোর মাত্রা আজ বেশি করে ধরা দেবে। আপনার কাছে যারা গুরুত্বপূর্ণ তাদের ভেতর থেকে কেউ দেখা করার জন্য উদগ্রীব থাকবে। দিনের বেশির ভাগ সময় আজ অবাক হওয়ার ভেতর দিয়ে পার হবে। হাতের অবস্থা শূণ্য হয়ে আছে বেশ কিছুদিন ধরে। আজ পাওনা অর্থ ফেরত পাওয়ার সম্ভাবনা আছে। মিথুন (মে ২১- জুন ২০): হৃদয় ছিল হৃদয়ের সঙ্গী, শত্রুতা ছিল উপরের ভঙ্গি। অনেক দিন পর কাছের মানুষকে আবারও কাছে পাওয়ার সুযোগ আসছে। আজ শত অভিমান লুটিয়ে পড়বে প্রয়োজনের কাছে। অর্থের ঝনঝনানি শুনতে পাবেন মৃদুস্বরে। বেকারদের কারো চাকরির সু সংবাদ আসতে পারে। দূর বা কাছের যেকোনো যাত্রায় আজ শুভ।
শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে উচ্চ রক্তচাপজনিত কারণে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন রাজশাহীর গোদাগাড়ী পৌর এলাকার মাদারপুর গ্রামের গৃহবধূ পারুল বেগম। পরিবারের লোকজন তাকে দ্রুত গোদাগাড়ী সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান। সেখানকার দায়িত্বরত চিকিৎসক ডা. শর্মিলা শর্মা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘোষণার কিছুক্ষণ পরেই জেগে উঠেন পারুল বেগম। তবে জেগে উঠার কিছুক্ষণ পরেই আবার মারা যান তিনি। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। পারুল বেগমের স্বজনরা জানান, চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করার পরে পারুল বেগমকে বাড়িতে নেয় তারা। পারুল মারা গেছে এমন সংবাদ দেয়া হয় আত্মিয়দের মাঝে। চারদিকে পড়ে যায় কান্নার রোল। চলছিলো দফনের প্রস্তুতিও। ঠিক সেই সময় সবাইকে অবাক করে দিয়ে নড়েচড়ে বসেন পারুল বেগম। একপর্যায়ে কথা বলেন পারুল। স্বামী আব্দুল বারির হাত ধরে ক্ষমাও চান তিনি।
বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট দীর্ঘদন ধরেই তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবি জানিয়ে আসছিল। সম্প্রতি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া এই দাবি থেকে সরে আসলেও এ নিয়ে ক্ষমতাসীন আওয়ালীগে কোনো মাথা ব্যথা নেই। বরং খালেদা জিয়ার মধ্যবর্তী নির্বাচনের দাবিকেও পাত্তা দিচ্ছেন না ক্ষমতাসীন দলের নেতারা। তারা বলছেন, তত্ত্বাবধায়ক ইস্যুতে বিএনপি সুর পাল্টোলেও তাদের অবস্থান পরিষ্কার করেনি। বিএনপি নেত্রী আসলে কী বলতে চাইছেন তা স্পষ্ট নয়। তাদেরকে আগে স্পষ্ট করে বলতে হবে তারা কী চায়। শুধু তাই নয় খালেদা জিয়াকে সংবিধান মেনেই ২০১৯ সালের নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি নেয়ার পরামর্শও দিয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতারা।
বয়স মাত্র ২০ বছর । আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয়েছে এখনও তিন মাস পার হয়নি। অথচ অভিষেকের পর থেকে প্রতিদিনই যেন নতুন নতুন বিস্ময় নিয়ে হাজির হচ্ছেন বাংলাদেশের বাঁ-হাতি পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। নতুন বিস্ময় শুধু হাজিরই করছেন না, সেই বিস্ময় দিয়ে নজর কেড়েছেন পুরো ক্রিকেট বিশ্বের। এমনকি, ডেল স্টেইনের মত বর্তমান সময়ের সবচেয়ে ভয়ঙ্কর পেসারেরও সমীহ, শ্রদ্ধা আদায় করে নিয়েছেন তিনি। শুধু তাই নয়, মুস্তাফিজকে দেখেই না কি শিখছেন টেস্টে সদ্য ৪০০ উইকেট পাওয়া স্টেইন’গান। চট্টগ্রাম টেস্টেই মুস্তাফিজের কাছ থেকে শিক্ষাটা নিয়েছেন স্টেইন। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের উইকেট খুবই স্লো। পেসারদের জন্য একেবারে মরা উইকেট। কোন বাউন্স ছিল না। অথচ ওই উইকেটেই অভিষেকে ঝড় তুলেছিলেন তরুণ মুস্তাফিজ। এক ওভারে হাশিম আমলাসহ ৩ উইকেট নেওয়াই নয় শুধু, প্রথম দিন শেষে ৪ উইকেট নিয়ে বিস্ময় সৃষ্টি করেছিলেন তিনি।

তিন দিনেই জিতল ইংল্যান্ড

অ্যাশেজের লড়াইটা হচ্ছে বেশ। কখনো ইংল্যান্ড, কখনো বা অস্ট্রেলিয়া। প্রথম ম্যাচে ১৬৯ রানের জয় দিয়ে শুভ সূচনা করে স্বাগতিক ইংল্যান্ড। তবে দ্বিতীয় ম্যাচেই বিধ্বস্ত ইংলিশ শিবির। ৪০৫ রানের বড় জয় পায় অস্ট্রেলিয়া। তৃতীয় ম্যাচে অনুমিতভাবে ফিরেছে আবার ইংল্যান্ড। শুধু তাই নয়, অসিদের নাস্তানাবুদ করে তিন দিনেই এজবাস্টন টেস্ট জিতেছে এলিস্টার কুক শিবির। জয়ের ব্যবধান ৮ উইকেটে। ফলে পাঁচ ম্যাচ সিরিজে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে গেল ইংল্যান্ড। চতুর্থ টেস্ট নটিংহ্যামে। সেখানে কি তাহলে থাকবে অসিদের দাপট?

এখনই উৎসব করবে না শেখ জামাল

ভুটানে কিংস কাপের পর ফেডারেশন কাপও জিতেছিল শেখ জামাল। বৃহস্পতিবার মোহামেডানকে হারিয়ে দুই ম্যাচ হাতে রেখেই চলতি প্রিমিয়ার লিগের শিরোপাও করায়ত্ত করেছে দেশ সেরা ক্লাব শেখ জামাল ধানমন্ডি। উৎসবে মাতোয়ারা হওয়ার কথাই অভিজাত পাড়ার ক্লাবটির। তবে আপাতত উৎসব করবে না শেখ জামাল। দলের ম্যানেজার আনোয়ারুল করিম হেলাল তেমনটিই আভাস দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ‘আপাতত শিরোপা উৎসব আমরা করছি না। তবে আজ (শুক্রবার) দলের সবাইকে বিশ্রাম দেয়া হয়েছে। বিশেষ করে মামুনুল, ইয়াসিন, মুন্না, জামাল ভুইয়া, ল্যান্ডিং ও এমেকাকে দু’দিনের ছুটি দেয়া হয়েছে।’

বৃষ্টিতে পণ্ড রাসেল-ফরাশগঞ্জ ম্যাচ

ভারী বর্ষণের কারণে অনুষ্ঠিত হতে পারেনি শেখ রাসেল-ফরাশগঞ্জ ম্যাচটি। শুক্রবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ম্যাচের চার মিনিটে প্রবল বর্ষণের কারণে ম্যাচটি সাময়িকভাবে স্থগিত হয়। পরে বৃষ্টি কিছুটা কমলে একাধিকবার চেষ্টা করার পর খেলার উপযোগী হয়নি মাঠ। ফলে ম্যাচটি স্থগিত করে বডিলি শিফটের সিদ্ধান্ত নেন ম্যাচ কমিশনার ফাইজুল ইসলাম আরিজ। শনিবার বিকেল সাড়ে চারটায় এই ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে।

নাসির আলী মামুনের সঙ্গে সেই দুপুর...

বাংলাদেশের পোর্ট্রেট ফটোগ্রাফের জনক নাসির আলী মামুন, শুধু বাংলাদেশের নয় পুরো বিশ্বেই পোর্ট্রেট ফটোগ্রাফার হিসেবে খ্যাতি আছে তাঁর। কাজী নজরুল, বঙ্গবন্ধু, এস এম সুলতান, মাদার তেরেসা, ড. ইউনূস থেকে শুরু করে অ্যালেন গিন্সবার্গ, গুন্টার গ্রাস এবং বিজ্ঞানী স্টিফেন হকিংয়ের মতো অসংখ্য বিখ্যাত মানুষের পোর্ট্রেট তুলেছেন তিনি। আন্তর্জাতিকভাবে পরিচিত বাংলাদেশের এই গুণী মানুষটির সাথে দীর্ঘ আলাপচারিতায় অংশ নিয়েছিলেন তরুণ ফটোগ্রাফার আরিফ আহমেদ।

ছুটির দিনে দই ইলিশ 

ছুটির দিনের সকালটা যদি হয় গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টিভেজা তবে সব অলসতা যেন নতুন রূপ পায়। ঘুম শেষে উঠে খাবার প্লেটে স্পেশাল কিছু পেলে দিনের গুরুত্বই বদলে যায়। আপনার প্রিয়জনকে এমন একটি সকাল উপহার দিতে আজই রান্না করতে পারেন মজার স্বাদের দই ইলিশ। খুব সহজ এবং কম সময়ে রান্না করে পেতে পারেন এমন একটি মজার খাবার। আসুন তবে দেখে নেয়া যাক দই ইলিশের সহজ রেসিপি।
আটষট্টি বছর পর ছোট করে হলেও আরেকটি ডায়াস্পোরা দেখবে ভারতবর্ষ। ১৯৪৭ সালের বিচ্ছেদে হাজার হাজার মানুষ পাঞ্জাব ও বাংলা সীমান্ত পার হয়েছিল। অনেকে নিজের পছন্দে, কেউ বাধ্য হয়ে বাপ দাদার ভিটেমাটি ছেড়েছিলেন। এতোদিন পর বাংলার সীমান্তে আবার সেই বিচ্ছেদ ঘটতে যাচ্ছে। অবশ্য নিজ পছন্দেই ভিটে ছাড়ছেন তারা। কিন্তু এতোদিন থেকে যে আত্মার বন্ধন তৈরি হয়েছিল সেটি ছিঁড়তে তাদের কষ্ট হচ্ছে না এটা বলা যাবে না।

৬৮ বছর পর আরেক বিচ্ছেদ

স্ফটিকের মতো স্বচ্ছ জল, তার মাঝে চাঁদের ছায়া। যতদূর চোখ যায় মেঘালয় পাহাড়ের নীলাভ আভা। প্রকৃতির এই সৌন্দর্যময়তার মাঝে মিশে আছে সুনামগঞ্জের হাওরবাসীর চোখের জল। যে হাওর দেখতে দেশ-বিদেশ থেকে ছুটে আসেন হাজারো পর্যটক, সেই হাওরই অভিশাপ হয়ে বয়ে যাচ্ছে এখানকার বাসিন্দাদের। সুনামগঞ্জ সদরের লঞ্চঘাট থেকে নৌপথে প্রায় এক ঘণ্টার পথ ভাদেরটেক গ্রাম। করচার হাওরের অন্তর্ভূক্ত গ্রামটি। বর্ষণমুখর সকালে গ্রামে নৌকা ভিড়তেই চোখে পড়লো জিয়াউর রহমানের সংগ্রামের চিত্র। ঘরের যা কিছু আছে তাই নিয়েই উঠনোর ভাঙন ঠেকাতে ব্যস্ত তিনি। সঙ্গী তার চার সন্তান। তার পাশেই দাঁড়িয়ে থাকা ষাটোর্ধ্ব আব্দুল লতিফ হাওরের জলে যেন খুঁজছেন গত বছর তলিয়ে যাওয়া জমি।

জল আসে, স্বপ্ন ভাসে

র‌্যাব আর সিআইডির গোলকধাঁধায় ঘুরপাক খাচ্ছে যুবলীগ নেতা রিয়াজুল হক খান মিল্কী হত্যা মামলা। এক বছরেরও বেশি সময় আগে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগকে (সিআইডি) এ মামলার অধিকতর তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হলেও তদন্ত প্রতিবেদন দিতে পারেনি তারা। আদালত বারবার সময়সীমা বেঁধে দিলেও ব্যর্থ হয়েছে সিআইডি। তদন্ত সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র বাংলামেইলকে জানিয়েছে, গুরত্বপূর্ণ নথি না পাওয়ার কারণে এই মামলার তেমন কোনো অগ্রগতিই করতে পারেনি সিআইডি। আগের তদন্তকারী সংস্থা র‌্যাব মামলার গুরুত্বপূর্ণ নথি হস্তান্তর না করার কারণে তদন্ত সংশ্লিষ্টরা জটিলতায় পড়েছেন।

র‌্যাব-সিআইডির গোলকধাঁধায় ঘুরছে মামলা

এনবিআর সূত্র বাংলামেইলকে জানিয়েছে, গত দুই দিনে কর বিভাগের এবং শুল্ক, আবগারি ও মূসক বিভাগের ১৯০ জন কর্মকর্তার রদবদল ও পদোন্নতি দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে গতকাল রোববার ১৭০ জন এবং সোমবার ২০ জন কর্মকর্তার রদবদল ও পদোন্নতি দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। এদের বেশির ভাগকেই ঢাকা ও চট্টগ্রামের বাইরে বদলি করা হয়েছে। আর সাধারণত এসব বদলি আদেশ রাতেই প্রজ্ঞাপন আকারে জারি করা হয় বলে জানান সেই সূত্র।

মরিয়া এনবিআরে বদলির হিড়িক