শনিবার, ২৫ অক্টোবর ২০১৪ ।

হরতালে জামায়াতের সমর্থন

সম্মিলিত ইসলামি দলগুলোর ডাকা হরতালে সমর্থন দিয়েছে জামায়াতে ইসলামী। শনিবার সন্ধ্যায় এক বিবৃতিতে এ কথা জানিয়েছেন দলটির নায়েবে আমির অধ্যাপক মুজিবুর রহমান। তিনি বলেছেন, ‘সম্মিলিত ইসলামি দলসমূহের আহূত আগামীকাল ২৬ অক্টোবর দেশব্যাপী সকাল-সন্ধ্যা সর্বাত্মক হরতালের প্রতি আমি বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর পক্ষ থেকে নৈতিক সমর্থন দানের কথা ঘোষণা করছি। আমি আশা করি, দেশের জনগণ আগামীকালের হরতাল পালন করে লতিফ সিদ্দিকীর শাস্তির দাবিতে চলমান আন্দোলন তীব্র থেকে তীব্রতর করবে।’

রাজধানীতে বিজিবি মোতায়েন

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে এবং লোকজনের নিরাপত্তার স্বার্থে রাজধানীতে ১০ প্লাটুন বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড (বিজিবি) সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। বাংলামেইলকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বিজিবির তথ্য কর্মকর্তা মহসিন রেজা। তিনি জানান, শনিবার সন্ধ্যা থেকে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় বিজিবি সদস্যরা টহল দিচ্ছে।

টিএসসি দখল করে ছাত্রলীগের ব্যবসা

এবার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) ক্যাম্পাসের প্রধান ফটকের সামনে একমাত্র ছাত্র-শিক্ষক মিলনায়তনের (টিএসসি) জন্য আন্দোলনের মাধ্যমে পাওয়া জায়গাটি দখল করে শীতকালীন কাপড়ের ব্যবসা শুরু করছে ক্ষমতাসীন দলের নেতারা। আর এর মূলে রয়েছে জবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক। জবি ছাত্রলীগের সভাপতি এফএম শরিফুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক এসএম সিরাজুল ইসলামের নির্দেশে রিকশা গ্যারেজ সরিয়ে বাঁশ আর ত্রিপল দিয়ে সামিয়ানা টানানো হচ্ছে জায়গাটিতে। আর এর জন্য সদরঘাট নৌকা-মাঝি শ্রমিক লীগের সভাপতি জাবেদ ইকবাল মিঠুর কাছ থেকে তিন লাখ টাকা অগ্রীম নেয়া হয়েছে বলে নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে। জানা গেছে, সমবায় ব্যাংকের নামে ইজারা দেয়া জায়গাটি চলতি বছরের ৫ মার্চ দখল করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা স্বঘোষিত টিএসসি গড়ে তোলে। তখন এই টিএসসিকে শেখ রাসেল মিলনায়তন ঘোষণা দেয় হল উদ্ধার আন্দোলন সংগ্রাম পরিষদের আহ্বায়ক ও জবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি এফএম শরিফুল ইসলাম ও হল উদ্ধার আন্দোলন সংগ্রাম পরিষদের সদস্য সচিব ও জবি শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম সিরাজুল ইসলাম। সেই রক্ষকই ভক্ষক সেজেছে বলে একাধিক শিক্ষার্থী ও শিক্ষক অভিযোগ করেন।
এ হরতালের প্রতি নৈতিক সমর্থন দিয়েছে বিএনপি, জামায়াতে ইসলামী। এছাড়াও শওকত হোসেন নিলুর নেতৃত্বাধীন জোট ন্যাশনালিস্ট ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টসহ (এনডিএফ) বেশ কিছু ইসলামী সংগঠন হরতালে সমর্থন জানিয়েছে। মন্ত্রিত্ব, দলের সদস্যপদ বাতিলের পরও হরতাল কর্মসূচিকে ভালো চোখে দেখছে না সরকার। যে কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা এড়াতে পুলিশ তৎপর থাকবে। কোনো অবস্থাতেই চোরাগোপ্তা হামলা, ঝটিকা মিছিল, বোমাবাজি, যানবাহন চলাচলে বাধা দেয়ার চেষ্টা করলেই প্রয়োজনে সর্বোচ্চ কঠোর ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ হয়েছে বলে জানিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয় সূত্র। এদিকে শনিবার ঢাকায় গোলাম আযমের জানাজায় অংশ নেয় লাখো জামায়াত-শিবির কর্মী। এদের বড় একটি অংশ বিনা বাধায় দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে ঢাকায় এসেছে। জানাজায় অংশ নিতে আসা নেতা-কর্মীদের জামায়াত হরতালে কাজে লাগতে পারে বলে আশঙ্কা গোয়েন্দা সংস্থারগুলোর।
শ্বাসরুদ্ধকর উত্তেজনা, মুহূর্তে মুহূর্তে ম্যাচের রঙ বদল, আক্রমণের পর পাল্টা আক্রমণ, কী ছিল না এল ক্ল্যাসিকোয়! সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে মৌসুমের প্রথম ক্ল্যাসিক লড়াই। মুখোমুখি দুই বিশ্বসেরা ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ এবং বার্সেলোনা। সঙ্গে দুই বিশ্বসেরা ফুটবলার মেসি এবং রোনালদো। ৯০ মিনিটের উত্তেজনার বারুদে ঠাসা ম্যাচটিতে ৩-১ গোলে জিতল রিয়াল মাদ্রিদই। মেসিকে হারিয়ে দিলেন রোনালদো। এল ক্ল্যাসিকোয় গোল করা যার জন্য নিয়মিত হয়ে দাঁড়িয়েছিল, সেই মেসি গোল পেলেন না। পেনাল্টি থেকে গোলের স্বাদ পূরণ করেছেন রোনালদো। তবে অসাধারন দুটি গোল এসেছে নেইমার এবং করিম বেনজেমার পা থেকে। রিয়ালের হয়ে বাকি গোলটি করেছেন ডিফেন্ডার পেপে। সব মিলিয়ে উপভোগ্য একটি এল ক্ল্যাসিকো দেখল ফুটবলপ্রেমীরা।
অবিভক্ত বাংলার মুখ্যমন্ত্রী ও বাংলার বাঘ খ্যাত শের-ই বাংলা এ কে ফজলুল হকের ১৪১তম জন্মবার্ষিকী আজ ২৬ অক্টোবর। ১৮৭৩ সালের এদিনে ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার সাতুরিয়ার মিয়া বাড়িতে মাতুলালয়ে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। তার বাবা বিশিষ্ট আইনজীবী মোহাম্মদ ওয়াজেদ আলী ও মা সৈয়দুন্নেছা। শের-ই বাংলার জন্মস্থান রাজাপুরের সাতুরিয়ায় তার মামা বাড়িটি তার জন্মের নানা স্মৃতিতে ঘিরে থাকলে তা এখন বিলুপ্তির পথে। আজও এখানে উন্নয়নের কোনো ছোঁয়া লাগেনি। অযত্ম- অবহেলায় পড়ে আছে শের-ই বাংলার জন্মস্মৃতি। এ কে ফজলুল হক তার শৈশবের বেশির ভাগ সময় কাটিয়েছেন এই মামার বাড়িতে। তার জন্মস্থান সাতুরিয়ায় মিয়া বাড়ির সেই আঁতুরঘর ও দালান এখন রয়েছে। তবে সংস্কারবিহীন জড়াজীর্ণ অবস্থায় পড়ে আছে। কয়েক বছর আগেও শের-ই বাংলার ব্যবহৃত নানা আসবাবপত্র সেখানে দেখা গেছে। কিন্তু এখন আর সেসবের কোনো অস্তিত্ব নেই। ফজলুল হকের প্রতিষ্ঠিত সাতুরিয়া এম এম মাধ্যমিক বিদ্যালয় নামে একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থাকলেও তার ভবনসহ শিক্ষা ব্যবস্থা নানা সমস্যায় জর্জরিত। এমনকি দূর-দূরান্ত থেকে অনেক পর্যটক এখানে এসে কোনো স্মৃতি খুঁজে না পেয়ে হতাশ হয়ে ফিরে যাচ্ছেন। এলাকার লোকজনের দাবি, দুর্বৃত্তরা সেগুলো চুরি করে নিয়ে গেছে। সরকারের প্রত্মতত্ত্ব বিভাগের অধীনে নিয়ে এ ঐতিহাসিক স্থাপনা সুরক্ষার দাবিও জানিয়েছেন বিশিষ্টজনেরা।
অকর্মন্যতা আপনার ক্ষতি করবে সাত দিক থেকে। কর্মমুখরতা আপনাকে এগিয়ে দেবে তিন দিক থেকে। পরশ্রীকাতরতা আপনাকে পিছিয়ে দেবে এক দিক থেকে। আর পরোপকার আপনার দেরি করিয়ে দেবে। কিন্তু এগিয়ে দেবে অন্তত দশ দিক থেকে। ডানে বাঁয়ে খুব বেশি তাকানোর দরকার নেই। তবে চোখকান বন্ধ বন্ধ রাখা যাবে না কোনমতেই।
বাংলাদেশের স্বাধীনতার আগে বনগাঁ সীমান্ত দিয়ে ট্রেন চলতো কলকাতা থেকে খুলনা পর্যন্ত। অনেক দিন বন্ধ থাকার পর আবারো সেই রুট দিয়েই যাত্রীবাহী ট্রেন চালাতে চায় দুই বাংলা। বনগাঁ সীমান্ত দিয়ে রেল যোগাযোগের অবকাঠামো প্রায় ১০০ বছর ধরেই রয়েছে। ওই লাইন দিয়ে কলকাতা থেকে উত্তরবঙ্গ ও আসামমুখি ট্রেন চলাচল করতো। কিন্তু দেশ ভাগের পর তা বন্ধ হয়ে যায়। তবে এখনো ওই রুটে চলাচল করে মালগাড়ি। নতুন করে যাত্রীবাহী ট্রেন চালুর বিষয়ে আলোচনা করতে শুক্রবার কলকাতায় পৌঁছেছেন বাংলাদেশ রেলের দুই কর্মকর্তা অতিরিক্ত মহাপরিচালক (এডিজি-অপারেশন) শাহ জহিরুল ইসলাম ও অতিরিক্ত মহাপরিচালক খলিলুর রহমান (এডিজি-রোলিং স্টক)। ঢাকায় ভারতীয় হাইকমিশনের এক কর্মককর্তাও রয়েছেন তাদের সঙ্গে।
মানসিক বৈকল্য আর কাকে বলে! রাশিয়ার এক মধ্যবয়সী লোকের শখই হলো মৃত মেয়ে শিশুর মরদেহ কফিন থেকে তুলে এনে মমি করে রাখা, সেগুলোকে সুন্দর পোশাক পরানো অথবা টেডিবিয়ারের মতো করে সাজানো এবং একসাথে ছবি তোলা। রাশিয়ার ওই ব্যক্তিকে সম্প্রতি বিচারের অযোগ্য মানসিক ভারসাম্যহীন আখ্যা দিয়ে মানসিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হাফিংটন পোস্ট সরকারি আইনজীবীর মুখপাত্রের বরাত দিয়ে জানিয়েছে, লোকটি শিশুর মরদেহ সংগ্রহের জন্য কমপক্ষে দেড়শটি সমাধি খুঁড়েছে।

৩-১ গোলে জিতল রিয়াল

শ্বাসরুদ্ধকর উত্তেজনা, মুহূর্তে মুহূর্তে ম্যাচের রঙ বদল, আক্রমণের পর পাল্টা আক্রমণ, কী ছিল না এল ক্ল্যাসিকোয়! সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে মৌসুমের প্রথম ক্ল্যাসিক লড়াই। মুখোমুখি দুই বিশ্বসেরা ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ এবং বার্সেলোনা। সঙ্গে দুই বিশ্বসেরা ফুটবলার মেসি এবং রোনালদো। ৯০ মিনিটের উত্তেজনার বারুদে ঠাসা ম্যাচটিতে ৩-১ গোলে জিতল রিয়াল মাদ্রিদই। মেসিকে হারিয়ে দিলেন রোনালদো। এল ক্ল্যাসিকোয় গোল করা যার জন্য নিয়মিত হয়ে দাঁড়িয়েছিল, সেই মেসি গোল পেলেন না। পেনাল্টি থেকে গোলের স্বাদ পূরণ করেছেন রোনালদো। তবে অসাধারন দুটি গোল এসেছে নেইমার এবং করিম বেনজেমার পা থেকে। রিয়ালের হয়ে বাকি গোলটি করেছেন ডিফেন্ডার পেপে। সব মিলিয়ে উপভোগ্য একটি এল ক্ল্যাসিকো দেখল ফুটবলপ্রেমীরা।

হলো না মেসির রেকর্ড

মহা রেকর্ডের জন্য প্রস্তুত মহামঞ্চ। এল ক্ল্যাসিকোয় তেলেমো জারার ২৫১ গোলের রেকর্ড ভেঙ্গে দেবেন মেসিÑ এমন আশা-আকাঙ্খার দোলাচলে দুলতে দুলতে ক্ল্যাসিকো দেখতে বসেছিল মেসি ভক্তরা। ৯০ মিনিটের খেলা শেষে তাদের শুধু হতাশা নিয়েই টিভির সামনে থেকে উঠে যেতে হয়েছে। কারণ, এবারও যে হলো না মেসির রেকর্ড। গোলেরই দেখা পাননি তিনি। মেসির এই ম্যাচটিতে বরং আলো ছড়িয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ, নেইমার, রোনালদো, বেনজেমারা। পাদপ্রদীপের আলো কেড়ে নিয়েছেন লুইস সুয়ারেজ। এল ক্ল্যাসিকোতে মেসিকে যেন থাকতে হয়েছে এদেরই ছায়া হয়ে। পুরো ম্যাচে দু’একবার দেখা গিয়েছিল। বাকি সময় তাকে খুঁজতে হয়েছে ভক্ত-দর্শকদের।

সিটির হার, আর্সেনালের জয়

আবারও হোঁচট খেল ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটি। আপটন পার্কে অ্যাওয়ে ম্যাচ খেলতে গিয়ে স্বাগতিক ওয়েস্টহ্যাম ইউনাইটেডের কাছে ২-১ গোলের পরাজয়ের স্বাদ নিয়েই ফিরেছে পেলিগ্রিনির শিষ্যরা। অপরদিকে গুরুত্বপূর্ণ জয় পেয়েছে আর্সেনাল। সান্ডারল্যান্ডের মাঠে গিয়ে তাদেরকেই হারিয়েছে ২-০ গোলে। হালসিটির সঙ্গে গোলশুন্য ড্র করেছে লিভারপুল। আপটন পার্কে গিয়ে পূর্ণ শক্তির দলই মাঠে নামিয়েছিলেন সিটি কোচ ম্যানুয়েল পেলিগ্রিনি। কিন্তু আগুয়েরো, এডিন জেকোরা প্রতিপক্ষের জালই খুঁজে পায়নি। বল দখলে সারাক্ষণই প্রভাব বিস্তার করে খেলেছে সিটি। ৭০ ভাগ বল দখলে ছিল তাদের। কিন্তু স্রোতের বিপরীতে ২১ মিনিটেই গোল হজম করে বসে ম্যানসিটি। ওয়েস্টহ্যামের পক্ষে গোলটি করেন মর্গ্যান আমালফিটানো।

পিঁপড়াবিদ্যা নিয়ে ফারুকীর প্রতিক্রিয়া

২৪ অক্টোবর মুক্তি পেয়েছে জনপ্রিয় নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর পঞ্চম চলচ্চিত্র পিঁপড়াবিদ্যা। ছবিটি মুক্তি উপলক্ষে শিল্পী কলাকুশলীদের নিয়ে হলে হলে ঘুরেছেন এ নির্মাতা। কাছ থেকে জেনেছেন দর্শকের প্রতিক্রিয়া। কেমন ছিল সেই অভিজ্ঞতা? সে কথাই বাংলামেইলের পাঠকদের জন্য জানালেন তিনি।

যে সাত কারণে বিবাহ বিচ্ছেদ

প্রতিটি সম্পর্কের একটি নিজস্ব গতি এবং ভিন্ন আবেদন থাকে।বিয়ে নামক সম্পর্কটা মাঝে মাঝে তার ষোল আনাই পূরণ করে।এই সম্পর্কে জড়ানো এবং তা বহন করা নারী-পুরুষের জীবনের সবচেয়ে বড় একটি অধ্যায়।একে অপরকে ভালোভাবে জানতে, বুঝতে, এমনকি ভালোবাসার সঙ্গী করে পেতেই বিয়ের আয়েজন। পারিবারিক ও সামাজিক সম্পর্কের এই মেলবন্ধন সন্তান জন্মদানেরও বৈধতা দান করে।এতোকিছু সত্বেও কখনো সম্পর্কধারায় ব্যত্তয় ঘটে।নানা ভুল বোঝাবুঝি, ন্যায় অন্যায়ের জের ধরে বৈধ এ সম্পর্কে ঘটে যায় বিচ্ছেদ।বিবাহ বিচ্ছেদের পেছনে যে সাতটি কারণ ঘনিষ্ঠভাবে জড়িত।তাহল...
বাংলাদেশে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠনগুলো একত্রিত হয়ে ‘বাংলাদেশ জিহাদি গ্রুপ’ নামে নতুন একটি সংগঠন তৈরি করেছে। ইতিমধ্যে তারা সংগঠনের লোগো ও গঠনতন্ত্রসহ অনেক কাজই গুছিয়ে এনেছে। হিজবুত তাহরির ছাড়া নিষিদ্ধ প্রায় সব সংগঠনই আছে এ গ্রুপে। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) যুগ্ম কমিশনার মনিরুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। সূত্র জানায়, গত সেপ্টেম্বরে রাজধানীর বাসাবোতে এ বিষয়ে বৈঠকে বসেন নিষিদ্ধ সংগঠনগুলোর বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা। সেখানে চূড়ান্ত করা হয় কোন কোন জেলায় তারা প্রাথমিকভাবে কাজ শুরু করবেন, গঠনতন্ত্র কেমন হবে, কীভাবে নেতা নির্বাচন করা হবে। দেশের বিভিন্ন জেলায় নিষ্ক্রিয় নেতাকর্মীদের ফের সক্রিয় করারও সিদ্ধান্ত হয় বৈঠকে।

জঙ্গিদের সমন্বিত রূপ ‘বাংলাদেশ জিহাদি গ্রুপ’

মোবাইল ব্যাংকিং অর্থ স্থানান্তরে এক বিপ্লব ঘটিয়ে দিয়েছে। প্রত্যন্ত গ্রামেই মানুষ এখন নিমেষে টাকা পয়সা পাঠাতে পারছে। ব্যাংকিং ব্যবস্থায় এ এক দারুণ অগ্রগতি হলেও তা এখন প্রবাসী আয়ের (রেমিট্যান্স) জন্য এক বড় হুমকি হয়ে দেখা দিয়েছে। মোবাইল ব্যাংকিং এর সুবিধা নিচ্ছে হুন্ডি ব্যবসায়ীরা। বিদেশে থাকা এজেন্ট ও দেশের মোবাইল ব্যাংকিংকে কাজে লাগিয়ে দেশের গ্রাহকদের সহজে টাকা পৌঁছে দিচ্ছে তারা। একে বলা হচ্চে ‘ইলেকট্রনিক হুন্ডি’। এ ইলেকট্রনিক হুন্ডির জনপ্রিয়তা বাড়ার সাথে সাথে কমতে শুরু করেছে বৈধ চ্যানেলে রেমিট্যান্স। দেশব্যাপী ছড়িয়ে পড়া ‘বিকাশ’ই প্রধান হাতিয়ার এই ইলেকট্রনিক হুন্ডির। হুন্ডির এ পদ্ধতি রেমিট্যান্স প্রবাহ ঝুঁকির মধ্যে পড়ছে।

বিকাশ এখন ‘ইলেকট্রনিক হুন্ডি’

ঢাকাকে উত্তর ও দক্ষিণ দু’ভাগে ভাগ করে দু’টি কমিটি নাকি ভাগ না করে একটি কমিটি করা হবে- সেই বিতর্কে আটকে আছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের আন্দোলন সংগ্রামের ভ্যানগার্ড হিসেবে পরিচিত ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের কমিটি গঠন। দীর্ঘদিন ধরে নগর নেতারা কমিটি গঠনের কথা বলে আসছেন। তারা কখনো বলছেন কমিটি হবে আগস্টের পর আবার কখনো বলছেন ঈদের পরে। বাস্তবে এখনো কমিটি ঘোষণা হয়নি। কবে ঘোষণা হবে তাও তারা জানেন না।

এক-দুইয়ে আটকে আ.লীগের নগর কমিটি

বিজয় দিবসের উপহার হিসেবে জাতিকে স্মার্টকার্ড উপহার দেয়ার পরিকল্পনা ছিল নির্বাচন কমিশনের (ইসি)। সে লক্ষ্যে একটি খসড়া পরিকল্পনাও তৈরি করা হয়েছিল। কিন্তু বিভিন্ন জটিলতার কারণে তা আর হচ্ছে না। তবে ২৬শে মার্চ স্বাধীনতা দিবসের উপহার হিসেবে এই স্মার্টকার্ড মানুষের হাতে তুলে দেয়ার পরিকল্পনা করছে (ইসি)। স্মার্টকার্ড সবার হাতে দেয়ার আগে বিশেষ কোনো ব্যক্তিকে দিয়ে এর উদ্বোধন করা হবে। সে লক্ষ্যেই নির্বাচন কমিশনের জাতীয় পরিচয়পত্র নিবন্ধন অনুবিভাগ কাজ করে যাচ্ছে। নির্বাচন কমিশন সূত্র এ তথ্য বাংলামেইলকে নিশ্চিত করেছে। সূত্র জানায়, স্বাধীনতা দিবসে স্মার্টকার্ড উপহার দেয়ার পরিকল্পনা করছে ইসি। এছাড়া ১৮ বছরের কম বয়সী নাগরিকদেরও জাতীয় পরিচয়পত্র দেয়ার কথা ভাবা হচ্ছে। এরা ভোট দিতে না পারলেও ১৮ বছর পূর্ণ হলেই স্বয়ংক্রিয়ভাবে ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হবে।

স্বাধীনতা দিবসের উপহার স্মার্টকার্ড