শুক্রবার, ৩১ অক্টোবর ২০১৪ ।

জেএমবির প্রধান সমন্বয়কসহ আটক ৫

নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন জামায়াতুল মুজাহিদিন বাংলাদেশের (জেএমবি) প্রধান সমন্বয়ক আব্দুন নূরসহ পাচঁজনকে আটক করেছে র‌্যাব। শুক্রবার দুপুরে র‌্যাবের সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) রুম্মন মাহমুদ বাংলামেইলকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, বৃহস্পতিবার শেষ রাতের দিকে সিরাজগঞ্জ রেলস্টেশন থেকে তাদের আটক করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে প্রচুর পরিমাণে বিস্ফোরক, জেল, জিহাদি বই উদ্ধার করা হয়।

দেশে গণতন্ত্র ফেরাবে জাতীয় পার্টি

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, ‘সরকার ক্ষমতার মোহে অন্ধ হয়ে গেছে। জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় গিয়ে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনবে। ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য প্রস্তুত হচ্ছে জাতীয় পার্টি। বর্তমানে দেশের তৃতীয় শক্তি হিসেবে জাতীয় পার্টিই আছে।’

বিএসইসি ভবনের আগুন নিয়ন্ত্রণে

রাজধানীর কারওয়ান বাজারে বিএসইসি ভবনের ১১ তলায় দৈনিক আমার দেশ পত্রিকার কার্যালয়ে লাগা আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। প্রায় দুই ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে ফায়ার সার্ভিসের ২০টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। এর আগে বেলা ১১টা ৪৮ মিনিটে এ আগুনের সূত্রপাত। তবে আমর দেশ পত্রিকার প্রশাসন বিভাগে কর্মরত মহসীন বাংলামেইলকে জানান, সোয়া ১১টার দিকে আগুনের সূত্রপাত। তত্ত্বাবধায়নে থাকা ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তা মেজর মো. মাহবুব বাংলামেইলকে বলেন, ‘ফায়ার সার্ভিস মনে করছে এখন আগুন অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে এসেছে। তবে ধোয়া নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা চলছে। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ভেতরে যেতে পারছে না। তাই কেউ হতাহত হয়েছিন কি-না তা বলা সম্ভব নয়।’
পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যাকে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা- এমন ইঙ্গিতপূর্ণ একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ভারতের প্রভাবশালী বাংলা দৈনিক আনন্দবাজার। শুক্রবার এ প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। পত্রিকাটির প্রিন্ট এডিশনের প্রথম পৃষ্ঠায় চার কলাম জুড়ে ছাপা হয় সংবাদটি। অনলাইন এডিশনেও সমান গুরুত্বের সঙ্গে প্রকাশ করা হয়। প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘জঙ্গিদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দিলে তার ফল মারাত্মক হবে বললেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি কারও নাম করেননি ঠিকই, তবে খাগড়াগড় বিস্ফোরণ কাণ্ডে যেভাবে পশ্চিমবঙ্গের শাসক দলের নাম জড়িয়েছে তাতে এই সতর্কবার্তার পরোক্ষ লক্ষ্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার বলেই অনেকের ধারণা।’ গতকাল প্রধানমন্ত্রী সরকারি বাসভবন ‘গণভবন’ সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য ও সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন শেখ হাসিনা।
কনে হনুফা আক্তার রিক্তাকে স্ত্রী হিসেবে কবুল করলেন রেলমন্ত্রী। সই করলেন কাবিননামায়। আর বিয়ের আসরেই পরিশোধ করলেন কাবিনের ৫ লাখ ১ টাকা। এর আগে পতাকাবাহী গাড়িতে চড়ে চান্দিনার প্রত্যন্ত গ্রাম মিরাখলায় বিয়ে বাড়িতে পৌঁছেন রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক। কুমিল্লার কয়েকজন সংসদ সদস্য, সাবেক ডেপুটি স্পিকার, পুলিশের ডিআইজি, আওয়ামী লীগ নেতসহ বিভিন্ন স্তরের মানুষ বিয়েতে অংশ নিয়েছেন। অতিথিদের মধ্যে রয়েছেন- সাবেক আইনমন্ত্রী আবদুল মতিন খসরু এমপি, চান্দিনা আসনের এমপি সাবেক ডেপুটি স্পিকার আলী আশরাফ, লাকসাম আসনের এমপি তাজুল ইসলাম, বরুড়ার সাবেক এমপি নাছিমুল আলম চৌধুরী নজরুল, কুমিল্লা জেলা পরিষদের প্রশাসক আলহাজ্ব ওমর ফারুক, পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি শফিকুল ইসলাম, কুমিল্লা জেলা প্রশাসক হাছানুজ্জামান কল্লোল, কুমিল্লার পুলিশ সুপার টুটুল চক্রবর্তী, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মজিবুর রহমান, কুমিল্লা জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম-আহবায়ক আফজল খান, তরুন আওয়ামীলীগ নেতা নুর-উর-রহমান মাহমুদ তানিম প্রমুখ। বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা হচ্ছে কনে হনুফা আক্তার রিক্তার নিজ বাড়ি চান্দিনা উপজেলার গল্লাই ইউনিয়নের মিরাখলা গ্রামের মুন্সীর বাড়িতে। বিয়ে বাড়িতে ভিআইপিদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সার্বক্ষণিক কাজে নিয়োজিত ছিল ছয় স্তরের নিরাপত্তা বাহিনী। সেগুলোর মধ্যে বিশেষ ডিউটি পুলিশ, পুলিশের মোবাইল টিম, ডিএসবি, ট্রাফিক পুলিশ, গোয়েন্দা পুলিশ ও সাদা পোশাকের কমপক্ষে ৬০-৭০জন আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য দায়িত্বে পালন করছেন।
বিয়ে বাড়ির সামনের রাস্তার আধা কিলোমিটার জুড়ে আলোক সজ্জা করা হয়েছে যা রাতে শোভাবর্ধন করেছে। বর ও ভিআইপি অতিথিদের জন্য একটি প্যান্ডেল, আত্মীয়-স্বজন ও অন্যান্য অতিথিদের জন্য একটি প্যান্ডেল এবং খাবারের আগে ও পরে অভ্যর্থনার জন্য আরও একটি প্যান্ডেলসহ মোট তিনটি প্যান্ডেলের কাজ এরই মধ্যে শেষ হয়েছে। অভ্যর্থনা প্যান্ডেলে তিনটি আলাদা কক্ষ করা হয়েছে। একটিতে কোমল পানীয়, একটিতে কফি এবং অপরটিতে শাহী পানের ব্যবস্থা থাকবে। ডেকোরেটরের সরবরাহ করা প্লস্টিকের চেয়ারে বসেই খাবার খাবেন অতিথিরা। বিয়ে বাড়িতে নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুতের ব্যবস্থা করবে কুমিল্লা পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি-১। এছাড়া জেনারেটরেরও ব্যবস্থা রয়েছে। বৃহস্পতিবার কনের গ্রামে গিয়ে দেখা যায়, কাঁচা রাস্তায় ইটের সলিংয়ের কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে।
রাজধানীর কারওয়ান বাজারে বিএসইসি ভবনের ১১ তলায় দৈনিক আমার দেশ পত্রিকার কার্যালয়ে শুক্রবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে আগুন লাগে। ২০০৭ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি এই ভবনে প্রায় একই সময় আগুন লেগে এনটিভি, আরটিভি ও আমার দেশসহ ১০টি প্রতিষ্ঠানের কার্যালয় পুড়ে যায়। ওই অগ্নিকাণ্ডে ভবনের ভেতরে থাকা তিনজনের মৃত্যু হয়।
রাজধানীর কারওয়ান বাজারে বিএসইসি ভবনে আগুন লাগার কারণে বেসরকারি টিভি চ্যানেল আরটিভির সম্প্রচার বন্ধ রয়েছে। শুক্রবার সকাল ১১টা ১০ মিনিটে ভবনটির ১১ তলায় আমারদেশ কার্যালয়ে আগুন লাগে। আগুন নেভাতে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ১৫টি ইউনিট। আগুন লাগার কারণ এখনো জানা যায়নি। ভবনটির ৫ম তলায় বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল আরটিভি ও ৬ষ্ঠ তলায় এনটিভির কার্যালয় রয়েছে।
রাজধানীর কারওয়ান বাজারে বিএসইসি ভবনের ১১ তলায় দৈনিক আমার দেশ পত্রিকার কার্যালয়ে আগুন লেগেছে। বন্ধ থাকা দৈনিক আমার দেশ পত্রিকাটি স্থানান্তরের কথা ছিল শুক্রবার। সে উপলক্ষেই কাজ চলছিল সকাল থেকে। বাংলামেইলকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন আমার দেশ পত্রিকার সিনিয়র রিপোর্টার মাহমুদা রনি।

ইউনুসের দ্বিশতক ও অন্য রকম রেকর্ড

এক সাপ্তাহ আগেও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তার ঝুলিতে জমা ছিল না একটি শতকও। সাত দিনেই বদেলে গেল সব। তিন ইনিংস খেলতে নেমে সেই অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষেই তিন শতক। তারপর আবার দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম ইনিংসে ডাবল সেঞ্চুরি পূর্ণ করে তবেই মাঠ ছাড়লেন পাকিস্তানকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ এনে দেয়া এই পাঠান। একই সঙ্গে স্পর্শ করলেন অন্যরকম এক রেকর্ড।

ইউনিস দ্য গ্রেট

বলে কয়ে কেউ এভাবে ব্যাটকে তলোয়ার বানাতে পারেন সেটা ইউনিস খানকে না দেখলে বিশ্বাস করা যায় না। ঘটনাটা এই সেদিনের। মঈন খানের নির্বাচক প্যানেল ওয়ানডে সিরিজের দল থেকে বাতিলের খাতায় ফেলে দেন বর্ষীয়ান ইউনিসকে। তার আগে মাত্রই শ্রীলংকা সিরিজে একটি ওয়ানডে খেলার সুযোগ পান তিনি। তাও প্রায় এক বছর পর। দূর্ভাগ্য ইউনিসের ওয়ানডে সিরিজ চলাকালেই শুনতে পান তার ভাইপো মারা গেছেন। তাই দেরি না করে সিরিজের মাঝপথে দেশে ফিরে যান। তার মানে ওয়ানডেতে নিজেকে প্রমাণ করার সুযোগ পেয়েও করতে পারনেনি ইউনিস। কিন্তুু যখন ইউনিসকে অচল যুক্তি দেখিয়ে বাদ দেওয়া হলো তখন রীতিমতো রাগে ফুঁসছেন পাকিস্তানকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ এনে দেওয়া এই অধিনায়ক।

৪০০ পেরিয়েছে পাকিস্তান

আবু ধাবি টেস্টে রানের পাহাড় গড়ছে পাকিস্তান। শুক্রবার সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের দ্বিতীয় দিন প্রথম সেশনে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মাত্র ৩ উইকেট হারিয়েই ৪০২ রান সংগ্রহ করেছে মিসবাহ উল হক বাহিনী। টানা তৃতীয় সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে এক পাশে ব্যাট করছেন ইউনিস খান (১৩৯)। অন্য পাশে অর্ধ শতক করে পাঠান ব্যাটসম্যানকে সঙ্গ দিচ্ছেন পাকিস্তানের দলীয় অধিনায়ক মিসবাহ উল হক (৫৪)। দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম ইনিংসে এখন পর্যন্ত ১২১ ওভার ব্যাট করেছে পাকিস্তান।

ফেসবুকে বিব্রত আঁখি আলমগীর

টেলিভিশনের সরাসরি অনুষ্ঠান কিংবা কনসার্টে অংশ নিয়ে বিভিন্ন সময় বিব্রতকর অবস্থার সস্মুখীন হয়েছেন সংগীতশিল্পী আঁখি আলমগীর। কিন্তু এবারই প্রথম সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে বিব্রত হয়েছেন এই শিল্পী।

যে অভ্যাসে প্রেম টুটে যায়

ভালোবাসার সম্পর্কে জড়ানোর পেছনে সবারই কিছু ইতিবাচক কারণ থাকে। কারো জন্য মনের এক কোনায় জমতে থাকা শিশির কনার মতো ভালোবাসা একসময় পাহাড়ের রূপ ধারণ করে। আর তখন তা আর ধরে রাখা মুশকিল। নিজেকে তখন খুবই একা লাগে। কারো ভালোবাসা মাখা আদরের অভাব অনুভব হয় তীব্রভাবে। কিন্তু সব কারণই একসময় অমূলক হয়ে পড়বে, যদি আপনার মধ্যে কিছু বদঅভ্যাস থাকে। এতে যেমন নিজেও সুখী থাকতে পারবেন না, তেমনি সঙ্গীকেও রাখতে পারবেন না শান্তিতে। আর এই অভ্যাস গুলি থাকলে আপনার প্রেম টুটে যাওয়ার আশঙ্কায় বেশি।
রেলওয়ের একাধিক সূত্রের সঙ্গে কথা বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে সিলেট-আখাউড়া রেললাইনে ও কুলাউড়া-শায়েস্তাগঞ্জ সেকশনে অনুমোদিত ও অনুমোদনবিহীন প্রায় শতাধিক রেলক্রসিং রয়েছে। তন্মধ্যে অনুমোদিত রেলক্রসিংয়ের সংখ্যা মাত্র ২৯টি। এ ২৯টি অনুমোদিত রেলক্রসিংয়ের মধ্যে মাত্র ৬টিতে গেইটম্যান কর্মরত আছেন। বাকি ২৩টি রেলক্রসিংয়ে কোনো গেটম্যান নেই। অনুমোদিত ২৯টি রেলক্রসিং ছাড়া বাকিগুলো নির্মাণ হয়েছে সংশ্লিষ্ট এলাকাবাসীর উদ্যোগে। এসবের কোনো সঠিক পরিসংখ্যান রেল কর্তৃপক্ষের কাছে নেই। রেলওয়ের কুলাউড়াস্থ প্রকৌশল বিভাগ জানায়, শুধুমাত্র শায়েস্তাগঞ্জ থেকে কুলাউড়া হয়ে সিলেট পর্যন্ত রেললাইনের বিভিন্ন অংশে কমপক্ষে ৫১টি রেলক্রসিং রয়েছে। এরমধ্যে মাত্র ১৭টির অনুমোদন রয়েছে। বাকি ৩৪টি রেলক্রসিং অনুমোদনবিহীন। রেলওয়ের ওই অংশে ২০০০ সালের মে মাসে শ্রীমঙ্গলের সাতগাঁও এলাকায় অনুমোদনবিহীন রেলক্রসিং-এ ট্রেনের ধাক্কায় ২ বেবিটেকসি আরোহী নিহত হন।

অরক্ষিত রেলক্রসিং যেন মৃত্যুফাঁদ

সারাদেশ ৭২টি পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির (পবিস) কার্যক্রম ঝিমিয়ে পড়েছে। ফলে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে ১৭ হাজার ৮৯২ কোটি টাকা ব্যয়ের ১৮টি প্রকল্প বাস্তবায়নের কাজ। এতে সরকারের বিদ্যুৎ সেক্টরের ২০২১ ভিশন অর্জনও বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। বিদ্যুৎ বিভাগ গত ৮ মাসে বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন ( বাপবি ) বোর্ডের সদস্য ( সমিতি ব্যবস্থাপনা) শূণ্য পদ পূরণ করতে না পারায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া প্রশাসনিক কাজে স্থবিরতা, দালালচক্রের উত্থান ও গ্রাহক হয়রানি চরম পর্যায়ে পৌঁছেছে।

কী হচ্ছে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতিতে?

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চট্টগ্রাম সিটি গেট থেকে কুমিরা বাইপাস, পঞ্চশিলা বাজার থেকে কুমিরা বাইপাস প্যাকেজের ফুলতলা ও বারআউলিয়াসহ অন্যান্য অংশের রাস্তা, বাতিশা থেকে মহিপাল পর্যন্ত প্রায় ২০ কিলোমিটার, কুমিল্লা বাইপাস থেকে কুমিরা বাইপাস অংশের ২১ কিলোমিটার, কুটুম্বপুর থেকে কুমিল্লা বাইপাসের ময়নামতি ও নিমসার বাজার অংশে কোনো কার্যক্রম দেখা যায়নি।

ঢাকা-চট্টগ্রাম সড়কের কাজে অসন্তুষ্ট কমিটি

সম্প্রতি মন্ত্রিপরিষদ থেকে অব্যাহতিপ্রাপ্ত এবং দল থেকে বহিষ্কৃত আব্দুল লতিফ সিদ্দিকীর সংসদ সদস্য পদ আইনি জটিলতা তৈরি হয়েছে। দলের সদস্যপদ হারানোর পর তার সংসদ সদস্য পদ থাকছে কি না সে ব্যাপারে সংবিধান এবং গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশে (আরপিও) স্পষ্ট করে কিছু বলা নেই। ফলে আইনের ফাঁকে পার পেয়েও যেতে পারেন তিনি। গত শুক্রবার রাতে গণভবনে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সভায় লতিফের প্রাথমিক সদস্য পদ বাতিল করা হয়। বৈঠক শেষে দলটির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, ‘লতিফ সিদ্দিকীর প্রাথমিক সদস্যপদ বাতিল করা হয়েছে, এ সংক্রান্ত কাগজপত্র নির্বাচন কমিশনে পাঠানো হবে। আমরা তার এমপি পদ থেকে বহিষ্কারের জন্যও নির্বাচন কমিশনে লিখিত আবেদন জানাবো।

লতিফের এমপি পদ নিয়ে জটিলতা