বৃহস্পতিবার, ০৫ মার্চ ২০১৫ ।

যাত্রীবাহী বাসে পেট্রোলবোমা, দগ্ধ ১২

সদর উপজেলার চৌদ্দশত এলাকায় একটি যাত্রীবাহী বাসে পেট্রোলবোমা হামলায় নারীসহ অন্তত ১২ যাত্রী দগ্ধ হয়েছে। বুধবার রাত সোয়া ১১টার দিকে কিশোরগঞ্জ-ভৈরব সড়কে দুর্বৃত্তরা এ হামলা করে। আহতদেরকে কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে দগ্ধ আব্দুল মালেক (৩৫) ও জাহেদা (৪০) অবস্থা আশঙ্কাজনক। অপর আহতরা হলেন- দীপু রায় (২৩), মোতালেব (৩৮), পূর্ণিমা রায়(১৫), উষা রায় (১৭), বিল্পব পাল (৩০), নিমায় রায় (৩০), বিকাশ নায়েক মোদক (২৫), প্রতাপ চন্দ্র রঞ্জন (২৬), মাহফুজ (৩৫)। পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, নেত্রকোনার কেন্দুয়া থেকে ৩০/৩৫ জন যাত্রী নিয়ে শাহ সুলতান পরিবহনের একটি বাস (ঢাকা মেট্রো ব-১১ ১৫ ১৯) সিলেটের ভোলাগঞ্জে যাচ্ছিল। রাত সোয়া ১১টার দিকে বাসটি কিশোরগঞ্জ জেলা সদরের চৌদ্দশত এলাকায় পৌঁছলে দুর্বৃত্তরা পেট্রোলবোমা ছুড়ে মারে। আগুনে বাসটি সম্পূর্ণ পুড়ে গেছে।

বগুড়া চেম্বার ভবনে পেট্রোলবোমা হামলা

চেম্বার অব কমার্স ভবনে পেট্রোলবোমা হামলা করেছে দুর্বৃত্তরা। দুর্বৃত্তদের নিক্ষেপ করা পেট্রোলবোমা ভবনের গ্লাস ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে এবং চেম্বার ভবন সংলগ্ন কমার্স ব্যাংকের সাইনবোর্ডে আগুন ধরে যায়। এসময় চেম্বার ভবনের একটি কক্ষে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আলহাজ্ব মমতাজ উদ্দিন নেতাকর্মীদের সঙ্গে বসেছিলেন। তাৎক্ষনিক আগুন নিভিয়ে ফেলার কারণে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। বুধবার রাত সাড়ে ১০ টার দিকে শহরের ঝাউতলা এলাকায় চেম্বার ভবনে পেট্রোলবোমা হামলার ঘটনা ঘটে। চেম্বার ভবনে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতির সাথে অবস্থানরত স্বেচ্ছাসেবকলীগ কর্মীদের কয়েকজন জানান, রাত সাড়ে ১০টার দিকে চেম্বার ভবন লক্ষ্য করে পর পর ২টি পেট্রোলবোমা নিক্ষেপ করা হয়। পেট্রোলবোমা ২টি ভবনের গ্লাসে আঘাত লেগে ভবন সংলগ্ন কমার্স ব্যাংকের সাইনবোর্ডে আগুন ধরে যায়। সঙ্গে সঙ্গে উপস্থিত লোকজন এবং চেম্বার ভবনে থাকা নেতাকর্মীরা আগুন নিভিয়ে ফেলে। খবর পেয়ে বগুড়ার পুলিশ সুপার মোজাম্মেল হক পিপিএম চেম্বার ভবনে যান। তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতিকে নিরাপদে বাসায় ফেরার ব্যবস্থা করেন। বগুড়া সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল বাসার জানান, চেম্বার ভবনে ২টি পেট্রোলবোমা নিক্ষেপ করা হয়েছে। তবে কোনো হতাহত কিংবা ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

ডেমরায় ৪০ ট্রাক কসমেটিক্স জব্দ

রাজধানীর ডেমরা এলাকার মুনস্টার লিমিটেড কোম্পানিতে অভিযান চালিয়ে আমদানি নিষিদ্ধ ও নিম্নমানের ৪০ ট্রাক কসমেটিক্স পণ্য জব্দ করেছে র‌্যাব-১০ এবং শুল্ক ও গোয়েন্দা বিভাগ। বুধবার বিকেল থেকে রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে পণ্যগুলো জব্দ করা হয়। এর মধ্যে বিশ্বের বিভিন্ন কোম্পোনির নামি-দামি বডিস্প্রে, পারফিউম ছাড়াও দেশিয় নিম্নমানের কসমেটিক্স পণ্যও আছে। জব্দকৃত পণ্যগুলোর আনুমানি মূল্য ৪০ কোটি টাকা। অভিযান শেষে কোম্পানিটি সিলগালা করে দেয়া হয়। শুল্ক ও গোয়েন্দা বিভাগের সহকারী কমিশনার উম্মে নাহিদা জানান, কোম্পানিটি দীর্ঘদিন ধরে কর ফাঁকি দিয়ে বিদেশ থেকে নামি-দামি কোম্পানির কসমেটিক্স পণ্য আমদানি করে আসছিল। এছাড়াও তারা দেশিয় বাজার থেকে অত্যন্ত নিম্নমানের পণ্য নিজেদে
দু’দফা পেছানোর পর দেশের ব্যবসায়িদের শীর্ষ সংগঠন দ্য ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার্স অব কমার্স ইন্ডাস্ট্রির (এফবিসিসিআই) নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে। ঘোষণানুযায়ী ২০১৫-১৭ মেয়াদে পরিচালক নির্বাচন ২৩ মে এবং সভাপতি, প্রথম সহসভাপতি ও সহসভাপতি নির্বাচন ২৫ মে নির্ধারণ করা হয়েছে। বর্তমানে এফবিসিসিআই সদস্যসহ ব্যবসায়িদের মধ্যে নির্বাচনকে ঘিরে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা লক্ষ্য করা গেছে। আর এর মধ্যেই সভাপতি পদের জন্য নিজের প্রার্থিতার কথা জানালেন বর্তমান প্রথম সহসভাপতি মনোয়ারা হাকিম আলী। গত রোববার রাজধানীর মতিঝিল ফেডারেশন ভবনে নিজ দপ্তরে মনোয়ারা হাকিম আলী এফবিসিসিআই নির্বাচন নিয়ে বাংলামেইলকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ মতামত দিয়েছেন। সাক্ষাৎকারটি গ্রহণ করেছেন বাংলামেইলের স্টাফ করেসপন্ডেন্ট নাজমুল ইসলাম ফারুক।
বিজ্ঞানলেখক ও ব্লগার অভিজিৎ হত্যার সময় টিএসসি এলাকায় দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যদের মধ্যে কর্তব্যে অবহেলা ছিল বলে তথ্য আছে তদন্ত কমিটির কাছে। যার পরিপ্রেক্ষিতে কয়েকজন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হতে পারে। এদিকে উগ্রবাদী ব্লগার শফিউর রহমান ফারাবীর তথ্যের ভিত্তিতেই অভিজিৎ রায়ের হত্যাকারী শনাক্তের চেষ্টা করছে গোয়েন্দারা। ১০ দিনের রিমান্ডের প্রথম দিনে হত্যা সংশ্লিষ্টতার কথা স্বীকার না করলেও ফারাবী বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছে। এরই ভিত্তিতে মামলার তদন্তকারী সংস্থার একাধিক দল পৃথকভাবে সন্দেহভাজনদের ধরতে অভিযান অব্যাহত রেখেছে। তদন্ত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বলেন, হত্যাকাণ্ডের সময় আশেপাশে দায়িত্বপালনরত পুলিশ সদস্যদের ভূমিকা কী ছিল, তা যাচাইয়ে পুলিশের ঊর্ধ্বতনদের নিয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। অভিজিৎ হত্যা মামলার তদন্ত তদারকির পাশাপাশি কমিটি দায়িত্বে অবহেলাকারী পুলিশের কর্মবিচ্যুতির বিষয়টিও খতিয়ে দেখছে। কমিটির সদস্য এক কর্মকর্তা জানান, বিভাগীয় তদন্ত প্রায় শেষ পর্যায়ে। হত্যাকাণ্ডের সময় ঘটনাস্থলের কাছে কয়েকজন পুলিশ সদস্য ছিলেন, যারা কেউই দ্রুত অভিজিৎকে বাঁচাতে এগিয়ে আসেননি। এমনকি খুনিদের আটকের চেষ্টাও করেনি তারা।
অ্যালার্ম ঘড়িটা কি সত্যি আপনাকে ঠিক সময়ে জাগিয়ে তুলবে নাকি সে নিজেই ঘুমিয়ে থাকবে? একটু পরীক্ষা করে দেখুন দয়া করে। রসিকতা মনে হচ্ছে? রসিকতা না ভেবে, যাকে খুব বিশ্বাস করে আসছেন দীর্ঘদিন ধরে তাকে একটু জাচাই করে নিন। সত্যি সে আপনার বিশ্বাস রক্ষা করছে কিনা জেনে নিন। শত্রুদের থেকে দূরে থাকুন আর অবিরত প্রেম করুন। কারণ প্রেম আপনার গোপন শক্তি। তাই বলে শক্তির অপব্যবহার করবেন না।
শত বছরে যৌবন হারিয়ে প্রমত্তা পদ্মা ক্ষীণকায় হয়ে গেলেও জৌলুস নিয়ে সগর্বে আজো দাঁড়িয়ে আছে কিংবদন্তির শতবর্ষী হার্ডিঞ্জ ব্রিজ। লোহা লক্করের ভারী শরীর দেখেছে ৩৬ হাজার ৫শ’ সূর্যদোয়। সাক্ষী হয়ে আছে ব্রিটিশ শাসন, অবিভক্ত বাংলা, পাকশাসন আর স্বাধীন বাংলার রক্তভেজা অভ্যূদয়। শত কোটি যাত্রীর হাসি-কান্না, আনন্দ-অশ্রুর লাখো আখ্যান নিয়ে এ রেলসেতুটির উপর দিয়ে দিনে রাতে কত হাজার বার ছুটে গেছে ট্রেন। নিচ দিয়ে বয়ে যাওয়া পদ্মার ঘোলার জলের ইতিহাস গায়ে মেখে স্বমহিমায় ঠায় দাঁড়িয়ে আছে ব্রিটিশ ভারতের বিশাল কীর্তি। ১৯১৫ সালের ৪ মার্চ নির্মাণ শুরু হওয়া ব্রিজটি এক বছর দুই বছর করে পার করেছে শতাব্দীকাল। রেলসেতুটির নির্মাণকাজের প্রত্যক্ষদর্শীরা অনেকেই গত হয়েছে। কিন্তু আজ ২০১৫ সালের ৪ মার্চে দাঁড়িয়ে খানিকটা বর্ণচ্ছটা হারানো সেতুটিকে দেখলে পূর্ণ যৌবনাই মনে হয়। পাবনা সদর হতে ঈশ্বরদী উপজেলার প্রায় ৮ কিলোমিটার দক্ষিণে পাকশী ইউনিয়নে পদ্মা নদীর উপর ব্রিজটি অবস্থিত। রাজধানী ঢাকা আর উত্তরাঞ্চলের সঙ্গে দক্ষিণাঞ্চলের যোগাযোগের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে। শত বছরে এ রেলসেতুটি বন্ধন ঘটিয়েছে পাবনার পাকশী ও কুষ্টিয়ার ভেড়ামারাকে। সূত্রমতে, বাংলাদেশের সবচেয়ে দীর্ঘ রেলসেতু হিসেবে পরিচিত হার্ডিঞ্জ ব্রিজটির নির্মাণকাল ১৯০৯-১৯১৫। এর দৈর্ঘ্য ১ হাজার ৭শ ৯৮ দশমিক ৩২ মিটার বা ৫ হাজার ৯শ ফুট। ১৯১৫ সালের ৪ মার্চ রেল চলাচলের জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন তৎকালীন ভাইসরয় লর্ড হার্ডিঞ্জ। তার নামানুসারেই সেতুটির নামকরণ করা হয়। আজ ২০১৫ সালের ৪ মার্চ শতবছর পূর্ণ হওয়া ব্রিজটির নির্মাণকালে তৎকালীন ব্রিটিশ সরকার ১০০ বছরের গ্যারান্টি দিয়েছিল। ইতিহাসের সাক্ষী ঐতিহাসিক এ ব্রিজের শত বর্ষপূর্তি উপলক্ষে বুধবার ব্রিজের নিচে নানা কমসূচি পালন করছে স্থানীয় একাধিক সংগঠন।
কর্মকর্তাদের অবহেলা ও সংশ্লিষ্ট বিভাগগুলোর সমন্বয়হীনতায় ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের সম্পদের রক্ষণাবেক্ষণ ও সঠিক হিসাব সংরক্ষণে নেই। নামমাত্র কিছু সম্পদের তালিকা থাকলেও এর মধ্যেও রয়েছে বহু গড়মিল। এ কারণেই সংস্থা দু’টির গুরুত্বপূর্ণ সম্পদ বেদখলের পাশাপাশি নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। দুই সিটি করপোরেশনের সম্পত্তি নিয়ে আমাদের স্টাফ করেসপন্ডেন্ট শাহেদ শফিকের ধারাবাহিক প্রতিবেদনের অষ্টম পর্বের বিষয় ‘দোকান নির্মাণ করতে রাস্তাও বরাদ্দ দিচ্ছে ডিএসসিসি!’
পদ্মা বহুমুখী সেতু নির্মাণের আওতায় মাওয়া পয়েন্টে জমি অধিগ্রহণের ফলে ২৩ ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী তিন বছরেও ক্ষতিপূরণ পায়নি। নানা দেনদরবার, চিঠি চালাচালির পরও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের উদাসীনতা ও অবহেলার কারণে এখন পথে বসার উপক্রম হয়েছে ওই ব্যবসায়ীদের। এমনও অভিযোগ উঠেছে যে, সেতু বিভাগের পুনর্বাসন সংক্রান্ত নির্বাহী প্রকৌশলী ক্ষতিপূরণ দেয়ার আশ্বাস দিয়ে ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে ঘুষ দাবি করেছেন। ঘুষ দিতে অপারগতা জানানোয় পুনর্বাসন তালিকা থেকে বাদ পড়েছেন ওই ব্যবসায়ীরা। এ নিয়ে মাওয়া ১নং ফেরিঘাট এলাকায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ক্ষোভ আর হতাশা বিরাজ করছে। যে কোনো সময় সেখানে বড় ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন স্থানীয় লোকজন। গত ২০ জানুয়ারি সরেজমিনে পদ্মা সেতু প্রকল্প এলাকা ঘুরে এসে এ তথ্য জানা গেছে।
দল ম্যাচ জয় পরাজয় ড্র পয়েন্ট
নিউজিল্যান্ড
শ্রীলংকা
বাংলাদেশ
অস্ট্রেলিয়া
আফগানিস্তান
ইংল্যান্ড
স্কটল্যান্ড
দল ম্যাচ জয় পরাজয় ড্র পয়েন্ট
ভারত
দক্ষিণ আফ্রিকা
ওয়েস্ট ইন্ডিজ
আয়ারল্যান্ড
পাকিস্তান
জিম্বাবুয়ে
আরব আমিরাত

জয় চায় স্কটিশরাও

অভিষেক বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সঙ্গে হার। এখন পর্যন্ত টাইগারদের বিরুদ্ধে ওয়ানডে ক্রিকেটে হারের বৃত্তেই রয়েছে স্কটল্যান্ড। তবে বাংলাদেশকে হারিয়ে বিশ্বকাপে প্রথম জয়ের স্বাদ পেতে চায় স্কটিশরাও। বৃহস্পতিবার ভোর চারটায় নেলসনে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও স্কটল্যান্ড। বাংলাদেশ তিন ম্যাচের মধ্যে একটিতে জিতলেও টানা তিন হারের হতাশার মধ্যে রয়েছে স্কটল্যান্ড শিবির।

অস্ট্রেলিয়ার রেকর্ডগড়া জয়

একই ম্যাচে দুটি রেকর্ড গড়ে ফেলল অস্ট্রেলিয়া। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ছয় উইকেটে ৪১৭ রান। যা বিশ্বকাপের ইতিহাসে সর্বোচ্চ রানের ইনিংস। দিন শেষে আফগানিস্তানকে ২৭৫ রানে হারিয়েছে অসি শিবির। বিশ্বকাপে সবচেয়ে বড় ব্যবধানে জয়ের রেকর্ড এটি। আর ওয়ানডে ক্রিকেটে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। বিশ্বকাপে এর আগে সর্বোচ্চ রানে জয়ের রেকর্ড ছিল ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকার, ২৫৭ রানে। আর ওয়ানডে ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রানে জয়ের রেকর্ডটি নিউজিল্যান্ডের, ২০০৮ সালে আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে ২৯০ রানে।

এবার বাংলাদেশের সামনে স্কটল্যান্ড

গ্যাভিন হ্যামিল্টনের কথা মনে আছে। ভদ্রলোক ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপ দলে সুযোগ না পেয়ে রাগে-ক্ষোভে হতাশায় প্রতিবেশী দেশ স্কটল্যান্ডের হয়ে বিশ্বকাপে প্রতিনিধিত্ব করেন। সেটা ছিল স্কটিশদের প্রথম বিশ্বকাপ। বাংলাদেশেরও তাই। তা হ্যামিল্টনকে এখানে টেনে আনার কারণ বিশ্বকাপে আবার বাংলাদেশ-স্কটল্যান্ড মুখোমুখি।

'স্বাধীনতা পুরস্কার' পাচ্ছেন নায়ক রাজ রাজ্জাক

বাংলাদেশের স্বাধীনতার পক্ষে এবং জাতীয় পর্যায়ে গৌরবোজ্জ্বল অবদানের জন্য ‘স্বাধীনতা পুরস্কার’ পাচ্ছেন নায়ক রাজ রাজ্জাক। এ বছরের পুরস্কারের জন্য মনোনীতদের নাম চূড়ান্ত করে সরকারি প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বুদ্ধি কেড়ে নেয় গভীর রাতের খাবার!

লেখাপড়া, অলসতা বা বদঅভ্যাসের কারণে অনেকের গভীর রাতে খাবার খেয়ে থাকে। আমরা জানি, গভীর রাতের খাবার অভ্যাস সহজেই মুটিয়ে দেয়। কিন্তু সম্প্রতি এর থেকেও মারাত্মক একটি তথ্য নিয়ে হাজির হয়েছেন একদল মার্কিন বিজ্ঞানী। তাদের গবেষণায় ধরা পড়েছে, গভীর রাতের খাবার আমাদের শুধু বুদ্ধি কেড়ে নেয় না, স্মৃতিশক্তিও কমিয়ে দেয়।
কর্মকর্তাদের অবহেলা ও সংশ্লিষ্ট বিভাগগুলোর সমন্বয়হীনতায় ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের সম্পদের রক্ষণাবেক্ষণ ও সঠিক হিসাব সংরক্ষণে নেই। নামমাত্র কিছু সম্পদের তালিকা থাকলেও এর মধ্যেও রয়েছে বহু গড়মিল। এ কারণেই সংস্থা দু’টির গুরুত্বপূর্ণ সম্পদ বেদখলের পাশাপাশি নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। দুই সিটি করপোরেশনের সম্পত্তি নিয়ে আমাদের স্টাফ করেসপন্ডেন্ট শাহেদ শফিকের ধারাবাহিক প্রতিবেদনের অষ্টম পর্বের বিষয় ‘দোকান নির্মাণ করতে রাস্তাও বরাদ্দ দিচ্ছে ডিএসসিসি!’

রাস্তাও ইজারা দিচ্ছে ডিসিসি!

পদ্মা বহুমুখী সেতু নির্মাণের আওতায় মাওয়া পয়েন্টে জমি অধিগ্রহণের ফলে ২৩ ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী তিন বছরেও ক্ষতিপূরণ পায়নি। নানা দেনদরবার, চিঠি চালাচালির পরও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের উদাসীনতা ও অবহেলার কারণে এখন পথে বসার উপক্রম হয়েছে ওই ব্যবসায়ীদের। এমনও অভিযোগ উঠেছে যে, সেতু বিভাগের পুনর্বাসন সংক্রান্ত নির্বাহী প্রকৌশলী ক্ষতিপূরণ দেয়ার আশ্বাস দিয়ে ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে ঘুষ দাবি করেছেন। ঘুষ দিতে অপারগতা জানানোয় পুনর্বাসন তালিকা থেকে বাদ পড়েছেন ওই ব্যবসায়ীরা। এ নিয়ে মাওয়া ১নং ফেরিঘাট এলাকায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ক্ষোভ আর হতাশা বিরাজ করছে। যে কোনো সময় সেখানে বড় ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন স্থানীয় লোকজন। গত ২০ জানুয়ারি সরেজমিনে পদ্মা সেতু প্রকল্প এলাকা ঘুরে এসে এ তথ্য জানা গেছে।

ঘুষ না দেয়ায় ক্ষতিপূরণ পাননি ২৩ ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী!

রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা, কর্মসংস্থানের অভাব আর উন্নত জীবন- এ তিন চাহিদার কারণে বিদেশমুখি হচ্ছে বাংলাদেশের মেধাবী শিক্ষার্থী। সেই সঙ্গে তারা দেশেও ফিরছে না। বরং বাংলাদেশের নাগরিকত্ব ত্যাগ করছেন অনেকে। ফলে দেশের সন্তানদের এ মেধা কোনো কাজে আসছে না বাংলাদেশের। তবে এ সংখ্যা ঠিক কতো- সে পরিসংখ্যান জানা নেই শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের। বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) তাদের এক প্রতিবেদন অনুযায়ী, এ সংখ্যা ৭০০ থেকে এক হাজার। যদিও বাস্তবিক অর্থে এ সংখ্যা আরো অনেক বেশি বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। ইউজিসির ৩৯তম বার্ষিক প্রতিবেদনে বলা হয়, দেশের সেরা সদ্য স্নাতক শিক্ষার্থীরাই পোস্ট গ্র্যাজুয়েট শিক্ষার জন্য বেশি দেশ ত্যাগ করছেন। প্রতিবছর এ সংখ্যা ৭০০ থেকে এক হাজারের মতো। এসব শিক্ষার্থীদের আগ্রহের শীর্ষে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, ইংল্যান্ড, জাপান, জার্মানি, চীন, ফ্রান্স, দক্ষিণ কোরিয়া, ফ্রান্স। পছন্দের তালিকাতে রয়েছে স্কান্ড্যাভিয়ান দেশগুলোও। কারণ পড়াশোনার জন্য এসব দেশে খরচ লাগে না। সেই সঙ্গে জনসংখ্যা কম হওয়ায় কর্মসংস্থানের সুযোগও বেশি।

অস্থির দেশ, বিদেশমুখি মেধাবীরা

বাংলাদেশের শ্রম আইন অনুযায়ী শ্রমিকের বেতন, কাজের সময় ও কর্মদিবস কোনোটাই মানা হচ্ছে না পদ্মাসেতু প্রকল্পে। কোথাও কোথাও বেশি শ্রমিক দেখিয়ে আত্মসাৎ করা হচ্ছে শ্রমিকদের মজুরি। এর ফলে মাওয়া ও জাজিরা পয়েন্টে পদ্মা সেতুর কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ডে ৫ শতাধিক শ্রমিকের মধ্যে বিরাজ করেছ চাপা ক্ষোভ। শ্রম আইন অনুযায়ী যেখানে শ্রমিকের কাজ করার কথা ৮ ঘণ্টা সেখানে ওভারটাইম ছাড়া এক ঘণ্টা খাবার বিরতিসহ পদ্মাসেতু প্রকল্পের শ্রমিকদের কাজ করতে হচ্ছে ১০ ঘণ্টা। এভাবে পুরো মাসই বিরতিহীন কাজ করতে হচ্ছে শ্রমিকদের। অসুস্থতাজনিত কারণে কাজে আসতে না পারলে কেটে রাখা হয় মজুরি। গত ২১ থেকে ২৪ জানুয়ারি মাওয়া ও জাজিরা পয়েন্ট এলাকার পদ্মাসেতু প্রকল্প ঘুরে শ্রমিকদের সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য জানা গেছে।

মানা হচ্ছে না শ্রমআইন