মঙ্গলবার, ০৭ জুলাই ২০১৫ ।

ব্যবসা গোছাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রেআশ্রিত মিল্কীর খুনি চঞ্চল!

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রিয়াজুল হক খান মিল্কি হত্যাকাণ্ডের অন্যতম আসামি সাখাওয়াৎ হোসেন চঞ্চল। ঘটনার পর থেকেই তিনি পলাতক। শোনা যায়, চঞ্চলকে যুক্তরাষ্ট্রে পালিয়ে যেতে সহায়তা্ করেছে স্বয়ং যুবলীগ। এমনকি সেখানে তাকে আশ্রয়ও দিচ্ছে সংগঠনটি। তবে সম্প্রতি এমন অভিযোগ অস্বীকার করেছেন যুক্তরাষ্ট্র মিশিগান অঙ্গরাজ্য যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহিদুর রহমান চৌধুরী জাবেদ। একইসঙ্গে চঞ্চল সেখানে কার আশ্রয়ে আছে তিনি বাংলামেইলকে সে তথ্যও দিয়েছেন।

ঈদের পর জোরালো হবে পুনর্গঠন কার্যক্রম

বৈঠক শেষে দলের সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান সংবাদ ব্রিফিংয়ে জানান, দল পুনর্গঠন, নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে হয়রানিমূলক মামলা, আন্দোলনসহ সমসাময়িক রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। তিনি বলেন, ঈদের পরে তাদের পুনর্গঠনের কাজ জোরালো হবে। বৈঠকে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ, মাহবুবুর রহমান, আসম হান্নান শাহ, জমিরউদ্দিন সরকার, সারোয়ারী রহমান, মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, ভাইস চেয়ারম্যান শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন, চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, আবদুল্লাহ আল নোমান, হাফিজ উদ্দিন আহমেদ, আলতাফ হোসেন চৌধুরী, সেলিমা রহমান।

সাবেক প্রশাসকদের দুর্নীতি তদন্তে মন্ত্রণালয়

দুর্নীতির দুষ্টু চক্রে আবদ্ধ ঢাকার দক্ষিণ (ডিএসসিসি) ও উত্তর (ডিএনসিসি) সিটি করপোরেশন। বিধিবহির্ভুতভাবে জ্বালানি তেলের বিল পরিশোধ, ভ্যাট কর্তন ও নির্ধারিত হারে আয়কর আদায় না করা, বিভিন্ন খাতের আদায়কৃত অর্থ জমা না দেয়া, বিধিবহির্ভূতভাবে ঠিকাদারকে ফি দেয়া, প্রকল্প প্রণয়নের আগেই পরামর্শক নিয়োগ, নিম্নমানের কাজ, আর্থিক ও অনৈতিক সুবিধা নিয়ে ঝুঁকিপূর্ণ ব্যাংকে কম সুদে টাকা রাখা ও অস্বাভাবিক দর বৃদ্ধিতে এসব দুর্নীতি হচ্ছে। দুর্নীতির করে করপোরেশনের কিছু অসাধু কর্মকর্তা আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ হচ্ছেন। বিশেষ করে দুই সিটি করপোরেশন ভাগ হওয়ার পর সেখানে নিয়োগ দেয়া প্রশাসকদের আমলেই দুর্নীতি বেশি হয়েছে।
দ্বিতীয় ও শেষ টি-২০ ম্যাচেও বাংলাদেশের পরিকল্পনাতে বড় ধরনের কোনো পরিবর্তন আসছে না। কারণ ঘরের মাঠের উইকেটে কোনো পরিবর্তন হচ্ছে না। তাই দক্ষিণ আফ্রিকার বোলারদের ওপর শুরুতেই আক্রমনাত্মক নীতিতেই খেলবে টাইগার ব্যাটসম্যানরা। প্রথম টি-২০ ম্যাচে বোলিংয়ে সুবিধা পেয়েছিলেন আরাফাত সানি-সাকিবরা। তবে ব্যাটিংয়ে আক্রমণাত্মক নীতিতে সফল না হলেও মঙ্গলবারও একই পরিকল্পনা নিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে মাঠে নামবে মাশরাফি বাহিনী।
এলজিইডির তত্ত্বাবধানে নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার আগেই কোটি টাকার সড়ক বৃষ্টির পানিতে ধসে গেছে। তবে ধস ঠেকাতে ব্যবস্থা না নিয়ে উপরন্তু এটি কোনো কোনো ব্যাপারই নয় বলে জানিয়েছেন রাঙামাটি এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আদনান আখতারুল আজম। এছাড় কার্যাদেশ অনুযায়ী কাজ না করে ঠিকাদার ও এলজিইডির কিছু অসাধু কর্মকর্তা কোটি টাকা লুটপাট করেছেন বলে অভিযোগ করেছেন স্থানীয়রা। এক কোটি পাঁচ লাখ টাকা ব্যয়ে রাঙামাটি শহরের আসামবস্তি-ভেদভেদি সড়কের ৩৭০ মিটার নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার আগেই সেটি ধসে পড়লেও অধিকাংশ বিল তুলে নিয়েছেন সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার। এ নিয়ে এলাকাবসীর মাঝে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে।
আপনি আজ আসন্ন কোনো বিপদ এড়িয়ে যেতে পারবেন খুব সহজে। বিনিয়োগে দারুণ লাভের আশা। ফেসবুকে পরিচিত কারো সঙ্গে আজ মনের কথা হুড়হুড় করে বলে দেবেন। তার কথাও শুনবেন। তবে সাবধান থাকুন, যায় বলুন না কেন, তার কাছে দুর্বল হবেন না। আপনি যে আত্মবলে বলীয়ান তা বুঝিয়ে দিন। অ্যাডভেন্টেজ পাবেন এই গুণের কারণে।
ইফতারের বাকি তখন আধা ঘণ্টা। বক্তব্য রাখছিলেন বিএনপিপন্থি সাংবাদিক নেতা শওকত মাহমুদ। ঠিক তখনই ইফতারের টেবিল থেকে সাংবাদিকদের উঠিয়ে দিলেন আদর্শ ঢাকা আন্দোলনের নেতাকর্মীরা। আদর্শ ঢাকা আন্দোলনের ব্যানারেই ঢাকা ও চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলেন বিএনপি সমর্থিত মেয়র প্রার্থীরা। সাংবাদিকদের উঠিয়ে দিয়েই ক্ষান্ত হননি আদর্শ ঢাকার প্রচার সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু। করেন কটূক্তিও। তিনি বলেন, ‘এতোগুলো যদি সাংবাদিক আসে! তাহলে অথিতিদের জায়গা দিবো কোথায়? আর এখানে সাংবাদিকদের জন্য জায়গা রাখা হয়নি।’ সোমবার রাজধানীর হোটেল ৭১-এ আয়োজিত ওই অনুষ্ঠানে খাবার টেবিল থেকে এক বেসরকারি টেলিভিশনের সাংবাদিকসহ বেশ কয়েকজন সাংবাদিকদের উঠিয়ে দেয় আয়োজকরা। এরপর সেই ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠান ত্যাগ করেন সংবাদ সংগ্রহে আসা অন্য সাংবাদিকরাও।
ওয়ানডে ক্রিকেটে বাংলাদেশ এখন সমীহ জাগানিয়া একটি দল। কিন্তু সে তুলনায় টি২০তে এখনও একেবারে নবীশ। বলতে গেলে এখনও যেন শিখছে বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। অথচ এই দলেরই একজন, সাকিব আল হাসান ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত ভার্সনের সেরা একজন ক্রিকেটার। বিশ্বের প্রায় সব ক্রিকেট খেলিয়ে দেশের সেরা সেরা টি২০ লিগগুলোতে খেলার অভিজ্ঞতাও রয়েছে বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডারের। শুধু তাই নয়, ওয়ানডে এবং টেস্টের মত একই সঙ্গে টি২০’র অলরাউন্ডার র‌্যাংকিংয়েরও শীর্ষে রয়েছেন তিনি। তাই সাকিবের কাছ থেকে টি২০’র অনেক কিছু দীক্ষা নিচ্ছেন বাংলাদেশ দলের জুনিয়র খেলোয়াড়রা। এমনাটাই আজ শোনালেন বাংলাদেশ দলের ওপেনার সৌম্য সরকার।
গ্রুপ পর্বে প্যারাগুয়ের বিপক্ষে ২-০ গোলে এগিয়ে থেকেও শেষ পর্যন্ত ২-২ গোলে ড্র করতে হয়েছিল আর্জেন্টিনাকে। যে কারণে রাগে-ক্ষোভে ওই ম্যাচের ম্যাচ সেরার পুরস্কার নিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছিলেন মেসি। এমনকি তার ভয়ে আর্জেন্টিনা দলের কোন সতীর্থই মেসির পক্ষে সেই পুরস্কার গ্রহণ করেননি। সেই ক্ষোভ না হয় পুরণ করা গেছে মেসির। পরের ম্যাচগুলোতে অসাধারণ খেলে আর্জেন্টিনাকে তুলে এনেছিলেন ফাইনালে। নিজের প্রথম এবং দেশকে ২২ বছর পর কোন শিরোপা উপহার দেওয়ার একেবারে দ্বারপ্রান্তে দাঁড়িয়েও সতীর্থদের কারণে আরও একবার হতাশ হতে হলো মেসিকে। চিলির কাছে টাইব্রেকারে হেরে যাওয়ার কারণে ক্ষোভে-দুঃখে তাই টুর্নামেন্টের সেরার পুরস্কার গোল্ডেন বলই প্রত্যাখ্যান করেছেন মেসি।

সিরিজ বাঁচানোর ম্যাচ মাশরাফিদের

দ্বিতীয় ও শেষ টি-২০ ম্যাচেও বাংলাদেশের পরিকল্পনাতে বড় ধরনের কোনো পরিবর্তন আসছে না। কারণ ঘরের মাঠের উইকেটে কোনো পরিবর্তন হচ্ছে না। তাই দক্ষিণ আফ্রিকার বোলারদের ওপর শুরুতেই আক্রমনাত্মক নীতিতেই খেলবে টাইগার ব্যাটসম্যানরা। প্রথম টি-২০ ম্যাচে বোলিংয়ে সুবিধা পেয়েছিলেন আরাফাত সানি-সাকিবরা। তবে ব্যাটিংয়ে আক্রমণাত্মক নীতিতে সফল না হলেও মঙ্গলবারও একই পরিকল্পনা নিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে মাঠে নামবে মাশরাফি বাহিনী।

আগ্রাসী বোলিংয়ের ‘প্রছন্ন’ হুমকি প্রোটিয়াদের

প্রথম টি-২০ ম্যাচে বোলারদের নৈপূণ্যে সহজ জয় পেয়েছে সফরকারী দক্ষিণ আফ্রিকা। প্রথম ম্যাচের মতো দ্বিতীয় ম্যাচেও আগ্রাসী বোলিং করে বাংলাদেশকে আবারও বিপদে ফেলতে চায় অতিথি দল। সফরকরী দলের বোলিং কোচ চার্লস ল্যাঙ্গেভেল্ট জানান, সব কিছু ঠিক থাকলে মঙ্গলবার দ্বিতীয় টি-২০ ম্যাচেও থাকবে প্রথম ম্যাচের মতো একই আক্রমণাত্মক বোলিং পরিকল্পনা। মঙ্গলবার দুপুর ১টায় মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টি-২০ ম্যাচে মুখোমখি হবে দক্ষিণ আফ্রিকা ও স্বাগতিক বাংলাদেশ। এর আগে সিরিজের প্রথম টি-২০ ম্যাচটিতে সহজ জয় পাওয়ায় আত্মবিশ্বাস তুঙ্গেই রয়েছে প্রোটিয়াদের।

বড় বোনকে হারিয়ে কোয়ার্টারে সেরেনা

মাঠের লড়াইয়ে যখন বিপরীত পাশে প্রতিপক্ষ হিসেবে বোনের মুখোমুখি হতে হয় তখন ম্যাচটিতে যতোই পেশাদারিত্ব থাকুক না কেন আবেগ না ছুঁয়ে পারে না। সোমবার উইম্বলডন ওপেনের শেষ ষোল’র লড়াইয়ে দুই বোন সেরেনা ও ভেনাস উইলিয়াম মুখোমুখি হয়েছিলেন। মাঠের লড়াইয়ে ছোট বোনের কাছে হেরে গেলেন ভেনাস উইলিয়ামস। ভেনাসকে ৬-৪, ৬-৩ সরাসরি সেটে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে উত্তীর্ণ হলেন সেরেনা উইলিয়ামস। গত ছয় বছরে গ্রান্ডস্ল্যাম ম্যাচে ভেনাসের বিপক্ষে এটাই সেরেনার প্রথম জয়। এই জয়ের ফলে টানা চতুর্থ গ্রান্ডস্ল্যাম জয়ের পথে আরো এক ধাপ এগিয়ে গেলেন নারী টেনিসের এক নম্বর এই তারকা

বিপন্নতার রঙে মলিন এফডিসির তিন কৃষ্ণচূড়া

বিএফডিসিতেও আছে কৃষ্ণচূড়ার রঙের ছড়াছড়ি। কিন্তু সম্প্রতি বিপন্নতার রঙে মলিন হতে চলেছে এর রঙ। কেননা কর্তৃপক্ষ নিরাপত্তার অযুহাতে তিনটি কৃষ্ণচূড়া গাছ কেটে ফেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

হাঁপানির আশঙ্কামুক্ত থাকুক আপনার সন্তান

সদ্যজন্মানো থেকে শুরু করে বৃদ্ধ সবারই হাঁপানি হতে পারে। তবে তুলনামুলকভাবে শিশুদের হাঁপানিতে বেশি ভুগতে দেখা যায়। মোট হাঁপানি রোগীর অর্ধেকের বয়স ১০ বছরের মধ্যে। মেয়েদের তুলনায় ছেলে শিশুদের এই রোগ বেশি হয়। বর্তমানে বিশ্বের প্রায় ১০ কোটি মানুষ শ্বাসনালির সমস্যা বা অ্যাজমায় আক্রান্ত আছে। তাই আপনার ঘরে আসা নতুন অতিথিকে হাঁপানির আশঙ্কামুক্ত রাখতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা রাখা জরুরি।
ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রিয়াজুল হক খান মিল্কি হত্যাকাণ্ডের অন্যতম আসামি সাখাওয়াৎ হোসেন চঞ্চল। ঘটনার পর থেকেই তিনি পলাতক। শোনা যায়, চঞ্চলকে যুক্তরাষ্ট্রে পালিয়ে যেতে সহায়তা্ করেছে স্বয়ং যুবলীগ। এমনকি সেখানে তাকে আশ্রয়ও দিচ্ছে সংগঠনটি। তবে সম্প্রতি এমন অভিযোগ অস্বীকার করেছেন যুক্তরাষ্ট্র মিশিগান অঙ্গরাজ্য যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহিদুর রহমান চৌধুরী জাবেদ। একইসঙ্গে চঞ্চল সেখানে কার আশ্রয়ে আছে তিনি বাংলামেইলকে সে তথ্যও দিয়েছেন।

ব্যবসা গোছাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রেআশ্রিত মিল্কীর খুনি চঞ্চল!

আগামী ৯ জুলাই থেকে আসন্ন ঈদের অগ্রিম টিকিট বিক্রি করবে রেলওয়ে। ১৩ জুলাই পর্যন্ত চলবে টিকিট বিক্রি। ঘরমুখো মানুষের নিরাপদ যাত্রীসেবা নিশ্চিত করার জন্য বিশেষ ট্রেন চালুরও উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। বাড়তি অতিরিক্ত ৮০ হাজার যাত্রীসহ আড়াই লাখ যাত্রী বহনের টার্গেট নিয়ে প্রতিদিন ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে যেসব ট্রেন চলছে তার সঙ্গে ১৪টি বিশেষ ট্রেন যুক্ত হবে। এসব বিশেষ ট্রেনে ১৬৯ টি কোচ যুক্ত করা হবে। এ নিয়ে চট্টগ্রামের পাহাড়তলী ও সৈয়দপুর ওয়ার্কশপে কোচ মেরামতের ধুম পড়েছে। এর মধ্যে ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে ৮৬টি এবং সৈয়দপুর রুটে (পশ্চিমাঞ্চল) ৮৩ টি বগি যুক্ত হবে।

পাহাড়তলী-সৈয়দপুরে বগি মেরামতের ধুম

ঈদ উপলক্ষে লঞ্চের অগ্রীম টিকিট বিক্রি শুরু না হলেও ক্যাবিন বুকিং শুরু হয়েছে। আগামী সপ্তাহের মাঝামাঝি সময় থেকে টিকিট বিক্রি শুরু হতে পারে। ঢাকা-বরিশাল, চাঁদপুর, পটুয়াখালীসহ বিভিন্ন রুটে যত লঞ্চ চলে এবার তার চেয়েও বেশি স্পেশাল লঞ্চ চালুর উদ্যোগ নিচ্ছেন মালিকরা। এরইমধ্যে কেরানীগঞ্জসহ বিভিন্ন ডক ইয়ার্ডে লঞ্চে রঙ করা ও মেরামতের কাজ শুরু হয়েছে। রাত-দিন খেটেখুটে এসব লঞ্চ প্রস্তুত করা হচ্ছে দক্ষিণবঙ্গের ঘরমুখি মানুষের ঘরে ফেরার পথে বহনের জন্য। কিন্তু ঈদের এই ঘরে ফেরা কতটা নিরাপদ হবে তা নিয়ে সংশয় থেকেই যাচ্ছে। ফি বছরের লঞ্চডুবির ঘটনায় অসংখ্য প্রাণহানির অভিজ্ঞতাও ঝুঁকিপূর্ণ যাত্রা থেকে নিবৃত্ত করতে পারছে না যাত্রীদের।

‘আনফিট’ ৫শ’ লঞ্চে স্পেশাল সার্ভিস!

রাজধানীর মতিঝিল থানার (বর্তমান পল্টন থানা) প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আবুল কালাম আজাদ। একাত্তরে জীবন বাজি রেখে যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন। যুদ্ধচলাকালেই স্থানীয় রাজাকাররা শান্তিনগরে তার ছিমছাম বাড়িটি দখলে নিয়ে নেন। সেসময় হয়তো বাড়িটি ওই মুক্তিযোদ্ধার চোখে নিছকই একটা থাকার জায়গাই ছিল। মুক্তির নেশায় বুদ হয়ে বাড়ির কথা ভুলে গিয়েছিলেন অনায়াসেই। কিন্তু ঝামেলায় পড়েন যুদ্ধ পরবর্তী সময়ে মাথা গোঁজার সময়। যুদ্ধের পর কিছুদিনের জন্য বাড়িটিতে তিনি বাস করতে পারলেও পুরো বাড়িটি আর দখলে যেতে পারেননি কখনোই। আংশিক দখলে যাওয়া নিজের বাড়িতেই মুক্তির শ্বাস হয়তো নিয়েছেন, কিন্তু বাতাসে পরাধীনতার গন্ধ ছিলই।

ডেভেলপারের দখলে মুক্তিযোদ্ধার বাড়ি