ফারুকী হত্যায় ‘রহস্যনারী’ আমেনা আটক

মাওলানা ফারুকী হত্যার পর এ নারীকে ঘিরে রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনার দিন বিকেলে এ নারী ফারুকীর বাসায় এসে নিজের নাম আসমা বলে দাবি করেন এবং কিছু সময় সেখানে অবস্থান করেন। ফারুকীর দ্বিতীয় স্ত্রীসহ স্বজনরা দাবি করেছেন বোরকা পরা ওই নারীর আচরণ ছিল সন্দেহজনক।

অনুমতি মেলেনি, মানববন্ধন স্থগিত

‘মানববন্ধনের কর্মসূচি অত্যন্ত সুশৃঙ্খল ও শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি। এই কর্মসূচি পালনের জন্য আমরা ঢাকা মহানগরী পুলিশ কমিশনারকে চিঠির মাধ্যমে অবহিত করি। প্রথমে আমরা প্রেসক্লাবকে কেন্দ্র করে পূর্ব দিকে দৈনিক বাংলা মোড় এবং পশ্চিম দিকে শাহবাগ শিশুপার্ক পর্যন্ত মানববন্ধনের বিস্তৃতি উল্লেখ করে চিঠি দেই, কিন্তু পুলিশ কর্মকর্তারা প্রধানমন্ত্রীর কর্মসূচির অজুহাতে আমাদের স্থান পরিবর্তনের জন্য অনুরোধ করলে আমরা গতকাল নয়াপল্টনস্থ বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়কে কেন্দ্র করে পূর্ব দিকে নটরডেম কলেজ এবং পশ্চিম দিকে বিজয়নগর মোড় পর্যন্ত মানববন্ধনের বিস্তৃতি উল্লেখ করে পুনরায় পুলিশ প্রশাসনকে চিঠি দেই। কিন্তু আজকের ‘ইন্টারন্যাশনাল ডে অব দি ভিকটিমস অব এনফোর্স ডিসঅ্যাপিয়ারেন্স’ এর জন্য ২০ দলীয় জোটের মানববন্ধনের কর্মসূচি সফল করতে না দেয়ার উদ্দেশে তারা নানা ধরণের টালবাহানা করতে থাকে।’

নেত্রীই ভরসা

এই প্রথমবারের মতো এককভাবে ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ছাত্র সমাবেশ করতে যাচ্ছে আওয়ামী লীগের সহযোগী ছাত্র সংগঠন ‘বাংলাদেশ ছাত্রলীগ’। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিবের স্মরণে এ সমাবেশের আয়োজন বলে জানা গেছে। এখন পর্যন্ত প্রধান অতিথি হিসেবে সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিত থাকারে বিষয়টি চূড়ান্ত রয়েছে। বিগত বছরগুলোতে সব ধরনের সমাবেশে ছাত্রলীগের উপস্থিতি থাকলেও এবারই প্রথমবার এককভাবে সমাবেশ করতে যাচ্ছে ছাত্রলীগ। সেদিক থেকে সমাবেশটি ঐতিহাসিক বলে উল্লেখ করছেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতারা। এদিকে খোদ ছাত্রলীগের নেতারাই মেয়াদ উত্তীর্ণ অবৈধ কমিটির হাত থেকে ঐতিহ্যবাহী এ সংগঠনটিকে বাঁচাতে দ্রুত সম্মেলনের নির্দেশ আশা করেছেন প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে। তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, দু বছরের কমিটি চার বছরে পা দিয়েছে। গঠনতন্ত্রের তোয়াক্কা না করেই চলছে এর কার্যক্রম। তারা আশা করেন, এ অচল অবস্থা থেকে প্রধানমন্ত্রী ছাত্রলীগকে উদ্ধার করতে এগিয়ে আসবেন। নেত্রীই এখন তাদের কাছে ভরসা।

এসি মিলানে তোরেস

চেলসি থেকে এসি মিলানে দুই বছরের জন্য ধারে খেলতে যাচ্ছেন স্পেনিশ তারকা স্ট্রাইকার ফার্নান্দো তোরেস। ব্রিটিশ রেকর্ড ট্রান্সফার ফিতে চেলসিতে যোগ দেয়া এই তারকার গেল বছর সময়টা ভাল কাটেনি। সে তার সেরা নৈপুণ্যে না থাকায় তাকে ধারে ইতালির লিগে খেলতে পাঠাচ্ছে মরিনহোর দল। শোনা যাচ্ছে ৬৩ মিলিয়ন ইউরো রেকর্ড ফিতে চেলসিতে আসা এই ফুটবলারের বেতনটা কমে যেতে পারে আসঙ্কাজনকভাবে। ৩০ বছর বয়সী তারকার সাপ্তাহিক বেতন নেমে যেতে পারে ২ লাখ ১৪ হাজার ইউরোতে!

জয়ে ফিরল ডর্টমুন্ড

এক সাপ্তাহ আগে বায়ার লেভেরকুসেনের বিপক্ষে হার দিয়ে বুন্দেসলিগা শুরু করেছিল বুরুসিয়া ডর্টমুন্ড। তবে শনিবার তারা আসবার্গকে হারিয়ে ফিরেছে জয়ের কক্ষপথে। জার্গেন ক্লপের শিষ্যরা গত শনিবার বায়ার লেভেরকুসেনের বিপক্ষে ২-০ ব্যবধানে হারের হাতশা উপহার দিয়ে ছিল। তবে ঠিক এক সাপ্তাহ পর তাদের দ্বিতীয় ম্যাচে জয়ে ফিরল বুন্দেসলিগার গত বারের রার্নাসআপরা। এসজিএল অ্যারেনা স্টেডিয়ামে ডর্টমুন্ড এদিন শেষ পর্যন্ত ৩-২ ব্যবধানের জয়ে পূর্ণ তিন পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছেড়েছে।

পর্তুগাল দলে নেই রোনালদো

পর্তুগালের জাতীয় দল থেকে বাদ পড়লেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। ইউরো ২০১৬ বাছাই পর্বের জন্য ঘোষিত স্কোয়াডে রোনালদোকে রাখেননি পর্তুগাল বস পাওলো বেন্তো। দলে সিআর সেভেনকে না রাখার কারণ হিসেবে তিনি জানান যে ফিটনেস সমস্যায় ভুগতে থাকায় তাকে দলে রাখা হয়নি। গত মৌসুমের শেষ দিকে হাঁটু ও রানের ব্যথায় আক্রান্ত হন মাদ্রিদ তারকা স্ট্রাইকার। এখনও পুরোপুরি ফিট নন তিনি। তবে লা লিগায় রিয়াল মাদ্রিদের অভিষেকে পুরো নব্বই মিনিট খেলেছেন তিনি। রোনালদো গোলও করেছেন সেই ম্যাচে। অথচ ব্যালন ডি’আর জয়ী রোনালদোর লা লিগা ম্যাচ মন গলাতে পারেনি বেন্তোর। তিনি বলেন, ‘তার ফিটনেস নিয়ে প্রশ্ন আছে। নিয়মিত খেলাতে না পারলে তাকে নিয়ে লাভ কী।’
ইয়াবা ব্যবসায়ীরা ফের তৎপর হওয়ার খবরে অভিযানে নেমেছে সংশ্লিষ্টরা। গত দুই দিনে অভিযান চালিয়ে ৫৭ হাজার ইয়াবাসহ পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) ও ডিএনসি। আবদুল্লাহ জোবায়ের নামের এক শীর্ষ ইয়াবা ব্যবসায়ী পাজেরো গাড়িতে করে কক্সবাজার থেকে নিয়ে আসেন ইয়াবার চালান। শুধু তাই নয়, রাজধানীর নিকেতন এলাকায় আবাসিক বাড়িতে ইয়াবা তৈরির সরঞ্জামও এনেছেন তিনি।

৭ মাসে ইয়াবা সেবন বেড়েছে ৪৭ শতাংশ

গতকাল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে রাজধানীর মগবাজারে রেলওয়ের জমি দখল নিয়ে বিরোধের জেরে এক স্কুল শিক্ষিকাসহ তিনজনকে হত্যা করা হয়। এই কিলিং মিশনের পুরো পরিকল্পনা সম্পর্কে চাঞ্চল্যকর তথ্য পেয়েছে পুলিশ ও র‍্যাবের গোয়েন্দারা। স্থানীয় ও গোয়েন্দা সূত্রে জানা গেছে, এই হত্যাকাণ্ডের নেতৃত্বে ছিলেন স্থানীয় সন্ত্রাসী কাইল্যা বাবু ওরফে কালাবাবু ওরফে কলকি বাবু। তিনি পলাতক সন্ত্রাসী তানভীরুজ্জামান খান রনির ঘনিষ্ট সহযোগী। আর রনি তালিকাভুক্ত শীর্ষ সন্ত্রাসী জিসানের ঘনিষ্ঠ সহযোগী। এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জিসানের গ্রুপের রনির প্রত্যক্ষ সম্পৃক্ততা রয়েছে।

তিন খুন: পরিকল্পনায় রনি বাস্তবায়নে কালাবাবু

নেপালে নিমচন্দ্র ভৌমিক, ব্রিটেনে মিজারুল কায়েস, লেবাননে গাউসুল আজমের পর এবার ভারতের বাংলাদেশ হাইকমিশনের কমার্শিয়াল কাউন্সিলর ড. নাহিদ রশীদের বিরুদ্ধে ব্যাপক অনিয়ম-দুর্নীতি ও সরকারি অর্থ লোপাটের অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনায় তোলপাড় চলছে ভারতে বাংলাদেশ হাই কমিশনে।

এবার দিল্লি দূতাবাস কর্মকর্তার অর্থ কেলেঙ্কারি

ভাইরে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আমারে এইখান থেকে নিয়া যাও। ওরা আমাদের একটা অন্ধকার ঘরে আটকাইয়া রাখছে। আধা কেজি চালের ভাত দেয় আমগো ১০ জনরে। ওরা আমাদের বিক্রি কইরা দিব। প্রতিদিন মারধোর করে...

কাতারে বন্দী বাংলাদেশি ১০ নারীর আকুতি