শুক্রবার, ২৮ নভেম্বর ২০১৪ ।

আর বাকি

অতো শত থিওরি বুঝি না

সুশীল সমাজ ও বুদ্ধিজীবীদের প্রতি ইঙ্গিত করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘আকাশে-বাতাসে, পত্রিকার পাতায় দেশের উন্নয়নে অনেকের অনেক থিওরি (তত্ত্ব) শুনি। কিন্তু উনাদের দেয়া তত্ত্বাবধায়ক থিওরি ডুবে গেছে। আমি অতো শত থিওরি বুঝি না। আমি একটাই থিওরি বুঝি যে, কীভাবে সব মানুষের মুখে অন্ন, চিকিৎসা, বাসস্থান ও উন্নত জীবন নিশ্চিত করবো। এই থিওরি নিয়ে আমি দেশের জন্য কাজ করে যাচ্ছি। দেশ আজ সবদিক থেকে এগিয়ে যাচ্ছে, এগিয়ে যাবেই। কেউ এই অগ্রযাত্রা রুখতে পারবে না।’

দশম কেন, একাদশ কবে?

বিএনপি নির্বাচনে অংশ কেন নেয়নি ও ৫ জানুয়ারির দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রয়োজনীয়তা নিয়েও জানতে চেয়েছেন মার্কিন সহকারী সেক্রেটারি এবং আগামী সংসদ নির্বাচন কবে তা বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদের কাছে জানতে চেয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ পূর্ব এশিয়া বিষয়ক সহকারী সেক্রেটারি নিশা দেশাই বিসওয়াল। তার এমন কথার জবাবে সঠিক সময়েই আগামী নির্বাচন হবে বলে জানিয়েছেন রওশন এরশাদ।

গণতন্ত্রেই জোর দিলেন নিশা

দক্ষিণ এশিয়ার উন্নয়ন এবং অর্থনৈতিক সহযোগিতার অগ্রগতি ধরে রাখতে এই অঞ্চলে গণতন্ত্র সুদৃঢ় করার উপর জোর দিয়েছেন ঢাকা সফররত যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিষয়ক সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিশা দেশাই বিসওয়াল। শুক্রবার সন্ধ্যায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে বৈঠকে এ মত দিয়েছেন নিশা। অন্যদিকে দক্ষিণ এশীয় আঞ্চলিক সহযোগিতা সংস্থার (সার্ক) উন্নয়নে ওই সংস্থার পর্যবেক্ষক যুক্তরাষ্ট্রের ভূমিকাকে সাধুবাদ জানিয়েছেন বেগম জিয়া। বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গুলশান বাসভবন ফিরোজায় ঘণ্টাব্যাপী বৈঠক শেষে বৈঠকের বিষয়বস্তু সাংবাদিকদের সামনে তুলে ধরে এসব কথা জানান বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মবিন চৌধুরী। মবিন ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকের বিষয়ে মবিন বলেন, ‘বেগম খালেদা জিয়া ও নিশা দেশাই বিসওয়ালের মধ্যে প্রায় ঘণ্টাব্যাপী বৈঠক হয়েছে। বৈঠকে বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্র দুদেশের পারস্পরিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলাপ-আলোচনা হয়েছে।’
শীর্ষ সন্ত্রাসী বা দাগি কোনো আসামি নয়, অলিতে গলিতে আতঙ্ক হয়ে উঠেছে উঠতি সন্ত্রাসীরা। পুলিশ ও র‌্যাবের অপরাধ তদন্তেও উঠে এসেছে একই রকম তথ্য। সাম্প্রতিক হত্যাকাণ্ড, ছিনতাইসহ অনেক অপরাধ ঘটিয়েছে- তরুণ বখাটেরা। প্রশাসনের কাছে তারা নতুন মুখ। জানা গেছে, অপরাধীদের তথ্য সংরক্ষণের জন্য ঢাকা মহানগর পুলিশ চার বছর আগে (২০১০ সালে) ৫১৬ জন উঠতি সন্ত্রাসীর একটি তালিকা করে। ওই তালিকা হালনাগাদ করে নতুন অপরাধীদের নজরদারিতে আনা হয়নি। দায়িত্বশীল পুলিশ ও র‌্যাব কর্মকর্তারা বলছেন, অপরাধীদের অধুনিক ডাটাবেজ করা হচ্ছে- যেখানে সব ধরনের অপরাধীর বিষয়েই তথ্য থাকবে। তাদের মতে, বড় ধরনের অপরাধ সংঘটনের আগে উঠতি সন্ত্রাসীদের তালিকাভুক্ত করাও কঠিন কাজ। গত বছর একটি গোয়েন্দা সংস্থা ঢাকার এলাকাভিত্তিক সন্ত্রাসীদের ৭০০ সন্ত্রাসীর একটি তালিকা তৈরি করেছে। ওই তালিকার একটি বড় অংশজুড়ে আছে স্কুল-কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থী ও তরুণ বখাটেরা। ঢাকা মহানগর পুলিশের মুখপাত্র গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম কমিশনার মো. মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘টিনএজ বা কম বয়সের অরাধীর সংখ্যা বাড়ছে। তারা যেমন পাড়া-মহল্লায় অপরিচিত, তেমনই পুলিশের কাছেও। ফলে অপরাধ করে সহজেই গা-ঢাকা দিচ্ছে তারা। ঘটনার পরই তদন্তে তাদের খোঁজ পাই আমরা। তবে অপরাধীদের ডাটাবেজে তাদের অর্ন্তভুক্ত করা হচ্ছে।’
দিনের প্রথমভাগে কাজের চাপ বাড়বে। তবে শেষভাগে আছে বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দেয়ার দারুন অফার। তাই রেডি থাকুন সুন্দর একটা সন্ধ্যা কাটাতে। কর্মক্ষেত্রে বসের নেক নজর পড়বে আপনার ওপর। দূরের ভ্রমণ আজকের দিনে শুভ। অর্থযোগে বিপত্তি। তবে খোয়া যাওয়ারও আশঙ্কা নেই। প্রেমের ক্ষেত্রে মনোযোগ আবশ্যক। নইলে লাইন মারবে আপনার তিন নাম্বার বন্ধুটি।
ভারত থেকে পাচার হয়ে আসছে চেতনানাশক ওষুধ। এই চোরাকারবারের সঙ্গে জড়িত একাধিক চক্র। এরা এটিভেন, মাইলামের মত চেতনানাশক সীমান্ত পার করে এনে রাজধানীর কিছু ফার্মেসিতে পৌঁছে দেয়। পরে এসব অসাধু ফার্মেসি মালিকদের কাছ থেকে পৌঁছে যায় অজ্ঞানপার্টির ‘ওস্তাদদের’ হাতে। সম্প্রতি মিজানুর রহমান মিন্টু নামের এমনই এক ফার্মেসি মালিককে রাজধানীর ফকিরাপুল এলাকা থেকে আটক করেছে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে আটক করা হয় অজ্ঞানপার্টির আরো ৬টি গ্রুপের ৩১ সদস্যকে।
টানা চতুর্থ ম্যাচ জয় করে ধবলধোলাইয়ের পথে আরো এক ধাপ এগিয়ে গেল টাইগাররা। টানা তিন ম্যাচে সহজ জয়ের পর শুক্রবার মিরপুরের শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে জয়টা নিয়ে এক সময় সংশয়েই পরতে হয়েছিল স্বাগতিকদের। তবে সব সংশয় জয় করে শেষ পর্যন্ত হেসে খেলেই জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে মাশরাফি বাহিনী।
নাইজেরিয়ার কানো শহরের কেন্দ্রীয় মসজিদে জুমার নামাজ চলাকালে পরপর তিন দফা বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এতে বহু মানুষ মারা গেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এই মসজিদটি কানোর আমির মুহাম্মদ সানুসির বাড়ির কাছাকাছি অবস্থিত এবং সাধারণত শহরের প্রভাবশালী মুসলিম নেতারা সেখানে নামাজ পড়েন। তবে সানুসি বর্তমানে সৌদি আরবে আছেন। এক প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, তিনি প্রায় ৫০ জনের মরদেহ দেখেছেন। তবে এ সংখ্যা সম্পর্কে এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি।
বিএসএফ সূত্রের বরাত দিয়ে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, সীমান্ত পেরিয়ে কেউ গোপনে ভারতে ঢোকার চেষ্টা করলেই ধাক্কা খাবে এই অদৃশ্য দেয়ালে। তখনই বেজে উঠবে অ্যালার্ম। সজাগ হয়ে যাবে সীমান্তরক্ষী বাহিনী। অর্থাৎ অনুপ্রবেশকারী বা জঙ্গিরা বুঝতেই পারবে না, কোথায় রয়েছে লেজার ওয়াল। এ ব্যাপারে বিএসএফের ডিরেক্টর জেনারেল ডি কে পাঠক বলেন, ‘নিত্য নতুন চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হতে আমরা প্রতিনিয়ত অস্ত্র-সহ যুদ্ধের সাজ-সরঞ্জাম আধুনিক করছি। বেআইনি অনুপ্রবেশ ঠেকাতে লেজার ওয়ালকেই আমাদের সবচেয়ে আধুনিক সমাধান মনে হয়েছে।’

হিউজের জন্য...

ফিল হিউজের করুণ মৃত্যু ছুঁয়ে গেছে সারা পৃথিবীকে। হিউজের মৃত্যুতে ক্রিকেটের ওপরই অভিমান হয়েছে মাশরাফির। তার জন্য জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যাচ শুরুর আগে ১ মিনিট নীরবতা পালন করলো বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে জয়টা ফিল হিউজের জন্যই উৎসর্গ করলো বাংলদেশ ক্রিকেট দল। শুধু তাই নয় প্রত্যেক ক্রিকেটার নিজ নিজ ব্যাটের মাথায় ক্যাপ রেখে স্মরণ করলো হিউজের স্মৃতি। তারই একটা ছবিতে ধরা পড়লেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। কতটা কাতর বাংলাদেশ অধিনায়ক, সেটাই ফুটে উঠেছে যেন এই ছবিতে

ফাইনালের নায়ক ওয়াসিম আকরাম

একজন তরুণের কাছে ইংলিশরা এমনভাবে আত্মসমর্পণ করবে সেটা বোদহয় তারা ভাবতেও পারেননি। কার্যত যা ভাবেনি ইংল্যান্ড ১৯৯২ সালের ২৫ মার্চ মেলবোর্ণে তাই ঘটেছিল। ইমরান খান ক্যারিশমায় প্রথমবার বিশ্বকাপ জিতেছিল পাকিস্তান। আর ইমরানের এই অর্জনে সহযোদ্ধা হিসেবে পাশে পেয়েছিলেন তখনকার তরুণ ওয়াসিম আকরামকে। ফাইনালে এই আকরামই পাকিস্তানকে জেতাতে রেখেছেন বড় ভূমিকা। ইনসুইং-আউট সুইংয়ে ইংলিশ ব্যাটসম্যানদের বানিয়েছেন বোকা। সে সময় সুইং জিনিসটার সঙ্গেই পরিচিত ছিল না ব্যাটসম্যানরা।

যে কারণে ৪-০ তে সন্তষ্ট নয় টাইগাররা

সারা বছরের ব্যর্থতার যন্ত্রণা হয়তো এখনও ভুলেনি বাংলাদেশ ক্রিকেট দল! তাইতো, বছরের শেষে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টানা চার ওয়ানডে জিতেও সন্তষ্ট নয় নিরব বাংলাদেশ শিবির। উদ্দেশ্য একটাই টেস্টের মতো ওয়ানডেও সবগুলো ম্যাচ জিতে তারপর উদযাপন। শুক্রবার মিরপুরে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজে চতুর্থ ওয়ানডে জয়ের পরও মাশরাফিরা নিরব দাঁড়িয়ে থাকাই তার প্রমাণ। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচ জিতে সারা বছরের ব্যর্থতা ভুলতে চায় টাইগাররা। ম্যাচ শেষে অলরাউন্ডার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ বলেন, ‘আমরা ওয়ানডে সিরিজ জিততে চাইনি। আমাদের লক্ষ্য ওয়ানডে সিরিজের সবগুলো ম্যাচ জয় করা। শুধু লক্ষ্যই নয়, সত্যি বলতে আমরা ৫-০ তেই জিততে চাই।’

রিয়েলিটি শো’র মঞ্চে মৌটুসী

স্যাটেলাইট টেলিভিশন চ্যানেল আরটিভির আয়োজনে চলছে মা ও শিশুর অংশগ্রহণে রিয়েলিটি শো ‘ডেটল সেরা আমি সঙ্গে মা’ এর তৃতীয় আসর। আর এই অনুষ্ঠানের মঞ্চে এবার অতিথি হিসেবে আসছেন মডেল ও অভিনেত্রী মৌটুসী বিশ্বাস।

শনিবারের রাশিফল

দিনের প্রথমভাগে কাজের চাপ বাড়বে। তবে শেষভাগে আছে বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দেয়ার দারুন অফার। তাই রেডি থাকুন সুন্দর একটা সন্ধ্যা কাটাতে। কর্মক্ষেত্রে বসের নেক নজর পড়বে আপনার ওপর। দূরের ভ্রমণ আজকের দিনে শুভ। অর্থযোগে বিপত্তি। তবে খোয়া যাওয়ারও আশঙ্কা নেই। প্রেমের ক্ষেত্রে মনোযোগ আবশ্যক। নইলে লাইন মারবে আপনার তিন নাম্বার বন্ধুটি।
আগামী জানুয়ারি থেকেই প্রাথমিকভাবে এ কার্যক্রম শুরু করবে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। সে লক্ষ্যে ইসির জাতীয় পরিচয়পত্র নিবন্ধন অনুবিভাগ কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। সার্ভার স্টেশনগুলোর সঙ্গে ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্কের (ভিপিএন) মাধ্যমে ইসির তথ্যভাণ্ডারের (ডাটাবেজ) সঙ্গে সংযোগের কাজ শেষ হলে ভোটাররা জেলা-উপজেলা অফিস থেকেই যাবতীয় সেবা নিতে পারবেন। সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বলছেন, জেলা-উপজেলা ও বিভাগীয় সার্ভার স্টেশনগুলোর সরঞ্জাম ও সংযোগ স্থাপন সংক্রান্ত কার্যক্রম শেষের দিকে। সার্ভার স্টেশন সংযোগ চালু হলে সহজেই ভোটার তালিকায় নাম অন্তর্ভুক্তি,সংশোধন,হারিয়ে যাওয়া কার্ড উত্তোলন করা যাবে।

এবার হাতের নাগালে জাতীয় পরিচয়পত্র

বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশের পুরুষদের মাঝেও নারীর প্রতি সহিংস মনোভাব দিন দিন বাড়ছে। পুলিশ সদর দপ্তরের নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ সেলের তথ্য অনুযায়ী, ২০০১ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত প্রায় এক যুগে ১ লাখ ৮৩ হাজার ৩৬৫ জন নারী নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। আর ইউনিসেফের তথ্য অনুসারে দক্ষিণ এশিয়ার কিশোরী নির্যাতনের হার সবচেয়ে বেশি বাংলাদেশে। অস্বাভাবিক বেড়ে চলা এই নারী সহিংসতার হার কমিয়ে আনতে সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগ ২০০৯ সালের ১৪ মে একটি যুগান্তকারী রায় প্রদান করেন। রায়ের পাশাপাশি আদালত স্বপ্রণোদিত হয়ে যৌন হয়রানি প্রতিরোধের একটি নির্দেশনাও প্রদান করেন। কিন্তু রায় পরবর্তী প্রায় পাঁচ বছরেরও বেশি সময়

হাইকোর্টের নির্দেশ বাস্তবায়নে ধীরগতি

রাজবাড়ী রেলওয়ের লোকোসেড। ৩০ একর জায়গার উপর নির্মিত এ সেড বন্ধ হয়ে গেছে ১৬ বছর আগে। আর এ কারণেই রেলওয়ের প্রায় শত’ কোটি টাকার সম্পদ বেদখল হয়ে যাচ্ছে। অন্যের দখলে চলে গেছে ১৫০টি কোয়ার্টার। লোকোসেড এলাকার ট্রেনের লোহার পাত, অফিস কক্ষের দরজা, জালানা খুলে নিয়ে গেছে। লোকোসেডের জায়গা দখল করে গড়ে উঠেছে দোকানপাট ও ঘরবাড়ি। রেলওয়ের পুকুর দখল করে তৈরি করা হয়েছে বাড়ি ঘর। কোথাও গড়ে উঠেছে অসামাজিক কার্যকলাপের আখড়া। এছাড়া স্থায়ীয় ক্ষমতাসীন দলের ছত্রছায়ায় কোয়ার্টারগুলো ভাসমান মানুষের কাছে ভাড়া দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ফলে দেশের পশ্চিমাঞ্চলের রেল যোগাযোগ ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে।

শত কোটি টাকার সম্পদ লুট, কর্তৃপক্ষ নির্বিকার

বান্দরবান উপজেলা সদর খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি এলএসডি) ফখরুল আলম ওরফে মানিক। বেতন পান ৯ হাজার ৮শ টাকা, আর প্রতি মাসে খরচ করেন সোয়া ২ লাখ। মাসে দু’এক দিন অফিসে হাজিরা দেন। চট্টগ্রাম মহানগরীর অভিজাত আগ্রাবাদ আবাসিক এলাকায় ৩৫ হাজার টাকার ভাড়া বাসায় থাকেন তিনি। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সরকারি কাজ ফাঁকি দিয়ে ব্যক্তিগত কাজ করে অসৎ উপায়ে বিপুল অর্থ কামান তিনি। তিনি এখন কোটিপতি। সবাই জানার পরও তার বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না। বান্দরবান জেলা খাদ্য কর্মকর্তা থেকে শুরু করে শীর্ষ কর্মকর্তা পর্যন্ত তার কাছ থেকে সুবিধা নেয়ার কারণেই তিনি নির্বিঘ্নে সব করে যাচ্ছেন।

বেতন ৯৮০০, ব্যয় ২ লাখ টাকা