Banglamail-img

আন্তর্জাতিক ফুটবলকে বিদায় মেসির

কোপা আমেরিকার ফাইনালে চিলির কাছে ট্রাইব্রেকারে হেরে আন্তর্জাতিক ফুটবলকে বিদায় জানিয়েছেন আর্জেন্টিনার অধিনায়ক লিওনেল মেসি। কোপা আমেরিকার শতবর্ষী আসরের ফাইনালে চিলির বিপক্ষে টাইব্রেকারে হারের পর এমন ঘোষণা দেন ফুটবলের জাদুকর। খেলা শেষে সংবাদকর্মীদের মেসি বলেছেন, ‘সম্ভবত জাতীয় দলের হয়ে এটিই আমার শেষ খেলা।’ নির্ধারিত ও অতিরিক্ত সময় গোলশূন্য থাকার পর খেলা গড়ায় টাইব্রেকারে। আর্জেন্টিনার হয়ে প্রথম শট গোলপোস্টের বাইরে করেন ফুটবলের এ জাদুকর। এতে আর্জেন্টিনার কাপ জেতা অনেকটাই অনিশ্চিত হয়ে পড়ে। শেষে ৪-২ গোলে হেরে টানা তৃতীয়বারের মতো ফাইনালে উঠেও কাপ হাতছাড়া হয় আর্জেন্টিনার।
Banglamail-img

পঞ্চগড় ট্রাকচাপায় ইউপি সচিব নিহত

রাতে চাকলাহাট ইউনিয়ন পরিষদ মাঠে ট্রাক থেকে চাল নামানো হচ্ছিল। পাশেই গাছে হেলান দিয়ে মোবাইলে কথা বলছিলেন ওই ইউনিয়নের সচিব কাবুল হোসেন। এ সময় হঠাৎ ট্রাকটি একটু পেছালে গাছের সঙ্গে থাকা কাবুল হোসেন সজোরে ধাক্কা খায়। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
Banglamail-img

কুমিল্লায় ইউপি নির্বাচনে ভোট ডাকাতির তদন্ত শুরু

শেষ ধাপে অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনে কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার সবকটি ইউনিয়নের মতো বাঙ্গরা পূর্ব ইউনিয়নের ব্যাপক অনিয়ম সংগঠিত হয়েছে। এ ইউনিয়নের খামারগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র, বিষ্ণপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র এবং যোগীরখিল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে জাল ভোট, কেন্দ্র দখল, ব্যালট পেপার ছিনতাইসহ যাবতীয় অনিয়ম সংগঠিত করেছে চশমা প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী চেয়ারম্যান প্রার্থী হাজি আবদুল মান্নানের কর্মী, আত্মীয়-স্বজন ও ভাড়াটে সন্ত্রাসীরা।
Banglamail-img

আ.লীগকে ধরলেই জঙ্গিরা ধরা পড়বে

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগকে ধরলেই জঙ্গিরা ধরা পড়বে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। রোববার সুপ্রিমকোর্টের শহীদ শফিউর রহমান মিলনায়তনে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের উদ্দ্যোগে আয়োজিত এক ইফতার মাহফিলে তিনি এ মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের কাছে দেশি বিদেশি অস্ত্র আছে। কাজেই তাদেরকে ধরলেই জঙ্গিরা ধরা পড়বে।

কাঁদো আর্জেন্টিনা, কাঁদো

Banglamail-img
‘কষ্টের গায়ে লাল জামা, বেদনার গায়ে নীল।’ আসলেই কি তাই। নাকি বেদনার রং আকাশী ও সাদাও।বৈশ্বিক ও মহাদেশীয় মিলে ছয়টি ফাইনাল, ছয়বারই রানার্স আপ। ছয়বারই হতাশা আর কান্না সঙ্গী। ছয়বার মরণদূত হিসাবে সামনে হাজির হয়েছে জার্মানি, ব্রাজিল ও চিলি। স্বপ্নভঙ্গের বেদনা, সঙ্গে অঝোর ধারায় কান্না। একটি ট্রফি উঁচিয়ে ধরার আক্ষেপে যতবার অশ্রু ঝড়েছে আর্জেন্টিনার, তেমনটি আর কোন দলের হয়তো নেই্। আশা ছিল ২৩ বছরের অপেক্ষার অবসান হবে। হলো আর কই। দীর্ঘশ্বাস যেন আরও বেড়ে গেল। মেসির স্বপ্নপূরণ রূপ নিল কান্নায়। মেটলাইফ গ্যালারীতে মায়ের কোলে বসা ছোট্ট শিশুর চোখেও জল। যে দৃশ্য আর্জেন্টাইন ভক্তদের হৃদয় যেন আরও দুমড়ে মুচড়ে দিল।

‘গুমের দেশে’ গিয়ে বাবাকে ফিরিয়ে আনতে চায় হৃদি

Banglamail-img
‘গুমের দেশে’ গিয়ে বাবাকে ফিরিয়ে এনে তার সঙ্গেই ঈদ উদযাপন করতে চায় গুম হওয়া বংশাল থানা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক পারভেজ হোসেনের পাঁচ বছর বয়সী মেয়ে হৃদি। এ জন্য সরকারের কাছে ‘গুমের দেশে’ যাওয়ার একটি টিকিট চায় ছোট্ট নিষ্পাপ এই মেয়েটি।

জাহান্নাম থেকে মুক্তির গুরুত্বপূর্ণ ৩ আমল

Banglamail-img
কেউ যদি তিনবার সুরা ইখলাছ তিলাওয়াত করে, তবে আল্লাহ তাআলা তাকে সম্পূর্ণ কুরআন তিলাওয়াতে সাওয়াব দান করবেন। একদিন রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বললেন, তোমাদের মধ্যে কেউ কি এক রাতে (শোবার সময়) এক-তৃতীয়াংশ (১০ পারা) কুরআন পড়তে পারবে? সাহাবাগণ আরজ করলেন, এটা কেমন করে সম্ভব? রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বললেন, কুল হুয়াল্লাহু আহাদ (সুরা ইখলাছ) কুরআনের এক তৃতীয়াংশ। (বুখারি ও মুসলিম)

নাজাত দশকে মসজিদে মুসল্লিদের ইতিকাফ শুরু

Banglamail-img
পবিত্র রমজান মাসের শেষ দশককে নাজাতের দশক বা জাহান্নাম থেকে মুক্তির দশক বলা হয়। নাজাত তথা শেষ দশকে মসজিদে ইতিকাফ বা অবস্থান করা সুন্নতে মুয়াক্কাদায়ে কিফায়া। আরবি ‘ইতিকাফ’ শব্দের আভিধানিক অর্থ অবস্থান করা, স্থির থাকা, কোনো স্থানে আটকে পড়া বা আবদ্ধ হয়ে থাকা।  শরিয়তের পরিভাষায় রমজান মাসের শেষ দশক বা অন্য কোনো দিন জাগতিক কাজকর্ম ও পরিবার-পরিজন থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে ইবাদতের নিয়তে মসজিদে বা ঘরে নামাজের স্থানে অবস্থান করা ও স্থির থাকাকে ইতিকাফ বলে।

ডিবি থেকে ফিরে ‘আপসেট’ বাবুল আক্তার

Banglamail-img
বাবুল আক্তারকে কী বিষয়ে জিজ্ঞাসবাদ করা হয়েছে জানতে চাইলে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, ‘হত্যাকাণ্ডের তদন্তের স্বার্থে তাকে ডেকে পাঠানো হয়েছিল। ক্রিমিনালদের কাছ থেকে যে সব তথ্য পাওয়া গেছে, সেগুলো বাবুলের সাথে মিলিয়ে দেখা হয়েছে।’

একটি ভুলে জাতিসংঘ ছাড়ল ব্রিটেন!

Banglamail-img
একটি ভুলে দর্শকদের মধ্যে বিভ্রান্তি ছড়িয়েছে মার্কিন টেলিভিশন চ্যানেল ফক্স নিউজ। চ্যানেলটির সংবাদে প্রচার করা হয় ইউএন ছাড়ছে ব্রিটেন। আদতে সেটি ছিল ইইউ ছাড়ার খবর। অর্থাৎ ভুলক্রমে ইইউ-এর পরিবর্তে ইউএন শব্দটি চলে আসে টিভিস্ক্রিনে। সংবাদ পাঠকও ভুল শব্দটি পড়েন। ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্যপদ ছাড়া না-ছাড়া নিয়ে ব্রিটেনের গণভোটের তাৎক্ষণিক খবর দিচ্ছিল বিশ্বের তাবৎ টেলিভিশন চ্যানেল, অনলাইন ও প্রিন্ট মিডিয়াগুলো। মার্কিন টেলিভিশন চ্যানেল ফক্স নিউজও খবরটি দিচ্ছিল ‘ব্রেকিং নিউজ’ হিসেবে।
Banglamail-img

কাঁদো আর্জেন্টিনা, কাঁদো

‘কষ্টের গায়ে লাল জামা, বেদনার গায়ে নীল।’ আসলেই কি তাই। নাকি বেদনার রং আকাশী ও সাদাও।বৈশ্বিক ও মহাদেশীয় মিলে ছয়টি ফাইনাল, ছয়বারই রানার্স আপ। ছয়বারই হতাশা আর কান্না সঙ্গী। ছয়বার মরণদূত হিসাবে সামনে হাজির হয়েছে জার্মানি, ব্রাজিল ও চিলি। স্বপ্নভঙ্গের বেদনা, সঙ্গে অঝোর ধারায় কান্না। একটি ট্রফি উঁচিয়ে ধরার আক্ষেপে যতবার অশ্রু ঝড়েছে আর্জেন্টিনার, তেমনটি আর কোন দলের হয়তো নেই্। আশা ছিল ২৩ বছরের অপেক্ষার অবসান হবে। হলো আর কই। দীর্ঘশ্বাস যেন আরও বেড়ে গেল। মেসির স্বপ্নপূরণ রূপ নিল কান্নায়। মেটলাইফ গ্যালারীতে মায়ের কোলে বসা ছোট্ট শিশুর চোখেও জল। যে দৃশ্য আর্জেন্টাইন ভক্তদের হৃদয় যেন আরও দুমড়ে মুচড়ে দিল।

আন্তর্জাতিক ফুটবলকে বিদায় মেসির

কোপা আমেরিকার ফাইনালে চিলির কাছে ট্রাইব্রেকারে হেরে আন্তর্জাতিক ফুটবলকে বিদায় জানিয়েছেন আর্জেন্টিনার অধিনায়ক লিওনেল মেসি। কোপা আমেরিকার শতবর্ষী আসরের ফাইনালে চিলির বিপক্ষে টাইব্রেকারে হারের পর এমন ঘোষণা দেন ফুটবলের জাদুকর। খেলা শেষে সংবাদকর্মীদের মেসি বলেছেন, ‘সম্ভবত জাতীয় দলের হয়ে এটিই আমার শেষ খেলা।’ নির্ধারিত ও অতিরিক্ত সময় গোলশূন্য থাকার পর খেলা গড়ায় টাইব্রেকারে। আর্জেন্টিনার হয়ে প্রথম শট গোলপোস্টের বাইরে করেন ফুটবলের এ জাদুকর। এতে আর্জেন্টিনার কাপ জেতা অনেকটাই অনিশ্চিত হয়ে পড়ে। শেষে ৪-২ গোলে হেরে টানা তৃতীয়বারের মতো ফাইনালে উঠেও কাপ হাতছাড়া হয় আর্জেন্টিনার।
Banglamail-img

প্রথম সিনেমায় আমার আয় ছিলো মাত্র দশ টাকা

চলচ্চিত্রকে বিদায় জানিয়ে লন্ডনে থিতু হয়েছেন একসময়ের তুমুল জনপ্রিয় অভিনেত্রী রোজিনা। মাটির টানে মাঝে মাঝে বাংলাদেশে আসেন তিনি। এবার ঈদটা দেশে কাটতে ৯ জুন লন্ডন থেকে উড়ে ঢাকায় নেমেছেন। দেশে ফিরেই তুমুল ব্যস্ত হয়ে উঠেছেন।তারই এক ফাঁকে বাংলামেইলের মুখোমুখি হলেন তিনি।
শুক্রবার গভীর রাতেই তার বাসা থেকে এসপি বাবুল আক্তারকে নিয়ে গিয়েছিল গোয়েন্দা পুলিশ। ১৪ ঘণ্টা পর আবার ফিরেছেন তিনি। তার যাওয়া এবং ফিরে আসার মাঝে গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে, স্ত্রী হত্যায় ফেঁসে যাচ্ছেন বাবুল আক্তার। এ বিষয়ে বাংলামেইলের সাথে একান্ত আলাপচারিতায় নিজের বিশ্বাস ও অবিশ্বাসের কথাগুলো তুলে ধরেছেন বৃদ্ধ মোশারফ হোসেন।
সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে বৃহত্তম রপ্তানি খাত পোশাক শিল্প। ইউরোপীয় ইউনিয়নে অগ্রাধিকারমূলক বাজার সুবিধা বা জেনারালাইজড সিস্টেম অব প্রিফারেন্স (জিএসপি) পাচ্ছে বাংলাদেশ। এখন যুক্তরাজ্যের ক্ষেত্রে এ সুবিধা পাওয়ার জন্য নতুন করে আলোচনা করতে হবে। ফলে রপ্তানির বড় বাজার হারাতে পারে বাংলাদেশ।
চলতি বছরের গোড়ার দিকে ৪ লাখ টাকা দিয়ে একটি মেশিন ক্রয় করেন তিনি। একইসঙ্গে ক্রয় করেন একটি পিকআপও। আর সারা দেশের কৃষকের কাছ থেকে সরিষা সংগ্রহ করে ঢাকায় আনা হয়। সংগৃহীত সরিষা দিয়ে এই মেশিনের মাধ্যমে দৈনিক প্রায় ১০০ লিটার তেল উৎপাদন করছেন তিনি।    বেসরকারি একটি ব্যাংকের কর্মকর্তা আরিফুল ইসলাম। ভ্রাম্যমাণ এ মিল থেকে খাঁটি তেল কিনতে এসেছেন তিনি। কথা হয় তার সঙ্গে। তিনি বাংলামেইলকে বলেন, ‘এখনতো ভেজালের যুগ। খাঁটি মনে করে কিনলাম। সরসারি সরিষা থেকে তেল তৈরি হ
শুধু পড়ার টেবিল আর শিক্ষাঙ্গন নয়, সবসময় শিক্ষার্থীরা যাতে শিক্ষার পরিবেশে থাকতে পারে সে প্রযুক্তি সরকারিভাবে তাদের হাতে তুলে দিতে হবে। তারা যেন শিক্ষার বা জানার একটা বৃহৎ জগতে প্রবেশ করতে পারে। এ বিষয়ে বিশেষ নজর দিতে হবে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে অপটিক্যাল ফাইবার সংযুক্ত করতে হবে। এক্ষত্রে অনেকে বলেন টাকার সমস্যা। আমি বলছি টাকা কোনো সমস্যা না। আমাদের দেশে শিক্ষা ক্ষেত্রে দুই শতাংশ ব্যয় করা হচ্ছে। এটা খুবই কম অ্যামাউন্ট (পরিমাণ)। আরো বেশি ব্যয় করা দরকার তাতে কোনো সন্দেহ নেই। পক্ষান্তরে শ্রীলঙ্কায় ব্যয় হচ্ছে ১.৭ শতাংশ। আমাদের চেয়ে কম ব্যয় করেও আজকে তারা আমাদের চেয়ে অনেক এগিয়ে। শুধু ব্যয় বাড়লেই যে শিক্ষার মান উন্নত হবে তা কিন্তু নয়। যে টাকাটা বরাদ্দ হচ্ছে তার সঠিক ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে। শহরের ও গ্রামের প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে অপটিক্যাল ফাইবার কানেকিটিভির আওতায় অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। গ্রামাঞ্চলে আপটিক্যাল ফাইবার সুবিধা নেই। কারণ ব্যবহারকারী নেই তাই। ব্যবহারকারী থাকলে যে কোনো কোম্পানি এক্ষেত্রে কাজ করতে আগ্রহী হবে।